পর্তুগালে বঙ্গবন্ধুর শাহাদাতবার্ষিকী পালন

পর্তুগাল প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ৩০ আগস্ট ২০১৯, ১৫:০৪

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাতবার্ষিকী ও ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরণে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল করেছে পর্তুগাল আওয়ামী লীগ।

পর্তুগালের স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার রাত নয়টায় রাজধানী লিসবনের বেঙ্গল রেস্টুরেন্টে এই দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন লিসবন বায়তুল মোকারম মসজিদের দ্বিতীয় খতিব মাওলানা মো. হাসান।

আলোচনায় বক্তারা বলেন, শোকের মাস আগস্ট। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে এ মাসের ১৫ তারিখে সপরিবারে হত্যা করে ঘাতকচক্র।

তারা বলেন, যারা জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অর্জিত বাংলাদেশের স্বাধীনতা মেনে নিতে পারেনি, তারাই ৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যা করে বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা ও স্বাধীনতা সার্বভৌমত্বকে বিলুপ্ত করতে চেয়েছিল। আগস্ট মাস বাঙালি জাতির জীবনে বিয়োগান্তক মাস। হত্যা, খুন, স্বজন হারানোর মাস। জাতিকে নেতৃত্বশূন্য করার মাস। ৭১ পরাজিত শত্রু ও তাদের দোসররা বারবার বেছে নিয়েছে আগস্টকে। মানবসভ্যতার ইতিহাসে ঘৃণ্য ও নৃশংসতম। ’

বক্তারা আরও বলেন, ৭৫ এর ১৫ আগস্ট নরপিশাচরূপী খুনিরা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা পর ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট জননেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার ষড়যন্ত্র করে। এই শোকাবহ আগস্ট আমাদের কাছে বেদনাবিধুর হয়ে আসে।

বক্তারা আরও বলেন, দেশ ও প্রবাসে স্বাধীনতা বিরোধীরা এখনো সক্রিয়। তারা জাতির জনকের সুযোগ্য উত্তরসূরী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে এবং দেশ ও সরকারবিরোধী সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করতে স্বাধীনতার পক্ষের শক্তি তথা প্রকৃত মুজিব আদর্শের সৈনিকদের ঐক্যবদ্ধ থাকার আহবান জানান।

আবুল বাশার বাদশার সভাপতিত্বে ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ফখরুল ইসলাম রিপনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে যোগ দেন শতাধিক আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের কর্মী সমর্থকরা।

শোক দিবসের অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে আরও বক্তব্য দেন- পর্তুগাল আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন, সহ-সভাপতি মাঈন উদ্দিন মাস্টার, মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক জিল্লুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক বিল্লাল রেজা, পর্তুগাল ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি রনি হোসাইন, প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক শিপলু আহমেদ।

অনুষ্ঠানে কমিউনিটির গণ্যমান্য ব্যক্তিদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মোহাম্মদ শাহাজান, মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান, মোহাম্মদ সেলিম সেরনিয়াবাত, আবু হেনা চৌধুরী, মেজবাউল আলম রিগেন, মোহাম্মদ রাসেল, এম এ খালেক, খোরশেদ আলম লিটন, তোবারক হোসেন তপু, আক্তার হোসেন খোকন, মোহাম্মদ শাহিন, জাহিদ হাসান সোহাগ, মিন্টু কুমার, লিকসান মিয়া, নওশাদুর রহমান ইমন, আরিফ হোসেন, রাধা কান্ত, রিজভী, সজিব, সাইফুল, রুহুল আমিন, রাসেল, অভি, রবিন, মুক্তাদি, নিবির আহম্মেদ, মুন্না, রাজিব, তপু ফজলুল হক খান, তানভীর আলম, জোবায়ের হোসেন, মানিক, আরিফ, মো. শাহিন, হাসান কোরাইশি, আবু সুফিয়ান রাফি, আহম্মেদ ইয়ামিন, রাফসান রানা, ফরিদুল ইসলাম, সাজু আহম্মেদ, মারুফ আহম্মেদ, সাকির হোসেন প্রমুখ। আলোচনা শেষে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

ঢাকাটাইমস/৩০আগস্ট/প্রতিনিধি/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

প্রবাসের খবর বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত