দুদকের মামলায় সাতক্ষীরার সাবেক সিভিল সার্জন কারাগারে

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৭:৫৯

সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল ও জেলার বিভিন্ন স্বাস্থ্য কমপ্লেকে যন্ত্রপাতি ক্রয়ের নামে ১৬ কোটি ৬১ লাখ টাকা আত্মসাতের মামলায় সাবেক সিভিল সার্জন ডা. তৌহিদুর রহমানকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। সোমবার সাতক্ষীরা জেলা ও দায়রা জজ শেখ মফিজুর রহমানের আদালত এ আদেশ দেন।

হাইকোর্টের আদেশ অনুযায়ী ৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত তাকে হয়রানি না করার নির্দেশনা ছিল। তিনি সাতক্ষীরা দায়রা জজ আদালতে রবিবার সকালে জামিনের আবেদন জানান। কিন্তু উচ্চ আদালতের জামিনের মেয়াদ শেষ না হওয়ায় পরে সেটি প্রত্যাহার করা হয়। পরে সোমবার সকালে তিনি সাতক্ষীরা দায়রা জজ আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করলে আদালত তা নামঞ্জুর করে।

উল্লেখ্য, সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালসহ জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের ১৮ কোটি টাকার মালামাল ক্রয়ে দুর্নীতির ঘটনায় গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়।

পরে ৯ জুলাই এই সাতক্ষীরার সাবেক সিভিল সার্জন তাওহীদুর রহমানসহ নয়জনের বিরুদ্ধে দুদকের খুলনা সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে মামলা করেন প্রধান কার্যালয়ের উপসহকারী পরিচালক জালাল উদ্দিন।

এ মামলার অপর আসামিরা হলেন- সিভিল সার্জন অফিসের স্টোর কিপার এ.কে.এম ফজলুল হক, হিসাব রক্ষক আনোয়ার হোসেন, মেসার্স বেঙ্গল সায়েন্টিফিক অ্যান্ড সার্জিকেল কোং-এর সত্ত্বাধিকারী জাহের উদ্দিন সরকার, আব্দুর ছাত্তার সরকার, আহসান হাবিব, আসাদুর রহমান, কাজী আবু বকর সিদ্দীক, ঢাকার নিমিউ অ্যান্ড টিসির সহকারী প্রকৌশলী (অব.)  এএইচএম আব্দুস কুদ্দুস।

মামলার এজাহারে বলা হয়, অভিযুক্ত ব্যক্তিরা যোগসাজশে ক্ষমতার অপব্যবহার করে পূর্বপরিকল্পিতভাবে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালসহ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের যন্ত্রপাতির কোনো ধরনের চাহিদাপত্র না থাকা সত্ত্বেও যন্ত্রপাতি কেনার উদ্যোগ নেন। পরে মোট ১৬ কোটি ৬১ লাখ ৩১ হাজার ৮২৭ টাকা তুলে নিয়ে আত্মসাৎ করেন।

এ মামলার আসামি হিসাবরক্ষক আনোয়ার হোসেন ইতোমধ্যে আত্মসমার্পণ করে জেলহাজতে রয়েছেন।

(ঢাকাটাইমস/৯সেপ্টেম্বর/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :