মাদারীপুরে ১৯ জনের মৃত্যু: বাসমালিকের বিরুদ্ধে পুলিশের মামলা

মাদারীপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২০ মার্চ ২০২৩, ১০:০৯ | প্রকাশিত : ২০ মার্চ ২০২৩, ০৯:২৪

মাদারীপুরের শিবচরে পদ্মা সেতুর এক্সপ্রেসওয়েতে ইমাদ পরিবহনের যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে ১৯ জন নিহতের ঘটনায় বাসের মালিকের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

রবিবার দিবাগত রাত ২টার দিকে মামলাটি দায়ের করেন শিবচর থানার সার্জেন্ট জয়ন্ত সরকার।

শিবচর হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু নাইম মোফাজ্জেল জানান, ইমাদ পরিবহনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাব্বির হোসেনকে আসামি করে মামলাটি দায়ের করা হয়। গাড়িতে কোনো অতিরিক্ত যাত্রী ছিল কিনা, বেপরোয়া চালানো হয়েছিল কিনা এবং ফিটনেস ছিল কিনা এসব বিষয়ই মামলার মূল কারণ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। দুর্ঘটনায় চালক ও হেলপার নিহত হওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়নি। সার্জেন্ট জয়ন্ত দাস মামলার বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

তিনি আরও জানান, রবিবার সকালে খুলনা থেকে যাত্রী বোঝাই করে ইমাদ পরিবহনের একটি বাস ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে আসে। বাসটি পদ্মাসেতুর আগে ঢাকা-খুলনা এক্সপ্রেসওয়ের মাদারীপুরের শিবচরের কুতুবপুর সীমানা এলাকায় আসলে বাসটির সামনের একটি চাকা ফেটে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাসটি নিচে পড়ে যায়। এ সময় দুমড়েমুচড়ে যায় বাসটি। এতে ঘটনাস্থলেই ১৪ জন নিহত হন। এ দুর্ঘটনায় আহত আরো ৫ জন বিভিন্ন হাসপাতালে মারা যান।

এদিকে বাসদুর্ঘটনায় নিহতদের মরদেহ প্রথমে রাখা হয় শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। পরিচয় শনাক্তের পর রবিবারই বুঝিয়ে দেয়া হয় পরিবারের কাছে। আর নিহতদের প্রত্যেক পরিবারকে ২৫ হাজার ও আহতদের চিকিৎসার জন্য ৫ হাজার টাকা করে আর্থিক সহায়তার ঘোষণা দেয় জেলা প্রশাসন। এই দুর্ঘটনায় নিহত ১৯ জনের মধ্যে ১৭ জনের নাম পরিচয় শনাক্ত করা হয়েছে।

নিহতরা হলেন, গোপালগঞ্জের গোপিনাথপুর এলাকার তৈয়ব আলীর ছেলে হেদায়েত মিয়া, বনগ্রাম এলাকার শামসুল শেখের ছেলে মোসতাক আহম্মেদ, সদর উপজেলার নশর আলী শেখের ছেলে সজীব শেখ, পাচুরিয়া এলাকার মাসুদ হোসেনের মেয়ে সুইটি আক্তার, টুঙ্গিপাড়ার কাঞ্চন শেখের ছেলে করিম শেখ, সদর উপজেলার আবু হেনা মোস্তফার মেয়ে আফসানা মিমি, মুকসেদপুর এলাকার আমজেদ আলীর ছেলে মাসুদ আলী, খুলনার সোনাডাঙা এলাকার শেখ মোহাম্মদ আলীর ছেলে আব্দুল্লাহ আল মামুন, খুলনা সাউথ মেন্টাল রোড এলাকার চিত্ত রঞ্জন ঘোষের ছেলে চিন্ময় প্রসুন ঘোষ, ডুমুরিয়া এলাকার পরিমল সাদু খায়ের ছেলে মহাদেব কুমার সাদু খা, আমতলা এলাকার শাহজাহান মোল্লা ছেলে আশফাকুর জাহান লিংকন, বাগেরহাট জেলার শান্তি রঞ্জন মজুমদারের ছেলে অনাদি মজুমদার, ফরিদপুর হিদাডাঙ্গা এলাকার সৈয়দ মুরাদ আলীর ছেলে মো. ইসমাইল, নড়াইল লোহাগড়া এলাকার বকু শিকদারের ছেলে ফরহাদ শিকদার, বাসের চালক ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আলী আকবরের ছেলে জাহিদ হাসান ও বাস সুপারভাইজার মো. মিরাজ এবং বাসের হেলফার পাবনা সুজানগর এলাকার গহর আলীর ছেলে ইউসুপ আলী।

(ঢাকাটাইমস/২০মার্চ/এআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

বাংলাদেশ এর সর্বশেষ

আবুধাবিতে সোফা কারখানায় আগুন, ৪ বাংলাদেশি নিহত

উকিল-সাংবাদিকদের নিয়ে বিরূপ মন্তব্য উপজেলা চেয়ারম্যানের, ভিডিও ভাইরাল

মানবিক ডা. আশরাফুল হক সিয়াম ও একটি ঝড়ের সন্ধ্যা

সেনাবাহিনী ডেকে এনে অরাজনৈতিক সরকার পরিচালনার পথ বন্ধ: নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

ময়মনসিংহে চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলায় নিহতের চাচাত ভাই গ্রেপ্তার

সিলেটে আওয়ামী লীগ ও জাপার মেয়র প্রার্থীকে কারণ দর্শানোর নোটিশ

স্ত্রীকে ভারতে পাচার: সাতক্ষীরায় এক ব্যক্তির ১৫ বছরের কারাদণ্ড

ফরিদপুরে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন

বরিশাল সিটি নির্বাচন: উন্নয়নের স্বার্থে নৌকায় ভোট চাইল যুবলীগ

৯৫টি দেশের ৮ হাজার সংগঠনের মধ্যে প্রথম চারশোতে ‘কৃষকের বাতিঘর’

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :