আলোকিত সীমান্ত গড়তে বিজিবি-বিএসএফের ব্যতিক্রম আয়োজন ও বৈঠক

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ২০ এপ্রিল ২০২৪, ২২:৪৬

নিরাপদ, শান্তিপূর্ণ ও আলোকিত সীমান্ত গড়তে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ-বিজিবি ও ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী-বিএসএফের অধিনায়ক পর্যায়ে ব্যতিক্রমী বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। পাশাপাশি আয়োজন করা হয়েছে খেলাধুলা ও আলোচনা সভার।

শনিবার নওগাঁ সীমান্তের খয়েরবাড়ি মাঠ পত্নীতলা বিজিবি ব্যাটালিয়ন (১৪ বিজিবি) এবং বিএসএফ ১৩৭ ব্যাটালিয়নের কমান্ডার পর্যায়ে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

এতে বিজিবির ১৫ সদস্য বিশিষ্ট প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন পত্নীতলা ব্যাটালিয়নের (১৪ বিজিবি) অধিনায়ক লে. কর্নেল হামিদ উদ্দিন। আর বিএসএফের ১৫ সদস্যের প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন বিএসএফ ১৩৭ ব্যাটালিয়নের কমান্ড্যান্ট শুকভীর ধাংগার।

জানা গেছে, নওগাঁ সীমান্তের খয়েরবাড়ি এবং ভারতের ভুলকিপুর অধিক চোরাচালানপ্রবণ এলাকা। বিজিবি-বিএসএফ ক্যাম্প সীমান্তবর্তী গ্রাম দুইটির দূরে হওয়ায় এবং সীমান্তে ভারতের কোনো কাঁটাতারের বেড়া না থাকায় দুষ্কৃতকারীরা দীর্ঘদিন ধরে এই এলাকাকে মাদকপাচার ও চোরাচালানের রুট হিসেবে ব্যবহার করে আসছে। মাদক ও চোরাচালান মুক্ত করতে বিজিবি-বিএসএফের অধিনায়ক পর্যায়ে বিভিন্ন সময়ে আলোচনা, কৌশল নির্ধারণ এবং সে বিষয়ে সহযোগিতার ভিত্তিতে কিছু কার্যক্রম গ্রহণ করতে যৌথ পরিকল্পনা নেওয়া হয়। এরই ধারাবাহিকতায় বিজিবি-বিএসএফের এই ব্যতিক্রমী বৈঠক অনুষ্ঠিত হলো।

এতে দুই দেশের সাধারণ মানুষ মাদক ও চোরাচালান প্রতিরোধের কার্যক্রমের অংশ হিসেবে উভয় দেশের সাধারণ মানুষ এবং ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য বিভিন্ন খেলাধুলার আয়োজন করা হয়।

বিজিবি ও বিএসএফ মনে করে, শুধুমাত্র নিরাপত্তামূলক দায়িত্ব পালনের মাধ্যমে এই এলাকাকে মাদক ও চোরাচালানমুক্ত করা সম্ভব নয়। প্রয়োজন উভয় দেশের স্থানীয়ভাবে প্রভাবশালী ব্যক্তিদের সম্পৃক্ততা করা হবে।

বিজিবি পত্নীতলা ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল হামিদ উদ্দিন জানান, মাদক পাচারকারী ও চোরাকারবারীদের অন্ধকার জীবন থেকে আলোর পথে ফিরিয়ে আনতে বিজিবি এই উদ্যোগ নিয়েছে।

তিনি বলেন, আমাদের মূলপ্রতিপাদ্য হলো- ‘আলোকিত গ্রাম, আলোকিত মানুষ, আলোকিত সীমান্ত’। সীমান্তবর্তী এলাকার স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের হাতে থাকবে বই-খাতা। তাদের চোখে-মুখে থাকবে রঙিন স্বপ্ন। সীমান্তবর্তী কৃষক, বেকার ও সাধারণ মানুষ তাদের জীবন জীবিকার জন্য মাদক পাচার, চোরাচালানের সঙ্গে সম্পৃক্ততা নয় বরং বেছে নেবে বিকল্প কোনো অর্থনৈতিক উপায়।

ঢাকাটাইমস/২০এপ্রিল/এসএস/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা