তাল গাছের গুরুত্ব তুলে ধরে পিঠা নিয়ে আবেগী খাদ্যমন্ত্রী

নওগাঁ প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৮:০৬

তালগাছ বজ্রপ্রতিরোধক, তাই তালগাছ লাগানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার। ঐতিহ্য ধরে রাখতে তালপিঠা মেলা বিশেষ ভূমিকা রাখবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। মন্ত্রী বলেন, একসময় এ অঞ্চলের বাবারা মেয়ের বাড়িতে তালের পিঠা নিয়ে যেত। তালগাছ কমে যাওয়ায় জামাইয়ের বাড়িতে পিঠা পাঠানোর ঐতিহ্য এক সময় হারিয়ে যেতে বসলো।

শনিবার নওগাঁর নিয়ামতপুরের তালতলিতে দ্বিতীয়বারের মতো তালপিঠা মেলা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার এ কথা বলেন। নিয়ামতপুর উপজেলা পরিষদ এ মেলার আয়োজন করে।

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেন, ঐতিহ্য ধরে রাখতে তাল পিঠা মেলা বিশেষ ভূমিকা রাখবে। তাল পিঠা বাঙালির চিরায়ত সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের একটি অংশ।

মন্ত্রী বলেন, তালতলির তালগাছ নিয়ে কথা বলতে গেলে আমি আবেগ প্রবণ হয়ে পড়ি। এই তালগাছ রোপণকালে যারা আমার সহযোগী ছিলেন তাদের কথা মনে পড়ে। আবার ভাবতে ভালো লাগে সেই তালগাছের নিচে এখন তাল পিঠার মেলা হয়।

তালগাছ রোপনের উদ্দেশ্য সম্পর্কে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, একসময় এঅঞ্চলের বাবারা মেয়ের বাড়িতে তালের পিঠা নিয়ে যেত। তালগাছ কমে যাওয়ায় জামাইয়ের বাড়িতে পিঠা পাঠানোর ঐতিহ্য এক সময় হারিয়ে যেতে বসলো। তখন মনে করলাম এ ঐতিহ্য ধরে রাখতে হবে। তাছাড়া তালগাছ বজ্রপ্রতিরোধক তাই তালগাছ লাগানোর সিদ্ধান্ত নিলাম।

তিনি বলেন, প্রকৃতি ও দেশের জন্য কাজ করেছি। এসময় তিনি ভবিষ্যতেও দেশের কল্যাণে কাজ করে যাওয়ার অঙ্গীকার করেন।

বাংলাদেশ স্বাধীন না হলে এই তাল মেলা আয়োজন সম্ভব হতো না উল্লেখ করে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, রাশিয়া - ইউক্রেন যুদ্ধের কারনে পৃথিবী ব্যাপী নানা সংকট তৈরি হয়েছে। মানুষের কষ্ট হচ্ছে এটা ঠিক তবে এ সময় আমাদের সহনশীল হতে হবে। বাংলাদেশের মাটি সোনার চেয়ে খাঁটি উল্লেখ করে তিনি বলেন, এদেশে প্রচুর ফসল ফলে।

এদেশে খাদ্য ঘাটতি নাই,সংকট হবে না। শেখ হাসিনার উন্নয়নকে কোনভাবে বাধাগ্রস্ত করা যাবে না বলে উল্লেখ করেন মন্ত্রী।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে টেলিভিশন ব্যক্তিত্ব শাইখ সিরাজ বলেন, এ ধরনের আয়োজন আমাদের মানবিক হতে শেখায়। আমাদের শেকড়ের কাছে নিয়ে যায়। তাল পিঠার মেলাকে কেন্দ্র করে মানুষে মানুষে মনের সংযোগ ঘটে।

এছাড়াও নওগাঁ জেলা প্রশাসক মো: খালিদ মেহেদী হাসান,পুলিশ সুপার মুহাম্মদ রাশিদুল হক বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন নিয়ামতপুরের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: ফারুক সুফিয়ান।হাজিনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক স্বাগত বক্তব্য রাখেন।

দিনব্যাপী এ পিঠা মেলায় তালের তৈরি নানান ধরনের পিঠার পসরা নিয়ে হাজির হয়েছেন এ অঞ্চলের পিঠাশিল্পীরা। এবার মেলায় ৫০টিরও বেশি স্টলে প্রায় ৩০ ধরনের পিঠা দিয়ে সাজানো হয়েছে এই তাল পিঠার মেলা। মেলায় তালের তৈরি ফুলঝুরি, জামাই পিঠা,খেজুর পিঠা,তাল জিলাপি, তাল কেক,তালক্ষীর, মুইঠা পিঠা, গড়গড়া,তাল রুটি,কান মুচুরি,ডাল বড়া প্রভৃতি।

উল্লেখ্য, তালতলিতে ১৯৮৬ সালে তাল গাছ রোপন করেন তৎকালীন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, বর্তমান খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার। তালতলির তালসড়ক এখন এ অঞ্চলের পর্যটন স্পটে পরিণত হয়েছে। ২০২১ সালে প্রথমবার তাল পিঠা মেলা আয়োজন করা হয় এখানে। প্রকৃতিতে শোভাবর্ধনের পাশাপাশি আয়বর্ধক কাজেও তালগাছগুলো ভূমিকা রেখে চলেছে।

(ঢাকাটাইমস/২৪সেপ্টেম্বর/কেআর/কেএম)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

জাতীয় এর সর্বশেষ

মুক্তিযুদ্ধের চূড়ান্ত পর্ব শুরু: বাংলাদেশ-ভারত যৌথ কমান্ড গঠন

পদ্মাসেতু থেকে শরীয়তপুর-মেঘনা সেতু ফোরলেনের কাজ দ্রুত শেষ করার তাগিদ

পরিবেশ ব্যবস্থাপনার উন্নয়নে বাংলাদেশকে ২৬৫০ কোটি টাকা ঋণ দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক

করোনায় একজনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৫

নভেম্বরে সীমান্তে ২৪ মর্টার শেল, স্বর্ণ, মাদকসহ ১৩৪ কোটি টাকার পণ্য জব্দ

ডিসেম্বরের আবহাওয়া: দুয়েকটি মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে, সাগরে নিম্নচাপের আভাস

পার্বত্য শান্তিচুক্তির ২৫তম বর্ষপূর্তি আজ

মুক্তিযোদ্ধাদের আক্রমণে পিছু হটতে থাকে হানাদার বাহিনী

ঢাকা ও চট্টগ্রাম মহানগরীতে বিআরটির অভিযান

উৎপাদন বাড়িয়ে মূল্যস্ফীতি কমাতে হবে: পরিকল্পনামন্ত্রী

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :