হৃদয়ের তাণ্ডবে কুমিল্লার টানা ৫ জয়

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ২৩:০৭ | প্রকাশিত : ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ২৩:০৫

দুর্দান্ত ঢাকার বিপক্ষে সেঞ্চুরির পরের ম্যাচে ডাক মেরেছিলেন তাওহীদ হৃদয়। চট্টগ্রামে খুলনার বিপক্ষে লিটন দাস, উইল জ্যাকসরা দ্রুত ফিরলেও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সকে একাই টেনেছেন তিনি। চার-ছক্কার বন্যা বইয়ে দেয়া হৃদয় খেলেছেন অপরাজিত ৯১ রানের ইনিংস, বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা জয় পেয়েছে ৭ উইকেটে। তাতে করে টানা ৫ ম্যাচেই জয় পেল কুমিল্লা। এদিকে প্রথম চার ম্যাচের সবকটিতে জয় পাওয়া খুলনা হেরেছে সবশেষ ৫ ম্যাচেই।

বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ৭ উইকেটে জিতেছে কুমিল্লা। খুলনার ১৬৪ রানের জবাবে ২১ বল হাতে রেখে জয় পায় তারা। হৃদয় শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থাকেন ৯১ রান করে।

রান তাড়া করতে নেমে মাত্র ২ রানেই ফিরে যান লিটন দাস। উইল জ্যাকস করেন ১৮ রান। মাঝে জনসন চার্লজ আউট হন ১৩ রান করে। জাকের আলিকে নিয়ে বাকি কাজটা বলতে গেলে একাই করেন তাওহীদ হৃদয়। খুলনার বোলারদের ওপর তাণ্ডব চালিয়ে দলকে বড় জয় এনে দেন তিনি। হৃদয়ের ৪৭ বলের ইনিংসে ছিল ৭টি চার ও সমানসংখ্যক ছয়ের মার। তাকে ৪০ রান করে সঙ্গ দেন জাকের।

এর আগে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৬৪ রান করে খুলনা। টস জিতে আলেক্স হেলস ও আফিফ হোসেনের ব্যাটে ৩২ রানের উদ্বোধনী জুটি গড়ে তারা। ১৭ বলে ২২ রান করে ফিরে যান হেলস। এনামুল এসেই প্রথম বল থেকে মেরে খেলতে থাকেন। শুরুর দুই বলেই ছক্কা হাঁকান তিনি। আলিস আক্রমণে এসে রানের গতি কমান। নিজের প্রথম ওভারে কোনো উইকেট নিতে না পারলেও তিনি খরচ করেন মাত্র ২ রান। মুস্তাফিজুর রহমানও বজায় রাখেন সে ধারা। যদিও আলিস পরের ওভারে দেন ৯ রান।

ব্যাক টু ব্যাক ওভার করতে এসে এনামুলকে উইকেটের পেছনে ক্যাচ বানান ফিজ। ১৩ বলে ১৮ রান করেন খুলনা দলপতি। পরের ওভারে ফিরে যান আফিফ হোসেন। ৩৩ বলে ২৯ রান করেন তিনি। এরপর এভিন লুইস ও মাহমুদুল হাসান জয়ের ব্যাটে ঘুরতে থাকে খুলনার রানের চাকা। দুজনে মিলে গড়েন অর্ধশত রানের জুটি। জয় ১৯ বলে ২৮ রান করে আউট হন ম্যাথুও ফোর্ডের ওভারে।

বিস্ফোরক লুইসকে সাজঘরে ফেরান মঈন আলি। ২০ বলে ৩৬ রান করেন ক্যারিবীয় ব্যাটার। পরের বলে মঈন ফেরান লুক উডকেও। ডাক মেরে মাঠ ছাড়েন ইংলিশ ক্রিকেটার। তখন তাদের সংগ্রহ ১৩৯। শেষদিকে খুলনার সংগ্রহ বাড়াতে বড় অবদান রাখেন ওয়েইন পারনেল। ১১ বলে ২০ রান করে আউট হন তিনি। কুমিল্লার হয়ে ২টি করে উইকেট নেন মঈন আলি ও ম্যাথুও ফোর্ডে, একটি করে উইকেট পান আলিস আল ইসলাম ও মুস্তাফিজুর রহমান।

(ঢাকাটাইমস/১৪ফেব্রুয়ারি/এনবিডব্লিউ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

খেলাধুলা এর সর্বশেষ

‘সবাই ভেবেছিল আমরা শেষ, কিন্তু রিয়াল মাদ্রিদ কখনো মরে না’

যুক্তরাষ্ট্রের ক্রিকেটের দায়িত্বে বাংলাদেশের সাবেক কোচ স্টুয়ার্ট ল

আইপিএলে মুস্তাফিজের পরবর্তী ম্যাচ কবে, কখন

নিউজিল্যান্ড-পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ

বাংলাদেশের নতুন স্পিন কোচ কিংবদন্তি মুশতাক আহমেদ

পেনাল্টি নিতে খেলোয়াড়দের ধাক্কাধাক্কি, কড়া হুঁশিয়ারি কোচ পচেত্তিনোর

উইজডেনের বর্ষসেরার তালিকায় অস্ট্রেলিয়ার তিন ও ইংল্যান্ডের দুইজন

সার্বিয়ান ওপেনে ইরানি নারী তায়কোয়ান্দোদের ২ পদক

এগিয়ে থাকলেও পিএসজিকে সমীহ করছেন বার্সা কোচ জাভি হার্নান্দেজ

অবসর ভেঙে তামিম ও মুশফিককে টি-টোয়েন্টি দলে ফেরানোর ব্যাপারে যা বললেন শান্ত

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :