‘ঘরবন্দি থাকতে আর ভালো লাগে না’

আমিনুল ইসলাম মল্লিক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১২ জুন ২০২১, ১৩:৪৪ | প্রকাশিত : ১১ জুন ২০২১, ১২:০০

‘বয়স বাড়ছে। ৮৫ তে পা দিলাম। শারীরিক অবস্থাও খুব একটা ভালো না। ছেলের পরামর্শ মতে বাসাতেই আছি। করোনা পরিস্থিতিতে প্রায় ১৪ মাস ঘরেই পার করলাম। আর কতদিন ঘরবন্দি থাকবো। ভালো লাগছে না।’- ঢাকাটাইমসের সঙ্গে আলাপচারিতায় করোনকালে জীবনযাপনের হালচাল নিয়ে এভাবেই কথাগুলো বলছিলেন বর্ষীয়ান রাজনীতিক ও আইনজীবী ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন। মুঠোফোনে তার সঙ্গে আলাপচারিতায় ছিলেন ঢাকাটাইমসের সিনিয়র রিপোর্টার আমিনুল ইসলাম মল্লিক।

ঢাকাটাইমস: করোনাকালে সশরীরে আদালতে আসছেন না। জানতে চাই কেমন আছেন?

ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন: ভালো আছি। গত বছরের মার্চ মাসে দেশে করোনা শুরু হওয়ার পর থেকে ঘরবন্দি। দেখতে দেখতে করোনায় ঘরবন্দি আছি প্রায় ১৪ মাস হয়ে গেছে। সেইভাবে কারও সঙ্গে দেখা সাক্ষাৎ হচ্ছে না। বাড়ির বাইরে যেতে পারি না। করোনায় একটু নিরাপদে থাকার জন্য ডাক্তার ছেলের পরামর্শে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। অনেকদিন পার হয়ে গেছে এখন আর ভালো লাগছে না।

ঢাকাটাইমস: ঘরে থেকে মামলা-মোকাদ্দমা করছেন কিভাবে?

ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন: করোনাভাইরাসের পরিস্থিতি দেখা দিলে দেশের আদালতগুলো বন্ধ ঘোষণা করা হয়। এরপর ভার্চুয়াল মাধ্যমে আদালত চালাতে আইন পাস করে সরকার। ভার্চুয়ালি মামলা করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। তখন থেকেই আমি ভার্চুয়াল কোর্টে মামলা করি। অনলাইনে বসে মামলা শুনানি করি। আমার চেম্বারের জুনিয়র, ক্লার্ক মামলার ফাইল বাসায় এনে দেয়, আমি সেগুলো দেখে প্রস্তুতি নিয়ে মামলা করি ভার্চুয়াল কোর্টে।

ঢাকাটাইমস: বার কাউন্সিলের ভাইস চেয়ারম্যান ও বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক হিসেবে সাংগঠনিক কাজ কিভাবে চালাচ্ছেন?

ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন: বার কাউন্সিলে এখন প্রায় ৬০ হাজার আইনজীবী তালিকাভুক্ত আছেন। তাদের জন্য কাজ করে যাচ্ছি নিয়মিতভাবে। এ প্রতিষ্ঠানটির প্রত্যেকটি বিভাগে আলাদাভাবে দায়িত্ব পালন করছেন সংশ্লিষ্টরা। আমি আমার অবস্থান ও দায়িত্ব থেকে কাজ চালিয়ে যাচ্ছি। তবে করোনা পরিস্থিতির কারণে অনেক কাজই আমরা ভার্চুয়াল করছি।

ঢাকাটাইমস: করোনা মোকাবেলায় আইনজীবীদের জন্য কি পরামর্শ আপনার?

ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন: করোনা পরিস্থিতি ভালো না। করোনায় দিনদিন ক্ষতির পরিমাণ বেড়েই চলছে। করোনাভাইরাসে আইনজীবীরাই বেশি মারা গেছেন। সিনিয়র-জুনিয়র অনেক কলিগকে আমরা হারিয়েছি। অনেকেই করোনা আক্রান্ত হয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে আছেন। এ পরিস্থিতি মোকাবেলায় আইনজীবীদের খুব সাবধানে চলাফেরা করা উচিত। আমি আইনজীবীদের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বার কাউন্সিলের ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে এমন পরামর্শই দেব।

ঢাকাটাইমস: বার কাউন্সিল নির্বাচন কবে নাগাদ হতে পারে?

ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন: কোভিডে সারাবিশ্ব থমকে দাঁড়িয়েছে। পরিস্থিতি ভালো না। প্রতি তিন বছর পর পর এপ্রিল মাসে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। কিন্তু করোনার কারণে সারাবিশ্ব থমকে দাঁড়িয়েছে। গত ২৫ এপ্রিল নির্বাচন হওয়ার কথা ছিল। করোনা বৃদ্ধি পাওয়ায় বার কাউন্সিলের নির্বাচন স্থগিত করেছে। আরও কিছুদিন যাক। এরপর বার কাউন্সিলের সবাই মিলে বসে একটি সিদ্ধান্ত নিব।

ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন ২০১৭ সালে আইনজীবীদের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তিনি সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি। সিনিয়র এই আইনজীবী আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সঙ্গে তার বেশ ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছিল। স্বাধীন পরবর্তী বাংলাদেশে তিনি শেখ মুজিবুর রহমানের ছেড়ে দেওয়া একটি আসন থেকে জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস) এর সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন।

ঢাকাটাইমস/১১জুন/এএমআই/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

সাক্ষাৎকার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :