রাজধানীতে এসএসসি ২০০২ বন্ধুদের সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১০ জুন ২০২৩, ১৭:৫৫ | প্রকাশিত : ১০ জুন ২০২৩, ১৭:৪১

রাজধানীতে এসএসসি ২০০২ বন্ধুদের সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা ও ২ প্রবাসী সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। ‘এসো মিলি প্রাণের টানে ফিরে যাই শৈশবে, মেতে উঠি উৎসবে আয় বন্ধু সবে মিলি এই প্রাণের উৎসবে’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে এ উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছ।

শুক্রবার (৯ জুন) দুপুর ৩টায় জাতীয় জাদুঘরের কবি সুফিয়া কামাল হলে প্রথমে কোরআন তেলোয়াত এর পর জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু হয়। এরপর এসএসসি ব্যাচ ২০০২-এর প্রয়াত বন্ধুদের স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

এতে প্রধান আলোচক ছিলেন, এসএসএসসি-২০০২ ব্যাচের বন্ধু এডমিন মাহমুদ হাসান সুমন। অনুষ্ঠান সঞ্চালন করেন এসএসসি ব্যাচের মডারেটর শামীম হাসান চৌধুরী। বন্ধুদের এ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে ২০০২ ব্যাচের বিভিন্ন স্কুলের প্রিয় বন্ধুদের সাথে মিলিত হতে পেরে বাঁধভাঙা উচ্ছ্বাসে মেতে ওঠেন বন্ধুরা। ফটোসেশন, ১০ প্রবাসী বন্ধুকে সম্মাননা ক্রেস্ট বিতরণ, এছাড়া ও নিজেদের সুখ-দুঃখের গল্পে বন্ধুরা মেতে উঠেন। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বিভিন্ন জেলা থেকে আগত বন্ধুরা। সবার ব্যস্ততার মধ্যেও যেন একই প্লাটফর্মে থাকতে পারি,একে অন্যের পাশে দাড়াতে পারি, সেই উদ্যোগে ২০০২ ব্যাচের বন্ধুদের নিয়ে একটি অনলাইন গ্রুপ খোলা হয়েছে।

যেখানে এখন বন্ধু-বান্ধবের সংখ্যা আঠারো হাজার প্রায়। সারা দেশের ২০০২ ব্যাচের ছড়ানো ছিটানো বন্ধু-বান্ধব একি প্লাটফর্মে থাকার জন্য এই পরিকল্পনা। এ যেন এক অভূতপূর্ব প্রাণের মিলন মেলা। বিকেল ৫ থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত জনপ্রিয় কণ্ঠ শিল্পীদের সমন্বয়ে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানের সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন- সারা বাংলাদেশের এসএসসি ব্যাচ ২০০২ ব্যাচের শিক্ষার্থীরা। এ সময় বিভিন্ন স্কুলের এসএসসি ২০০২ ব্যাচের বন্ধুরা তাদের প্রিয়জনদের এক সঙ্গে পেয়ে আনন্দে মেতে উঠেন সকলে। এই বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজনে যোগদানকৃত সকল বন্ধু এমন সুন্দর আয়োজনের জন্য যারা এ আয়োজনে নেতৃত্ব দিয়েছেন তাদের সকলের প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এবং সকল কর্মকাণ্ডে সন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, প্রতি বছর যেনো এই ধারা অব্যাহত রাখা যায় সেই মানসিকতা নিয়ে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। আমাদের এ বন্ধুত্বের বন্ধনের এ পথচলা অব্যাহত থাকবে। ২০০২ থেকে এ পর্যন্ত কেটে গেছে ২১ বছর। এই দীর্ঘসময়ে এসব শিক্ষার্থীদের একেকজন নানা পেশায় চলে গেছেন। কেউ দেশে আছেন,কেউ বিদেশ আছেন। তবে গত কয়েক বছরের ব্যবধানে সারা দেশের একে অপরকে চেনা বা অচেনা এই দামাল তরুণেরা ফেসবুকের মাধ্যমে এক হয়ে উদযাপন করছেন বন্ধুত্ব। স্রেফ আনন্দই নয়,বাস্তবে সামাজিক নানান দায়িত্বও তারা পালন করছেন কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে। এবং সারাজীবন কাটিয়ে দেয়ার মানসিকতা নিয়ে এগিয়ে যাবে বলে প্রত্যয়ও ব্যক্ত করেন সবাই।

(ঢাকাটাইমস/১০জুন/এআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

জাতীয় এর সর্বশেষ

উকিল সাত্তার ও শাহজাহান কামালের আসনে উপনির্বাচন ৫ নভেম্বর

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ ও লক্ষ্মীপুর-৩ আসনের উপনির্বাচন ৫ নভেম্বর

নির্বাচন ঘিরে অস্ত্রের ঝনঝনানির সুযোগ নেই, যশোরে উদ্ধার ছয় অস্ত্র: র‍্যাব

দেশের উদ্দেশ্যে আজ লন্ডন ছাড়বেন প্রধানমন্ত্রী

যেকোনো মূল্যে বাংলাদেশে গণতন্ত্র অব্যাহত রাখতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

স্বাধীনতা, সমৃদ্ধি, আত্মবিশ্বাস ও ঐক্যের প্রতীক শেখ হাসিনা: আইইবি

জরায়ু ক্যান্সার প্রতিরোধে এইচপিভি টিকাদান কর্মসূচি শুরু

ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ভূকম্পন

নারী-শিশুর প্রতি অনলাইন সহিংসতা প্রতিরোধে ১৩ সংগঠনের যৌথ প্ল্যাটফর্ম গঠন

বিভিন্ন জেলার ১৯৫ সংসদীয় আসনে যারা পেতে পারেন দলীয় মনোনয়ন

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :