ফেনীতে খরচ কমাতে মেয়েকে পানিতে চুবিয়ে হত্যা, বাবা গ্রেপ্তার

ফেনী প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৫ জুন ২০২৩, ১৬:৩৩

ফেনী জেলার দাগনভূঞা উপজেলার রাজাপুর ইউনিয়নে পুকুরে চুবিয়ে জান্নাতুল আরিফা আক্তার (৯) নামে এক শিশুকে নিজ হাতে হত্যা করেছে বাবা।

রবিবার দাগনভূঞা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাসান ইমাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে একই দিন তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃত টিপু মিয়া দাগনভূঞা উপজেলার রাজাপুর ইউনিয়নের জয় নারায়ণপুর গ্রামের কবির আহমেদের ছেলে। তিনি পেশায় অটোরিকশা চালক।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, প্রায় ৯ বছর আগে টিপু ও রুমানা আক্তারের বিবাহবিচ্ছেদ হয়। ওই সময়ে জান্নাতুল আরিফা আক্তারের বয়স ছিল ৯ মাস। পরে টিপু মিয়া আবার বিয়ে করলে সেখানে আরও দুই মেয়ের জন্ম হয়। প্রথম সংসারের মেয়ের ভরণপোষণ ও দ্বিতীয় সংসারের পারিবারিক ব্যয় নির্বাহ করতে গিয়ে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েন স্বল্প আয়ের টিপু মিয়া।

গত ১৮ জুন টিপু তার মেয়ে আরিফাকে নিজের বাড়িতে বেড়াতে নিয়ে আসেন। পরে ২১ জুন বিকালে বাড়ির পাশে পদুয়া পুকুরে গোসল করানোর কথা বলে নিজ হাতে মেয়ে আরিফাকে পানিতে চুবিয়ে হত্যা করে টিপু। পরে আরিফাকে পাওয়া যাচ্ছে না বলে এলাকায় মাইকিং ও নানা প্রচারণা চালায় স্বজনরা। এক পর্যায়ে পুকুরে আরিফার মরদেহ ভেসে ওঠার পর প্রত্যক্ষদর্শীদের ভাষ্যে সন্দেহ হলে পুলিশ ময়নাতদন্তের ব্যবস্থা করে তদন্ত শুরু করে।

দাগনভূঞা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাসান ইমাম জানান, ঘটনার পর থেকে আরিফার বাবা আত্মগোপনে চলে যায়। শনিবার রাতে তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে মেয়ের ভরণ পোষণ দেওয়া থেকে বাঁচতে নিজ হাতে পানিতে চুবিয়ে আরিফাকে হত্যা করেছে বলে রোমহর্ষক বর্ণনা দেন। এ ঘটনায় আরিফার মা রোমানা আক্তার বাদী হয়ে মামলা করেন। রবিবার বিকালে মেয়ে হত্যাকারী বাবা টিপু মিয়াকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/২৫জুন/এসএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :