সীতাকুণ্ডে বসত ঘরে ভেজাল পণ্যের কারখানা

সীতাকুণ্ড (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৫ জুলাই ২০২০, ০০:২৭

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলায় বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস অ্যান্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউশন বিএসটিআই (বিএসটিআই) এর নকল লেবেল লাগিয়ে নির্বিঘ্নে চলছিল ভেজাল পণ্য ও অবৈধ মিনারেল ওয়াটার ব্যবসা।

গোপন তথ্যের ভিত্তিতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী অভিযান চালায় সীতাকুণ্ড উপজেলার মাদামবিবিরহাটস্থ নেভি রোড খাদিমপাড়া এলাকার জনৈক নুরুল ইসলামের বাড়িতে। এ যেন কেঁচো খুঁড়তে গিয়ে সাপ বেরিয়ে আসার মতো ঘটনা। প্রতিষ্ঠানের নেই কোনো নির্দিষ্ট ভবন নিজ বাড়িকে প্রতিষ্ঠান বানিয়ে চলছে রমরমা ব্যাবসা। বাইরে থেকে দেখে বুঝার কোন উপায় নেয় ঘরের ভিতরে চলছে এতো কিছু। এক ছাদের নিচে চার প্রতিষ্ঠান।

মঙ্গলবার দুপুরে ওই বাড়িতে অবৈধ মিনারেল ওয়াটার কারখানায় অভিযানে সন্ধান মেলে বাড়ির ভেতরে আরো বেশ কয়েকটি নকল ও ভেজাল পণ্য তৈরির কারখানার। দীর্ঘদিন ধরে ওই কারখানায় বিএসটিআই ও পরিবেশ অধিদফতরের কোনো অনুমোদন ছাড়াই বিভিন্ন নকল পণ্য উৎপাদন করা হচ্ছিল।

অভিযানে বিভিন্ন নকল পণ্য ও উৎপাদনে ব্যবহৃত মেশিন পাওয়া যায়। নকল পণ্যের মধ্যে রয়েছে মিনারেল ওয়াটার, ফাহিম চা পাতা, আর এস এম ডিটারজেন্ট পাউডার, ২ স্টার শাপলা মার্কা কালো দাঁতের মাজনসহবিভিন্ন পণ্য তৈরির বিষাক্ত কেমিক্যাল।

অভিযানের খবর পেয়ে পালিয়ে যায় বাড়ির মালিক নুরুল ইসলাম। এসময় তার বিরুদ্ধে মামলাসহ কারখানাটির কয়েকটি রুম সিলগালা করে দেয়া হয়।

মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মিল্টন রায়।

মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থা (এন এসআই) এর সহকারী পরিচারক শাহরিয়ার, অপু এবং সীতাকুণ্ডের জুনিয়র ফিল্ড অফিসার শেখ রেজাউল করিম।

(ঢাকাটাইমস/১৫জুলাই/কেএম)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :