আত্মহত্যার মতো কঠিন সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন নুসরাত জাহানও! কিন্তু কেন?

বিনোদন ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ১২ জুন ২০২৪, ০৮:৫৩

গত কয়েক বছরে ভারতে উল্লেখযোগ্য হারে অভিনয়শিল্পী আত্মহত্যা করেছেন। সংখ্যাটা অনেক। যাদের মধ্যে ভারতের দক্ষিণী ইন্ডাস্ট্রি এবং পশ্চিমবঙ্গের টলিউড অভিনয়শিল্পী বেশি। আছেন বলিউডেরও কয়েকজন। এদের মধ্যে কেউ হাতে কাজ না থাকায়, কেউ প্রেমঘটিত কারণে আত্মঘাতী হন।

কিন্তু জানেন কি, আত্মহত্যা করার মতো কঠিন সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন টলিউড নায়িকা ও পশ্চিমবঙ্গের বশিরহাটের সাবেক সংসদ সদস্য নুসরাত জাহানও। কিন্তু তিনি অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে যান।

এ পর্যন্ত তিনটি বিয়ে করেছেন নুসরাত জাহান। দ্বিতীয় স্বামী নিখিল জৈনের সঙ্গে দাম্পত্য কলহ এবং অভিনেতা যশ দাশগুপ্তের সন্তানের মা হওয়ার আগে একে একে বেরিয়ে আসতে থাকে এই নায়িকার অজানা তথ্য। তা থেকেই জানা যায়, দ্বিতীয় বিয়ের কিছুদিন পরই নাকি নুসরাত অতিমাত্রায় ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। তবে দ্রুত অভিনেত্রীকে হাসপাতালে নেওয়ার ফলে সে যাত্রায় বেঁচে যান।

কিন্তু কার জন্য আত্মহত্যার মতো এত বড় পদক্ষেপ নিয়েছিলেন নুসরাত? নেপথ্যে কারণ কী ছিল? নিখিলের সঙ্গে দাম্পত্য কলহ, নাকি বর্তমান জীবনসঙ্গী যশ দাশগুপ্তের সঙ্গে বিরহ? যদিও সেই কারণ কখনো প্রকাশ করেননি এই টলিউড নায়িকা। প্রাক্তন স্ত্রীর এমন কাণ্ড নিয়ে মুখ খোলেননি নিখিলও।

২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের প্রার্থী হন নুসরাত। নির্বাচনে জিতে বসিরহাটের সংসদ সদস্যও হন। বিজেপির প্রার্থী সায়ন্তন বসুকে সাড়ে তিন লাখ ভোটের বড় ব্যবধানে হারান তিনি। ওই বছরেরই ১৯ জুন তুরস্কে গিয়ে দিল্লির ব্যবসায়ী নিখিল জৈনকে বিয়ে করেন।

এর কিছুদিন পরই শোনা যায়, নুসরাত হাসপাতালে। একসঙ্গে অনেক ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলেন তিনি। তাকে আইসিইউতে রাখা হয়। থানায় রিপোর্ট করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। সেখান থেকে বেরিয়ে আসে খবর। যদিও এ খবরকে পরে গুজব বলে উড়িয়ে দেয় নুসরাতের পরিবার।

(ঢাকাটাইমস/১২জুন/এজে)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিনোদন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :