মুন্সীগঞ্জে ট্রলার ডুবি, নিখোঁজের ৩ দিন পর ২ মরদেহ উদ্ধার 

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ১৯ ডিসেম্বর ২০২৩, ১০:০৭ | প্রকাশিত : ১৯ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৯:৩৫

মুন্সীগঞ্জের টঙ্গিবাড়ী উপজেলার পদ্মার শাখা নদীতে বাল্কহেডের ধাক্কায় ট্রলার ডুবির ঘটনায় নিখোঁজের ৩ দিন পর ২ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ নিয়ে মোট ৪ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

মঙ্গলবার ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে দুটো মরদেহের একটি ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করা হয়। আরেকটি উদ্ধার করা হয় টঙ্গীবাড়ি উপজেলার চৌসার গ্রামের পদ্মা নদীর শাখা নদী থেকে।

উদ্ধার হওয়া মরদেহগুলো হলো- মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার মালখানগর ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. হারুন অর রশিদ খান (৫০) ও রাজধানীর ধানমন্ডির শংকর এলাকার মাহফুজুর রহমানের (৩৫)।

এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন মুন্সীগঞ্জ সদরের চর আবদুল্লা নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত পরিদর্শক মো. হাসনাত জামান। তিনি বলেন, ট্রলার ডুবির ঘটনায় নিখোঁজের ৩ দিন পর ২ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের স্বজনরা এসে মরদেহ শনাক্ত করেছেন। এ দুর্ঘটনায় এরইমধ্যে টঙ্গীবাড়ী থানায় একটি ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। বাল্কহেডের ৩ শ্রমিককে আটক করে টঙ্গিবাড়ী থানা পুলিশের মাধ্যমে আদালতে পাঠানো হয়েছে। তবে ঘটনার পর বাল্কহেডের চালক পালিয়ে গেছে। বাল্কহেডটি চাঁদপুরের মতলব উপজেলার দশআনি এলাকার মো. নরুল ইসলাম নামের এক ব্যক্তির বলে জানা গেছে।

উল্লেখ্য: শনিবার (১৬ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা ৬টার দিকে জেলার টঙ্গীবাড়ী উপজেলার হাসাইল এলাকা সংলগ্ন নদীতে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সন্ধ্যায় হাসাইল চর থেকে হাসাইল বাজারের দিকে যাচ্ছিল ট্রলারটি। এসময় মাওয়াগামী একটি বালুবাহী বাল্কহেড যাত্রীবাহী ট্রলারের ওপরে উঠে যায়। এতে ডুবে যায় ট্রলারটি। তাৎক্ষণিকভাবে স্থানীয়রা এগিয়ে গিয়ে কিছু যাত্রীকে উদ্ধার করলেও নিখোঁজ হন বেশ কয়েকজন। পরে নিখোঁজদের মধ্যে দুজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। খবর পেয়ে উদ্ধার অভিযানে নামে ফায়ার সার্ভিস।

(ঢাকাটাইমস/১৯ডিসেম্বর/জেডএম)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

বাংলাদেশ এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :