নৈশ প্রহরীদের বেঁধে ১১ দোকানে ডাকাতি

বাগাতিপাড়া (নাটোর) প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২১ জানুয়ারি ২০২১, ১৬:০৬ | প্রকাশিত : ২১ জানুয়ারি ২০২১, ১৫:৫৬

নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলার তমালতলা বাজারে বুধবার দিবাগত রাতে তিনজন নৈশ প্রহরীকে বেঁধে রেখে ১১টি দোকানে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় বাগাতিপাড়া মডেল থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

নাটোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, গোয়েন্দা পুলিশ ও সিআইডি পুলিশের একটি টিম বৃহস্পতিবার সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

নৈশ প্রহরী ও ব্যবসায়ীরা জানান, বুধবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে ১৫ থেকে ২০ জনের একটি ডাকাত দল বিভিন্ন অস্ত্র নিয়ে তমালতলা ব্রিজের দিক থেকে বাজারে আসে। তারা প্রথমেই তিন নৈশ্য প্রহরী মাজেদুর রহমান, ওমর আলী ও আবুল কালামের হাত পা বেঁধে পাশের লিচু বাগানে আটকে রাখে। পরে রাস্তার দুই পাশের ১১টি দোকানে তালা ভেঙে নগদ টাকা নিয়ে যায়।

এর মধ্যে উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি অধ্যক্ষ গোলাম মোস্তফা নয়নের রড, সিমেন্ট ও টিনের দোকান ফুয়াদ ট্রেডার্স থেকে এক লাখ সাড়ে ১২ হাজার, ব্যবসায়ী সুইটের রেজোয়ান ইলেকট্রনিক্স থেকে এক লাখ ৬০ হাজার টাকা ও মোবাইল, শিফাত সু ষ্টোর থেকে ৫৯ হাজার, সজিব ষ্টোরে ৫৫ হাজারসহ, ব্রাদার্স ফার্মেসি ও রোগ মুক্তি ফার্মেসি, সিটু স্টোর, সরকার স্টোর, শিমুল এগ্রো এন্টাপ্রাইজ, আলিফ ইলেকট্রনিক্স এন্ড হার্ডওয়্যাস এবং সিদ্দিক স্টোরের তালা ভেঙে কয়েক লাখ নগদ টাকা নিয়ে চলে যায়।

এ ব্যাপারে বাজার কমিটির সভাপতি কাওসার আলী বলেছেন, প্রকাশ্য অস্ত্র নিয়ে দুঃসাহসিক এই ডাকাতির ঘটনায় সাড়ে চারলাখ নগদ টাকা ও মোবাইল শোরুম থেকে অনেকগুলো মোবাইল ফোন ডাকাতি হয়েছে। বাজারের একই পাশের একসঙ্গে ছোট বড় ১১টি দোকানের তালাভেঙে নগদ টাকা নেয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে বাগাতিপাড়া মডেল থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

বাগাতিপাড়া মডেল থানার ওসি নাজমুল হক বলেছেন, এ ঘটনায় এখনো মামলা হয়নি। ব্যবসায়ীরা ডাকাতির মামলা দিলে মামলা নেয়া হবে। মামলা না হলেও ইতোমধ্যে বিষয়টির তদন্ত শুরু হয়েছে। তদন্ত শেষে বিস্তারিত বলা যাবে।

(ঢাকাটাইমস/২১জানুয়ারি/কেএম)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :