শিশুদের পরীক্ষামূলক টিকাদান শুরু

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৪ অক্টোবর ২০২১, ১৩:৪৪ | প্রকাশিত : ১৪ অক্টোবর ২০২১, ১৩:৪১

দেশে ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সী শিশুদের পরীক্ষামূলকভাবে করোনার টিকাদান শুরু হয়েছে। মানিকগঞ্জে কর্নেল মালেক মেডিকেল কলেজে পরীক্ষামূলকভাবে ১২০ স্কুল শিক্ষার্থীকে পরীক্ষামূলক টিকা দেওয়া হচ্ছে।

বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টায় মেডিকেল কলেজ হলরুমে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক এই কমর্সূচির উদ্বোধন করেন।

মানিকগঞ্জ সরকারি উচ্চ বালক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র আদনান আজাদকে দিয়ে স্কুলগামী শিক্ষার্থীদের পরীক্ষামূলক করোনাভাইরাসের টিকা প্রয়োগ কার্যক্রম শুরু হয়।

সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, শহ‌রের সরকারি এস কে বা‌লিকা বিদ্যালয়ের ৫০ শিক্ষার্থী‌, সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের ৫০ শিক্ষার্থী, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ শিক্ষার্থী ও গড়পাড়া জাহিদ মালেক উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ শিক্ষার্থীসহ মোট ১২০ শিক্ষার্থীকে ফাইজারের টিকা প্রয়োগ করা হচ্ছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম গতকাল বুধবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক লাইভে এসে জানান, স্কুল শিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়ার পর কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হচ্ছে কি না, তা ১০ থেকে ১৪ দিন পর্যবেক্ষণ করা হবে। এরপর ঢাকায় বড় আকারে শিশুদের টিকা কার্যক্রম শুরু করা হবে। এ কাজে যুক্ত করা হবে শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত ১৫ সেপ্টেম্বর জাতীয় সংসদের প্রশ্নোত্তর পর্বে লিখিতভাবে বলেন, সরকার শিশুদের করোনার টিকার আওতায় আনবে। পর্যায়ক্রমে দেশের জনগোষ্ঠীর ৮০ শতাংশকে টিকা দেওয়া হবে।

গত ১৫ সেপ্টেম্বর বিবিসির এক প্রতিবেদন বলা হয়, গত মে মাসে যুক্তরাষ্ট্র প্রথম ১২ বছর বা তার বেশি বয়সী শিশুদের টিকা দেওয়ার অনুমোদন দেয়। গত জুলাই পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সী শিশুদের ৪২ শতাংশ ফাইজার অথবা মডার্নার টিকার প্রথম ডোজ পায়। আর ৩২ শতাংশকে দুই ডোজই দেওয়া হয়।

(ঢাকাটাইমস/১৪অক্টোবর/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :