অপহৃত কিশোরীর বয়স বাড়িয়ে বিয়ের অভিযোগ

রাঙামাটি প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২১:০৫

রাঙামাটি শহর থেকে অপহরণ করে বয়স বাড়িয়ে এক কিশোরীকে বিয়ের অভিযোগ উঠেছে। তাকে গত ৮ সেপ্টেম্বর অপহরণ করা হয়। পরে তার বয়স বাড়িয়ে দিয়ে অপহরণকারীর সাথে বিয়ে দেয়া হয়।

রবিবার সকালে রাঙামাটি শহরের একটি রেস্টুরেন্টে সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ তুলেন ভুক্তভোগী কিশোরীর মা। 

তিনি অভিযোগ করেন, তার জৈষ্ঠ্য কন্যা (১৬) গত ৮ সেপ্টেম্বর রাঙামাটি শহরের হ্যাপী মোড় এলাকায় শিক্ষকের কাছে প্রাইভেট পড়তে যায়। পথে স্থানীয় বখাটে নিয়াদ খান, আরমানসহ আরো কয়েকজন বখাটে একটি প্রাইভেটকারে করে জোর করে তুলে নিয়ে যায়। পরে চট্টগ্রামের আগ্রাবাদে নিয়ে মেয়ের বয়স বাড়িয়ে অপহরণকারী নিয়াদ খানের সাথে বিয়ে পড়ানো হয়। নিয়াদ খান রাঙামাটি শহরের কাঁঠালতলী এলাকার নেসার আহমদের ছেলে।

বিয়ে পড়ানোর পরে মেয়েকে দিয়ে চট্টগ্রামে মিথ্যা তথ্য দিয়ে সংবাদ সম্মেলন করানো হয়। এ ঘটনায় রাঙামাটি কোতয়ালি থানায় একটি অপরহরণ মামলা করা হলেও পুলিশ আসামিদের গ্রেপ্তার ও মেয়েকে উদ্ধারে কোন ব্যবস্থা নিচ্ছে না। বিপরীতে নিয়াদ খানের মামা লিয়াকত আলী খান আওয়ামী লীগের প্রভাব দেখিয়ে প্রতিনিয়ত মামলা প্রত্যাহারের চাপ দিচ্ছেন। না হলে গুম করার হুমকি দিচ্ছেন।

সংবাদ সম্মেলনে কিশোরীর বাবা বলেন,  তার মেয়ে এ বছর এসএসসি পাস করলে ঢাকার একটি কলেজে ভর্তি করানো হয়। গত কোরবানি ঈদের সময় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে রাঙামাটিতে আসে। চিকিৎসা শেষে রাঙামাটিতে প্রাইভেট পড়ছিল।

মেয়ের মূল জন্ম সনদ দেখিয়ে তিনি বলেন, মেয়ের জন্ম ২০০৩ সালে। কিন্তু সালের শেষ ডিজিট তিনটি মুছে ২০০০ সাল করিয়ে মেয়েকে বিয়ে পড়ানো হয়। বর্তমানে মেয়েটিকে চট্টগ্রামে কোথাও লুকিয়ে রাখা হয়েছে অভিযোগ করেন তিনি।

মেয়েকে সুস্থ শরীরে উদ্ধার ও অপহরণকারীদের গ্রেপ্তারের দাবি জানান কিশোরীর মা-বাবা।

(ঢাকাটাইমস/২২সেপ্টেম্বর/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :