‘কাশ্মীরে গণহত্যার নীলনকশা বাস্তবায়ন করছে ভারত’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২০ আগস্ট ২০১৯, ১৯:০১

ভারত অধিকৃত কাশ্মীরে গণহত্যা চালানোর অভিযোগ করেছেন পাকিস্তান অধিকৃত জম্মু-কাশ্মীরের প্রেসিডেন্ট  ও সাবেক কূটনীতিক সরদার মাসুদ খান।

মঙ্গলবার ইসলামাবাদে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই অভিযোগ করেন। তার মতে, ভারতে বিজেপি নেতৃত্বাধীন সরকার কাশ্মীরে নৃশংস গণহত্যার নীলনকশা বাস্তবায়ন করছে।

সরদার মাসুদ খান পাকিস্তান অধিকৃত জম্মু-কাশ্মীরের ২৭তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এর আগে একজন কূটনীতিক ছিলেন।

সরদার মাসুদ খান বলেন, ভারতের অধিকৃত জম্মু-কাশ্মীরের নাগরিকদের হত্যার পর অজ্ঞাত স্থানে মাটিচাপা দেয়া হচ্ছে। নারীদের ওপর নির্যাতন চালানো হচ্ছে। ইতিমধ্যে প্রায় ছয় হাজার নাগরিককে আটক করা হয়েছে। অভিযোগ ছাড়াই তাদের দুই বছরের বেশি সময় ধরে কারাগারে আটক রাখা হবে।

তার মতে, উপরের সবগুলো ঘটনা যেকোনো অঞ্চলে গণহত্যাকে নির্দেশ করে। তাছাড়া, মোবাইল-ইন্টারনেট সংযোগ বন্ধ থাকায় উপত্যকার ঘটনা প্রকাশ্যে আসছে না।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমকে কৃতজ্ঞতা জানিয়ে মাসুদ খান বলেন, কাশ্মীর ইস্যুতে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম নিরপেক্ষতা বজায় রাখছে। এ কারণে তাদেরকে ধন্যবাদ জানাই।

সম্প্রতি জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে কাশ্মীর ইস্যুতে অনুষ্ঠিত বৈঠক সম্পর্কে বলেন, প্রায় ৫০ বছর পর জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে কাশ্মীর ইস্যুতে বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। এটি একটি ইতিবাচক পদক্ষেপ। কাশ্মীরের থাকা আমাদের ভাই-বোনদের জন্য অনেক পথ পাড়ি দিতে হবে।

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের পরবর্তী পদক্ষেপ হবে ত্রিমুখী অ্যাজেন্ডা নিয়ে কার্যক্রম পরিচালনা করা। এগুলো হচ্ছে, কাশ্মীরে গণহত্যার অবসান ঘটানো, ভারতের সঙ্গে কাশ্মীরকে একীভূত করার অবৈধ প্রচেষ্টা বাতিল করা এবং কাশ্মীরিদের আত্মনিয়ন্ত্রণের অধিকার ফিরিয়ে দেয়।

কাশ্মীরের মানবিক সংকট উল্লেখ করে বলেন, কাশ্মীরের নাগরিকরা খাদ্যসামগ্রী এবং প্রয়োজনীয় ওষুধের সংকটে পড়েছেন। তাদের মৌলিক অধিকার পূরণের জন্য বিশ্বের বিভিন্ন দেশের দাতব্য সংস্থাগুলোকে সেখানে মানবিক ত্রাণ চালু করা উচিত।

(ঢাকাটাইমস/২০আগস্ট/আরআর/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আন্তর্জাতিক এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :