আ.লীগ নেতাদের বিরুদ্ধে করা বিএনপির মামলার আবেদন খারিজ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫:৪১ | প্রকাশিত : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫:০৮

রাজধানীর মিরপুরে বিএনপির কর্মসূচিতে হামলার ঘটনায় করা মামলার আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন আদালত।

বিএনপির আইনজীবী অ্যাডভোকেট মাসুদ আহমেদ তালুকদার এ তথ্য জানিয়েছেন।

ঢাকা উত্তরের নেতাকর্মীদের শান্তিপূর্ণভাবে সমাবেশে হামলার অভিযোগে মঙ্গলবার ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এ মামলার আবেদন করেছিলেন জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সেক্রেটারি অ্যাডভোকেট ওমর ফারুক ফারুকী। অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট তোফাজ্জল হোসেন বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করে আদেশের জন্য রাখেন। দুপুরে আদেশ দেন তিনি।

মামলায় আসামি হিসেবে বর্তমান ও সাবেক ৪ সংসদ সদস্যসহ আওয়ামী লীগ ও তার অঙ্গসংগঠনের ২০ নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ করা হয়।

অন্য আসামিরা হলেন- আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার ও সংসদ সদস্য ইলিয়াস উদ্দিন মোল্লা, সংসদ সদস্য আগা খা মিন্টু, সাবেক মহিলা সংসদ সদস্য তুহিন, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল, ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ মান্নান কচি, ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন, ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক তাইজুল ইসলাম চৌধুরী বাপ্পি, ঢাকা মহানগর উত্তর স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি ইসহাক মিয়া, স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোবাশ্বের চৌধুরী, রূপনগর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজী রজ্জব হোসেন, সিনিয়র সহসভাপতি হাজী তোফাজ্জল হোসেন টেনু, রূপনগর থানা যুবলীগের সভাপতি জাকির হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মো. খোকন, ৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা কাশেম মোল্লা, মিরপুর থানা আওয়ামী লীগ নেতা শেখ মান্নান, মিরপুর থানা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি আনোয়ার হোসেন লিটু, সাধারণ সম্পাদক সালাউদ্দিন রবিন, ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের সভাপতি মো. ইব্রাহিম ও ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ সালাম চৌধুরী। এছাড়া মামলায় ৪০০/৫০০ জন অজ্ঞাত আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীকে আসামির কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

মামলার অভিযোগে বলা হয়েছিল, জ্বালানি তেলসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি এবং পুলিশের গুলিতে দলীয় ৩ নেতা নিহত হওয়ার প্রতিবাদে গত ১৫ সেপ্টেম্বর ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপি কর্তৃক পল্লবী থানাধীন মিরপুর-৬, কাঁচাবাজারের সামনে শান্তিপূর্ণভাবে প্রতিবাদ সমাবেশ শুরু হলে আসামিগণের প্রত্যক্ষ নির্দেশে এবং উপস্থিতিতে উক্ত শান্তিপূর্ণ সমাবেশে আসামিরাসহ অজ্ঞাতনামা ৪০০/৫০০ আসামি অবৈধভাবে লাঠিসোটা, অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু ; একাত্তরের হাতিয়ার, গর্জে উঠুক আরেকবারসহ বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকেন এবং বিএনপির নেতাকর্মীদের ওপর ইট পাটকেল নিক্ষেপ করতে থাকেন। আসামিদের হামলায় অর্ধশতাধিক নেতাকর্মী রক্তাক্ত জখম হয়। এছাড়া ওই সময় মহিলা দলের নেতাকর্মীদের গালিগালাজ ও শ্লীলতাহানি করেন। পরবর্তীতে আহত নেতাকর্মীদের চিকিৎসা শেষে থানায় মামলা করতে গেলে থানা কর্তৃপক্ষ মামলা না নেওয়ায় বাদী আদালতে মামলা করতে এসেছেন।

(ঢাকাটাইমস/২০সেপ্টেম্বর/এফএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আদালত বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আদালত এর সর্বশেষ

বিডিনিউজ প্রধান সম্পাদক খালিদীর জামিন বহাল

হাইকোর্টের রায় স্থগিত, ঋণ আদায়ে চেক প্রতারণার মামলা করতে পারবে ব্যাংক

এএসপি আনিস হত্যা: ১৫ জনের বিরুদ্ধে পিবিআইয়ের চার্জশিট

চেম্বার আদালতে আটকে গেল জিএম কাদেরের জাপার দায়িত্ব পালন

ইসলামী ব্যাংকের ঋণকাণ্ডে রিট করতে বললেন হাইকোর্ট

নায়িকা শিমু হত্যায় স্বামীসহ দুজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন

আমাদের লড়াই দুর্নীতির বিরুদ্ধে, দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে বলে যাব: হাইকোর্ট

বেসিক ব্যাংক: ৫৬ মামলার তদন্ত তিন মাসে শেষ না করলে ‘ব্যবস্থা নেবে’ হাইকোর্ট

নাসির-অমির বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিলেন পরীমনি

২৫ হাজার টাকার জন্য কোমরে দড়ি, লক্ষ-কোটির জন্য কিছুই হয় না: আপিল বিভাগ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :