সীমিত পরিসরেই চলবে ব্যাংক, পুঁজিবাজার ও বিমা অফিস

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২০ এপ্রিল ২০২১, ১৭:৫৪
ফাইল ছবি

করোনাভাইরাসের মহামারি রোধে আরও এক সপ্তাহ সর্বাত্মক লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার। এসময়ে চলমান লকডাউনে ব্যাংক ও পুঁজিবাজারে লেনদেনের যে সময়সীমা রয়েছে সেটির পরিবর্তন না করে চালু রাখার নির্দেশনা দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক ও বিএসইসি। একই সাথে এ সময়ে বিমা অফিস ২৫ শতাংশ জনবল নিয়ে চালু রাখার নির্দেশনা দিয়েছে বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ)।

মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) বাংলাদেশ ব্যাংকের ডিপার্টমেন্ট অব অফ-সাইট সুপারভিশন ‘করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধকল্পে সরকার কর্তৃক আরোপিত বিধি-নিষেধের মধ্যে ব্যাংকিং কার্যক্রম প্রসঙ্গে’ নতুন এ নির্দেশনা জারি করেছে।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ব্যাংক কার্যক্রম অব্যাহত রাখার বিষয়ে ১৩ এপ্রিল জারি করা নির্দেশনা ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত বর্ধিত করা হলো। এসময় ব্যাংকও সীমিত পরিসরে খোলা থাকবে। সাপ্তাহিক ছুটির দিন ছাড়া প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত ব্যাংকের লেনদেন হবে। লেনদেন পরবর্তী আনুষঙ্গিক কার্যক্রম শেষ করার জন্য ব্যাংক খোলা থাকবে বিকাল আড়াইটা পর্যন্ত।

প্রতিটি ব্যাংকের উপজেলা শহরের একটি শাখা খোলা থাকবে বৃহস্পতি, রবি ও মঙ্গলবার। সিটি করপোরেশনের এলাকার দুই কিলোমিটারের মধ্যে একটি শাখা প্রতি কর্মদিবস খোলা রাখতে হবে। বিধিনিষেধের সময় সার্বক্ষণিক খোলা থাকবে এটিএম বুথ। একইসঙ্গে চালু থাকবে ইন্টারনেট ব্যাংকিংসহ অনলাইন সেবা।

এছাড়া সমুদ্র, স্থল ও বিমানবন্দর এলাকার ব্যাংক শাখা আমদানি-রফতানি কার্যক্রমের জন্য খোলা রাখা যাবে। পাশাপাশি স্ব স্ব ব্যাংকের প্রয়োজনে বৈদেশিক মুদ্রায় লেনদেন করা শাখা (এডি) সীমিতসংখ্যক জনবল দিয়ে খোলা রাখতে পারবে। বিধিনিষেধের কারণে শাখায় গ্রাহকের ভিড় কমাতে ব্যাংকগুলোর এটিএম বুথ থেকে দিনে এক লাখ টাকা পর্যন্ত নগদ উত্তোলনের সীমা বাড়িয়ে দেয় কেন্দ্রীয় ব্যাংক। নিজ ব্যাংকের বুথ ও অন্য ব্যাংকের বুথ থেকে একই সীমা প্রযোজ্য হবে। এ নির্দেশনার আগে বেশির ভাগ ব্যাংকের কার্ড দিয়ে দিনে ৫০ হাজার টাকা ও কিছু ব্যাংক থেকে বেশি অর্থ উত্তোলন করা যায়।

এদিকে পুঁজিবাজারের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র রেজাউল করিম মঙ্গলবার এ প্রতিবেদককে বলেন, বিধিনিষেধের সময় ব্যাংকিং কার্যক্রম চালু রাখার কথা বলা হয়েছে। এ সময় বিনিয়োগকারীদের স্বার্থে পুঁজিবাজার নিয়ম অনুযায়ী চালু থাকবে। বর্তমানে বিধিনিষেধে চলমান নিয়ম অর্থাৎ সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত লেনদেন হচ্ছে। এটি অব্যাহত থাকবে।

এছাড়া স্বাস্থ্যবিধি মেনে মঙ্গলবার থেকে সীমিত পরিসরে অফিস খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ)। সকাল ১০টা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত বিমা কোম্পানির প্রধান কার্যালয়সহ গুরুত্বপূর্ণ শাখাগুলো খোলার কথা বলা হয়।

(ঢাকাটাইমস/২০এপ্রিল/আরএ/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

অর্থনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :