ফ্রান্সে ইতিহাসের সবচেয়ে বড় কর্মবিরতি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৭:১১

ইউরোপের অন্যতম সমৃদ্ধ দেশ ফ্রান্সে ইতিহাসের সবচেয়ে বড় কর্মবিরতি চলছে। সরকারি কর্মকর্তাদের অবসরভাতা কমানো ও চাকরির বয়সসীমা বৃদ্ধির প্রতিবাদে লাখ লাখ মানুষ কাজ থেকে বিরত রয়েছেন।

বুধবার রাত থেকে এই কর্মবিরতি শুরু হলেও বৃহস্পতিবার তা চূড়ান্ত আকার ধারণ করে। কর্মবিরতি কার্যক্রমে অংশ নিয়েছেন পুলিশ, আইনজীবী, হাসপাতাল কর্মী, স্কুল ও পরিবহন কর্মীসহ অনেক সরকারি কর্মী। কর্মবিরতির কারণে দেশটির অধিকাংশ মেট্রো স্টেশন বন্ধ রয়েছে।

দেশটির প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ তার অবসর ব্যবস্থা না পাল্টানো পর্যন্ত কাজে ফিরবেন না তারা বলে জানান। ফলে এই কর্মবিরতি নিরসনে কীভাবে কাজ করতে হবে তা ম্যাক্রোঁর জন্য সবচেয়ে বড় পরীক্ষা।    

দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ক্রিস্টোফার কাস্টনার জানান, কর্মবিরতির সমর্থনে দেশজুড়ে ২৫০টি বিক্ষোভ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। কোনো কোনো বিক্ষোভ সহিংস হয়ে উঠতে পারে। দেশের সবার প্রতি শান্তিপূর্ণভাবে বিক্ষোভ করার জন্য আহ্বান করছি। অন্যথায় কোনো দাঙ্গা বা সহিংসতার চেষ্টা করলে তৎক্ষণাৎ তাকে আটক করা হবে।

বিক্ষোভে সহিংসতার আশক্সক্ষায় রাজধানী প্যারিসে ছয় হাজারের বেশি পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। অনেক পুলিশ স্টেশন বন্ধ রয়েছে। এছাড়া, প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অন্তত ৭০ ভাগ শিক্ষক বিক্ষোভে অংশগ্রহণ করেছেন।  

কর্মবিরতি নিয়ে এক জরিপে দেখা যায়, ৬৯ শতাংশ ফরাসি কর্মবিরতি সমর্থন করেন। সমর্থনকারীদের বেশিরভাগই আঠারো থেকে ৩৪ বছর বয়সী।

১৯৯৫ সালে একবার অবসর ব্যবস্থার সংস্কার নিয়ে কর্মবিরতিতে গিয়েছিলেন সরকারি কর্মকর্তারা। সেসময় তিনসপ্তাহ ধরে এই বিরতি চলে। পরে সরকার তাদের সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসতে বাধ্য হয়।

 (ঢাকাটাইমস/০৫ডিসেম্বর/আরআর)

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আন্তর্জাতিক এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :