সিঙ্গাপুরকে ৮-০ গোলে বিধ্বস্ত করল বাংলাদেশ

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ০৪ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৭:৪৩ | প্রকাশিত : ০৪ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৭:২৩

বছরের শেষ ম্যাচটা স্মরণীয় করে রাখলেন বাংলাদেশের নারী ফুটবলাররা। ঘরের মাঠে দুই ম্যাচের আন্তর্জাতিক সিরিজের প্রথম ম্যাচে সিঙ্গাপুর নারী দলকে ৩-০ গোলে হারিয়েছিল বাংলার বাঘিনীরা। আজ দ্বিতীয় ও শেষ ম্যাচে ৮-০ গোলে সিঙ্গাপুরকে উড়িয়ে দিয়েছে লাল সবুজের জার্সিধারীরা।

সোমবার ঢাকার বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয় দুই দল।

প্রথমার্ধে সিঙ্গাপুরকে তিন গোল দেয় বাংলাদেশ। আর দ্বিতীয়ার্ধে আরও পাঁচ গোল হজম করে বাংলাদেশের নারী দল থেকে র‌্যাঙ্কিংয়ে এগিয়ে থাকা দলটি। দ্বিতীয় হাফে গোল করেন সানজিদা আক্তার, ঋতুপর্ণা চাকমা, সাবিনা খাতুন, সুমায়া মাতসুশিমা ও শামসুন নাহার। প্রথমার্ধেও একটি গোল দিয়েছিলেন ঋতুপর্ণা চাকমা। তহুরা খাতুন প্রথম হাফে দুই গোল দিয়েছিলেন। দ্বিতীয় হাফে একটি গোল অফসাইড হওয়ায় তা বাতিল হয়ে যায়।

এর আগে ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণের পসরা সাজায় বাংলাদেশের মেয়েরা। একের পর এক আক্রমণ চালাতে থাকে। ভাগ্য প্রসন্ন হলে ১২ মিনিটেই এগিয়ে যেতে পারত বাংলাদেশ। সিঙ্গাপুরের অর্ধে আক্রমণে উঠে এসে দারুণ বাঁকানো শট নিয়েছিলেন সাবিনা। কিন্তু দূরের পোস্টে কেউ না থাকায় পোস্ট ঘেঁষে তা বাইরে চলে যায়।

তবে গোলের জন্য বেশি অপেক্ষা করতে হয়নি স্বাগতিকদের। ম্যাচের ১৬ মিনিটে তহুরার গোলে এগিয়ে যায় বাংলাদেশ। সাবিনা খাতুনের নেওয়া ফ্রি-কিক থেকে বল পান আরিফা। তার কাছ থেকে মাসুরা বল পেয়ে বল বাড়ান ফাঁকায় দাঁড়ানো তহুরার কাছে। হেডে সিঙ্গাপুরের গোলরক্ষককে পরাস্ত করতে খুব একটা বেগ পেতে হয়নি তহুরাকে। প্রথম ম্যাচে জোড়া গোল করা তহুরা এদিনও পেলেন গোলের দেখা।

প্রথম গোলের পর দ্বিতীয় গোল পেতেও বেশি অপেক্ষা করতে হয়নি। এবার গোল করেন ঋতুপর্ণা। আক্রমণের সূচনায় এবারও ছিলেন সাবিনা। তার নেওয়া কর্নার থেকে জটলায় বল পায় বাংলাদেশ।

গোলের সামনে ক্ষুরধার তহুরা এক গোলেই খুশি থাকেননি। ২৪ মিনিটে আরও একবার সিঙ্গাপুরের জালে বল জড়ান তহুরা। এবার সতীর্থের বাড়ানো বলে সিঙ্গাপুরের এক খেলোয়াড় ও গোলরক্ষকের বাধা এগিয়ে গোল করেন তিনি।

(ঢাকাটাইমস/০৪ ডিসেম্বর/এনবিডব্লিউ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :