বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড সিরিজ: আলোক স্বল্পতায় শেষ তৃতীয় দিনের খেলা

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৬:৩৮

ঢাকা টেস্টের তৃতীয় দিনে নিউজিল্যান্ডকে ১৮০ রানে অলআউট করে ব্যাটিংয়ে নামে বাংলাদেশ। ব্যাটিংয়ে নেমে ৮ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে ৩৮ রান তোলে টাইগাররা। যার ফলেই তাদের লিড দাঁড়ায় ৩০ রান। কিন্তু এরপরে আলো স্বল্পতার কারণে খেলা আর চালিয়ে যাওয়া সম্ভব হয়নি। দেড় ঘণ্টার পর আলো স্বল্পতার কারণে তৃতীয় দিনের খেলা সমাপ্ত ষোষণা করেন আম্পায়াররা।

প্রথম ইনিংসের মতো দ্বিতীয় ইনিংসেও ব্যর্থ বাংলাদেশের ওপেনিং জুটি। আজ মাত্র ৩ রানেই প্রথম উইকেট হারায় বাংলাদেশ। ২ বলে মাত্র ২ রান করেই এজাজ প্যাটেলের শিকার হয়ে ফিরে যান মাহামুদুল হাসান জয়।

মাত্র ৩ রানেই প্রথম উইকেট হারানোর পর জুটি গড়েন জাকির হাসান ও নাজমুল হোসেন শান্ত। এই জুটিতে ভর করে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছিল বাংলাদেশ।

কিন্তু এই জুটিও বেশিদূর যেতে পারেনি। টিম সাউদির বলে মিড অফে কেন উইলিয়ামসনের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফিরে যান শান্ত। আউট হওয়ার আগে করেন ২৪ বলে ১৫ রান।

এরপরেই ক্রিজে নামেন মুমিনুল হক। তবে তিনি মাত্র একটি বল খেলার সুযোগ পার। এরপরেই আলো স্বল্পতার কারণে খেলা বন্ধ ঘোষণা করেন আম্পায়াররা।

এর আগে বৃষ্টির কারণে দ্বিতীয় দিনের খেলা ভেস্তে যাওয়ায় তৃতীয় দিনের খেলা সকাল সাড়ে নয়টার পরিবর্তে শুরুর কথা ছিল সকাল সোয়া নয়টায়। তবে বৃষ্টি থামলেও ভেজা মাঠের কারণে তৃতীয় দিনের খেলা নির্ধারিত সময়ে শুরু হতে পারেনি। অবশেষে বেলা ১২ টায় শুরু হয় খেলা।

ব্যাটিংয়ে নেমেই জুটি গড়ে দেখেশুনে খেলতে থাকেন ড্যারিল মিচেল ও গ্লেন ফিলিপস। ধীরে ধীরে বড় হচ্ছিল এই জুটি। তৃতীয় দিনে নিজের প্রথম ওভারেই এই জুটিকে ভাঙেন নাঈম হাসান।

নাঈমের বলে মিড অনে মেহেদী হাসান মিরাজের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে সাজঘরে ফিরে যান ড্যারিল মিচেল। আউট হওয়ার আগে করেন ৩৯ বলে ১৮ রান। তার বিদায়ে ভাঙে ৪৯ রানের জুটি।

মিচেলের পর মিচেল স্যান্টনারকেও ফেরালেন নাঈম হাসান। নাঈমের বলে সেকেন্ড স্লিপে শান্তর হাতে ক্যাচ তুলে দেন স্যান্টনার। যার ফলে ৭ বলে মাত্র ১ রান করে সাজঘরের পথ ধরেন তিনি।

৯৭ রানে ৭ উইকেট হারানোর পর কাইল জেমিসনকে নিয়ে জুটি গড়েন গ্লেন ফিলিপস। স্রোতের বিপরীতে দাঁড়িয়ে গ্লেন ফিলিপস আজ বাংলাদেশের বিপক্ষে তুলে নেন অর্ধশতক। ৩৮ বলে ৫০ তুলে নেন তিনি। যার মধ্যে রয়েছে ৫ টি চার ও ৩ টি ছয়ের মার।

ক্রমেই বাংলাদেশের জন্য ভয়ঙ্কর হয়ে উঠছিল এই জুটি। অবশেষে এই জুটিকে ফেরান শরিফুল ইসলাম। শরিফুলের বলে এজ হয় শাহাদাত হোসেনের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফিরে যান কাইল জেমিসন। আউট হওয়ার আগে করেন ২৮ বলে ২০ রান।

কাইল জেমিসনের পর কিউইদের হয়ে সবচেয়ে বেশি রান করা গ্লেন ফিলিপসকেও ফেরান শরিফুল। শরিফুলের বলে আউট সাইট এজ হয়ে নুরুল হাসান শান্ত হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফিরে যান ফিলিপস। সেঞ্চুরির আশা জাগানো ফিলিপস আউট হওয়ার আগে করেন ৭২ বলে ৮৭ রান।

ফিলিপসের পথ ধরে ফিরে যান টিম সাউদিও। তাইজুলের বলে লং অনে মিরাজের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন তিনি। তার বিদায়ে ১৮০ রানে অলআউট হলো নিউজিল্যান্ড। যার ফলে ঢাকা টেস্টে প্রথম ইনিংসে ৮ রানের লিড পেয়েছে কিউইরা।

বাংলাদেশর হয়ে মেহেদী হাসান মিরাজ ৩ টি, তাইজুল ইসলাম ৩ টি, শরিফুল ইসলাম ২ টি ও নাঈম হাসান ২ টি উইকেট নেন।

ঢাকা টেস্টের প্রথম দিনে মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। কিন্তু ব্যাটিংয়ে কিউইদের স্পিন বিষে নীল হয়েছে শান্ত-মুমিনুলরা। তিন কিউই স্পিনার এজাজ প্যাটেল, মিচেল স্যান্টনার ও গ্লেন ফিলিপস ধসিয়ে দিয়েছেন বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইন আপ। এর তিন স্পিনার তুলে নিয়েছেন বাংলাদেশর ৮ উইকেট। শেষ পর্যন্ত ৬৬ ওভার ২ বলে সব উইকেট হারিয়ে ১৭২ রান তোলে বাংলাদেশ।

এরপর ব্যাটিংয়ে নেমে টাইগারদের ঘূর্ণিতে বাংলাদেশের চেয়েও খারাপ দশা হয় কিউইদের। ৪৬ রান তুলতেই ৫ উইকেট হারায় তারা। আলো স্বল্পতার কারণে প্রথম দিন নির্ধারিত সময়ের আগেই শেষ হয় খেলা। যার ফলে ৫৫ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে প্রথম দিন শেষ করে কিউইরা। আর দ্বিতীয় দিনের খেলা বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত ষোষণা করা হয়।

এরপর তৃতীয় দিনের খেলা সকাল সাড়ে নয়টার পরিবর্তে শুরুর কথা ছিল সকাল সোয়া নয়টায়। তবে বৃষ্টি থামলেও ভেজা মাঠের কারণে তৃতীয় দিনের খেলা নির্ধারিত সময়ে শুরু হতে পারেনি। অবশেষে বেলা ১২ টায় শুরু হয় খেলা।

(ঢাকাটাইমস/০৮ডিসেম্বর/এনবিডব্লিউ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :