দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির পেছনে বিএনপির হাত দেখছেন কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৯:৪৮ | প্রকাশিত : ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৪:০১

দ্রব্যমূল্যের অস্বাভাবিক দাম বৃদ্ধির পেছনে বিএনপির হাত আছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, ‘দ্রব্যমূল্যে বৃদ্ধির পেছনে তাদেরও (বিএনপি) একটা কারসাজি আছে।’

শুক্রবার ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগের সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের ২১তম জাতীয় সম্মেলন উপলক্ষে দপ্তর উপকমিটি সভা শেষে সাংবাদিকদের সামনে তিনি এ কথা বলেন।

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘দেশের পরিস্থিতি ডিস্ট্যাবিলাইজ করতে তারা (বিএনপি) উস্কানি দেবে। এটা আমার তদন্ত করছি। এখানে তারা নীরব আছে তা নয়, তারা প্রত্যেকটা ঘটনায় উস্কানি দিচ্ছে, মদদ দিচ্ছে। ইন্ধন যোগাচ্ছে। কাজেই আমারও প্রস্তুত আছি।’

এ সময় খালেদা জিয়ার মুক্তিতে সরকারের কোনো হাত নেই বলে মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘খালেদা জিয়ার মামলা রাজনৈতিক মামলা নয় যে রাজনৈতিকভাবে সরকার তাকে মুক্তি দিতে পারে। এটা হলো দুর্নীতির মামলা। দুর্নীতির মামলায় সরকারের কোনো করণীয় নেই। এটা আদালতের বিষয়। আজকে তারা (বিএনপি) কথায় কথায় বলে রাজনৈতিকভাবে আটকে রাখা হয়েছে, বন্দি রাখা হয়েছে, সর্বৈব মিথ্যা। এবং সত্যের অপলাপ। তারা বিষয়টি জেনে শুনেই তারা বলছে।’

সেতুমন্ত্রী বলেন, বিভিন্ন ইস্যুতে বিএনপি বারবার আন্দোলনের ডাক দিয়েছে। কিন্তু জনগণ তাদের ডাকে সাড়া দেয়নি। তারা বিভিন্নভাবে বিভিন্ন মহলকে উস্কানি দিচ্ছে- দ্রব্যমূল্য হঠাৎ করে ঊর্ধ্বগতিতে তাদের ইন্ধন রয়েছে এবং উস্কানি রয়েছে। আমরা তাদের অনেককেই চিহ্নিত করেছি। অবশ্যই তাদের শাস্তি হবে।

এক প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘একটা কথা বারবার বলতে কেমন লাগে। তাদের দগদগে ব্যর্থতা, আন্দোলনে-নির্বাচনে। এই ব্যর্থতার কোনো সীমা-পরিসীমা নেই। তারা রাজনীতিতেও ব্যর্থ, সাংগঠনিকভাবেও ব্যর্থ। দল একটা চলছে। দলের নেতৃত্বের নির্দেশনা আসে টেমস নদীর ওপার থেকে। বাংলাদেশ বাস্তবতার সঙ্গে তাদের নেতৃত্বের নির্দেশের কোনো মিল নেই। তাদের দলের অভ্যন্তরে একেক নেতা একেক কথা বলেন। নেতাদের মধ্য কেউ বলে দুর্বার আন্দোলন ছাড়া মুক্তি নেই, আবার কেউ বলে আন্দোলন করার এখনও সময় হয়নি।’

সাংগঠনিকভাবে আওয়ামী লীগ এই মূহুর্তে খুবই শক্তিশালী, সুসংগঠিত ও স্মার্ট পার্টি। এতগুলো সম্মেলনে হয়েছে টু শব্দও হয়নি বলেও জানান ওবায়দুল কাদের।

দপ্তর উপকমিটির আহ্বায়ক ও আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য পিযুষ কান্তি ভট্টাচার্যের সভাপতিত্বে সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ, দপ্তর সম্পাদক ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ, উপদপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, সদস্য আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।

ঢাকাটাইমস/৬ডিসেম্বর/টিএ/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :