সৌদির তেল কোম্পানি ‘আরামকো’ কত বড়?

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৫:০০

বাজারে শেয়ার ছেড়ে মূলধন সংগ্রহে রেকর্ড গড়েছে সৌদি আরবের তেল কোম্পানি সৌদি আরমকো৷ বিশ্বের তেল সৃমদ্ধ দেশ সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় তেল কোম্পানি এটি। চলুন বিশ্বে অন্যতম বৃহৎ এই তেল কোম্পানি সম্পর্কে কিছু তথ্য জেনে নিই।

আরামকোর যাত্রা শুরু ১৯৩৩ সালে৷ তখন নাম ছিলো অ্যারাবিয়ান অ্যামেরিকান অয়েল কোম্পানি৷ তখন তার সঙ্গে যুক্ত ছিল স্ট্যান্ডার্ড অয়েল কোম্পানি অব ক্যালিফোর্নিয়া যা বর্তমানে শেভরন৷

সত্তর ও আশির দশকে ধীরে ধীরে আরামকোর নিয়ন্ত্রণ নিজেদের হাতে নিতে থাকে সৌদি সরকার৷ ১৯৮৮ সালে প্রতিষ্ঠানটির বর্তমান নামকরণ করা হয়৷

সৌদি আরামকো বিশ্বের বৃহত্তম জ্বালানি কোম্পানি৷ প্রতিদিন ১ কোটি ২৫ লাখ ব্যারেলের তেল প্রক্রিয়াজাত করে প্রতিষ্ঠানটি। সেখান থেকে আয় হয় ১০০ কোটি ডলার৷

২০১৭ সালে আরামকোর করের হার কমিয়ে দেয় সৌদি আরব৷ সেটি আয়ের ৮৫ ভাগ থেকে নামিয়ে আনা হয় অন্তত ৫০ ভাগে৷ তারপরও প্রতিষ্ঠানটি ২০১৮ সালে ১০ হাজার কোটি ডলার সরকারের কোষাগারে জমা দিয়েছে- এমন তথ্য জানিয়েছে ক্রেডিট রেটিং এজেন্সি ফিচ৷

সৌদি আরামকোকে দেশটির জ্বালানি নির্ভর অর্থনীতির প্রতীক বলে ধরা হয়৷ যে কারণে অনেক সময় আরামকোর তেলক্ষেত্রকে লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করে সৌদি আরবের শত্রুরা৷ সেপ্টেম্বরে তেমনই দুটি স্থাপনায় ১৪টি মিসাইল হামলার ঘটনা ঘটে৷

সৌদি সরকারের মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানটি নিয়ন্ত্রণও করে দেশটির সরকার৷ সরকারের নীতি অনুযায়ী তেল উৎপাদন বা সরবরাহ কখনও বাড়ায়, কখনও কমায় আরামকো৷

৫ ডিসেম্বর বাজারে প্রথমবারের মত শেয়ার ছাড়ে আরামকো৷ রিয়াদের স্টক এক্সচেঞ্জে প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) বিক্রি করে দুই হাজার ৫৬০ কোটি ডলার মূলধন সংগ্রহ করেছে তারা৷ যার মাধ্যমে চীনা ই-কমার্স কোম্পানি আলিবাবাকে পেছনে ফেলে রেকর্ড গড়েছে আরামকো।

প্রাথমিকভাবে আইপিও বিক্রির মাধ্যমে আরামকোকে দুই লাখ কোটি ডলারের কোম্পানিতে পরিণত করার লক্ষ্য নির্ধারণ করেছিলেন সৌদি প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান৷ সেখানে মূলধন দাঁড়িয়েছে এক লাখ ৭০ হাজার কোটি ডলারে৷ তারপরও বিশ্বের সবচেয়ে মূল্যবান কোম্পানিতে পরিণত হয়েছে সৌদি আরামকো৷

ঢাকা টাইমস/০৭ডিসেম্বর/একে

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :