গ্রিসে প্রবল বিক্ষোভ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ১০ জুলাই ২০২০, ১৫:১১

বিক্ষোভ বন্ধ করার জন্য কড়া আইন নিয়ে এসেছে গ্রিসের সরকার। তার বিরুদ্ধেই বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে উঠেছে গ্রিস। এথেন্সের রাস্তার চেহারা দেখে মনে হচ্ছিল রণক্ষেত্র। রাস্তায় একের পর এক পেট্রোল বোমা ফেলেছে বিক্ষোভকারীরা। সেই আগুনের ফাঁক দিয়েবিক্ষোভকারীদের দিকে কাঁদানে গ্যাস ছোঁড়ে পুলিশ।

সরকারের প্রস্তাবিত নতুন আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ দেখাতে রাস্তায় নেমেছিলেন এথেন্সসহ গ্রিসের ৪০টি শহরের লোক। এই আইনে বিক্ষোভ বন্ধ করতে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলা হয়েছে। এথেন্সের কেন্দ্রস্থলে জড়ো হয়েছিলেন প্রায় দশ হাজার প্রতিবাদকারী। তাদের অধিকাংশই গ্রিক কমিউনিস্ট পার্টির শ্রম ইউনিয়নের ডাকে প্রতিবাদে যোগ দিয়েছিলেন।

কিছু বিক্ষোভকারী পেট্রোল বোমা ছুঁড়লে পুলিশ কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করে। এতে বিপাকে পড়েন মহিলারা, যারা বাচ্চাদের সঙ্গে নিয়ে বিক্ষোভে যোগ দিয়েছিলেন। তারা দ্রুত নিরাপদ আশ্রয়ের খোঁজে ছুটতে থাকেন। পুলিশ নয় জনকে গ্রেপ্তার করেছে। ১৫ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য আটক করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিক্ষোভে কড়াকড়ি বিষয়ে প্রস্তাবিত বিল নিয়ে পার্লামেন্টে বিতর্ক শেষ হয়। পরে ভোটাভুটির সময় ৩০০ সদস্যের পার্লামেন্টে ১৮৭ জন বিলের পক্ষে ভোট দেন। সেখানে প্রধানমন্ত্রী কিরিয়াকস মিটসোটাকিস বলেছেন, শান্তিপূর্ণভাবে বিক্ষোভ দেখানোর অধিকার রক্ষা করা হবে। কিন্তু বিক্ষোভ এমনভাবে দেখাতে হবে যাতে শহরের জীবনযাত্রায় কোনো প্রভাবনা পড়ে। রাস্তায় গাড়ি চলাচল বা বানিজ্যিক কাজকর্ম বাধা পায় এমন বিক্ষোভ তারা বরদাস্ত করবেন না।

তিনি বলেন, দেশের সব শহরের সিটি সেন্টারে হামেশাই ছোট ছোট বিক্ষোভ হচ্ছে। সেখান থেকে ভাঙচুর হচ্ছে। এটা বন্ধ হওয়া দরকার। প্রতিবাদের অধিকার যেমন আছে, তেমনই লোকের হাসপাতালে যাওয়ার অধিকারও আছে।

পার্লামেন্টের রিভিউ কমিটি, এথেন্স বার অ্যাসোসিয়েশন, ট্রেড ইউনিয়নসহ একাধিক সংস্থা আইন পরিবর্তনের বিরুদ্ধে। তাদের যুক্তি, অনুমোদিত নয় এমন বিক্ষোভ বা প্রতিবাদ সভা করা হলে আয়োজনকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলা হয়েছে। আর প্রতিবাদে হিংসা হলে আয়োজনকারীদের ক্ষতিপূরণ দিতে হবে এই ব্যবস্থা করা হচ্ছে। কিন্তু এই ব্যবস্থা নেওয়ার ক্ষেত্রে আইনত অসুবিধা আছে বলে তারা মনে করছেন।

গ্রিস সরকার জানিয়েছে, তারা এই সব আপত্তি নিয়ে একাধিকবার তাদের মত জানিয়েছে। এ বার তারা নতুন আইন কার্যকর করতে বদ্ধপরিকর। সূত্র: ডয়চে ভেলে

ঢাকা টাইমস/১০জুলাই/একে

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :