আলফাডাঙ্গায় সেই সরকারি খালে ইউএনওর অভিযান

আলফাডাঙ্গা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৩ মে ২০১৯, ২০:০১

পাঠকপ্রিয় দৈনিক ঢাকা টাইমসে সংবাদ প্রকাশের পর ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গায় সেই সরকারি খালে অভিযান চালিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) আসাদুজ্জামান।

রবিবার ঢাকাটাইমস২৪.কম ও সোমবার দৈনিক ঢাকা টাইমস পত্রিকায় ‘সরকারি খালে বাঁধ দিয়ে পুকুর নির্মাণ’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশ করা হয়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে সোমবার বিকাল পাঁচটার দিকে এ অভিযান পরিচালনা করেন তিনি।

অভিযানে আগামী সাত দিনের মধ্যে খালের বাঁধ সরিয়ে ফেলার নির্দেশ দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) আসাদুজ্জামান।
উপজেলার বুড়াইচ ইউনিয়নের ফেন্দাহ গ্রামে বুড়িরখাল নামে ওই সরকারি খালে চারটি বাঁধ দিয়ে তিনটি পুকুর নির্মাণ করে দীর্ঘদিন ধরে মাছ চাষ করে আসছিলেন ওই গ্রামের আবদুল মান্নান শেখ, মুন্নু মোল্যা ও জালাল সরদার নামে তিন ব্যক্তি।

বাঁধ দেয়ার ফলে পানির প্রবাহ বাধাগ্রস্ত হওয়ায় সময়মতো বোরোর বীজতলা তৈরি ও পাট পচাতে পারছিলেন না এলাকাবাসী। ফলে তারা ব্যাপক ভোগান্তির শিকার হচ্ছিলেন।

আট কিলোমিটার দীর্ঘ বুড়িরখাল নামে ওই খালটি উপজেলার জাঙ্গালি হিদাডাঙ্গা এলাকার বারাসিয়া নদী থেকে শুরু হয়ে দক্ষিণে নাটুরিয়ার মরাখালে গিয়ে মিশেছে।

সম্প্রতি পানি উন্নয়ন বোর্ড (সাউথইস্ট প্রজেক্ট) খালটি নতুন করে সংস্কার করলেও ঠিকাদার মেসার্স খন্দকার শাহিন আহমেদের প্রতিনিধি আতিয়ার হোসেন ওই তিন ব্যক্তির কাছ থেকে ঘুষ নিয়ে ওই তিনটি পুকুরের প্রায় ১৫শ থেকে দুই হাজার ফুটের একটুও পুনঃখনন না করে চলে গেছেন বলে অভিযোগ করেন এলাকাবাসী।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) আসাদুজ্জামান ‘ঢাকা টাইমস’কে বলেন, ‘আমি ঢাকাটাইম-এ সংবাদটি দেখে ওই খালে অভিযান পরিচালনা করেছি এবং আগামী সাত দিনের মধ্যে খালের বাঁধ সরিয়ে ফেলার নির্দেশ দিয়েছি।’

(ঢাকাটাইমস/১৩মে/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :