এক বাঙালি মায়ের কান্না

অধ্যাপক ড. ফরিদ আহমেদ
| আপডেট : ১৬ জুলাই ২০২০, ১৭:৪৬ | প্রকাশিত : ১৬ জুলাই ২০২০, ১৭:২৪

কিশোরকাল কেটেছে অপেক্ষায়

আর অপেক্ষায়

যৌবন কেটেছে কেঁদে কেঁদে,

বার্ধক্য না হয় কাঁটবে আমার

অন্ধকার দেয়ালে

জাতির পিতার ছবি এঁকে।

.

২৩ বছর কেটেছে সংগ্রামে

২১ বছর কেটেছে বুকভাসিয়ে

বাকি জীবনটা কাটাবো

বাঙালির বিজয়ের পতাকা আঁকড়ে

কোন হায়েনা যাতে ছিনিয়ে নিয়ে যেতে না পারে।

.

৪৮-৭১- এ ২৩ বছর কেটেছে অপেক্ষায়-

কখন ‘জনক’আসবেন

কড়া নেড়ে ঘরে ঢুকে বলবেন-

“আমরা মুক্ত”।

.

৭৫-৯৮ আরও ২৩ বছর কেটেছে অপেক্ষায়-

বিচারকের দরজায় কড়া নেড়ে নেড়ে

কত রাত ভোর করেছি,

হয়তো বিচারকের দরজায় ঘুমিয়ে পড়েছি,

বিচার হবে ‘জনক’হত্যার ।

.

আরও লক্ষ-সহস্র দিবস-রজনী কেটেছে প্রত্যাশায়-

আসবে মুক্তি, আসবে গণতন্ত্র আর

প্রতিষ্ঠিত হবে বাঙালির সম্মান।

.

বাকি জীবনটা কাটাবো

কারাগারের দেয়ালে

জনকের স্মৃতিগুলো স্পর্শ করে-

আর বলবো-

আমি বাঙালি, বাংলা আমার দেশ-

মুজিব জাতির পিতা।

একদিন শেষ হবে এই অপেক্ষা

সমগ্র জাতি সেদিন মুক্তির স্বাদে হাসবে-

এখন হাসি না কারণ হাসতে মানা

“এই রাজার রাজত্বে।”

.

লেখক: শিক্ষক, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়

সংবাদটি শেয়ার করুন

সাহিত্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :