টানা ৮ জয়ের পর কুমিল্লার কাছে ধরাশায়ী সাকিবের রংপুর

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ২২:৩৬ | প্রকাশিত : ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ২২:২৯

চলতি বিপিএলে কোনোভাবেই যেন থামানো যাচ্ছিল না রংপুর রাইডার্সের জয়রথ। টেবিলের শীর্ষে চড়ে, প্লে অফ নিশ্চিতের পরও ক্ষান্ত হচ্ছিল না তারা। শুরুর দিকে ফরচুন বরিশাল আর খুলনা টাইগার্সের কাছে কেবল হেরেছিল রংপুর রাইডার্স। এই দুই দল ছাড়া আর কেউই হারাতে পারেনি রংপুরকে। টানা ৮ ম্যাচে জিতেছে তারা। অবশেষে রংপুরের জয়রথ থামালো কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

আজ মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে ১৯ ওভার ৫ বলে সবকটি উইকেট হারিয়ে ১৫০ রান সংগ্রহ করে রংপুর। দলের হয়ে সর্বোচ্চ অপরাজিত ৬৯ রান করেছেন নিশাম। জবাবে খেলতে নেমে ১৭ ওভার ৪ বলে ৪ উইকেট হারিয়ে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় কুমিল্লা। গ্রুপ পর্বের সব ম্যাচ শেষে রংপুরের পয়েন্ট ১৮। আর ১১ ম্যাচ শেষে কুমিল্লার পয়েন্ট ১৬। শেষ ম্যাচে ফরচুন বরিশালকে হারাতে পারলে নেট রানরেটে রংপুরকে হটিয়ে শীর্ষস্থান দখলে নিবে লিটনের দল।

১৫১ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে সুনিল নারিনকে নিয়ে ভালো সূচনা করেন লিটন দাস। ২৪ বলে তারা তোলেন ৩৬ রান। পঞ্চম ওভারে সাকিব আল হাসান এসে জোড়া শিকার করে আশা জাগান রংপুরের। নারিন ১১ বলে ১৫ আর তাওহিদ হৃদয় রানের খাতা খোলার আগেই ফেরেন সাজঘরে।

তবে তৃতীয় উইকেট লিটন আর মাহিদুল ইসলাম অঙ্কন ৫৫ বলে ৬৫ রানের জুটিতে ম্যাচ অনেকটা চলে আসে কুমিল্লার হাতে। কুমিল্লার রান তখন ১০০ পেরিয়েছে, ১৪তম ওভারে লিটনকে আউট করেন সাকিব। ৪২ বলে লিটনের ইনিংসটি ছিল ৪৩ রানের।

পরের ওভারে আবু হায়দার রনি আরেক সেট ব্যাটার অঙ্কনকেও তুলে নিলে ম্যাচে ফেরে রংপুর। ২৯ বলে ৪ বাউন্ডারি আর এক ছক্কায় অঙ্কন করেন ৩৯ রান।

শেষ ৫ ওভারে কুমিল্লার দরকার ছিল ৪৪। কিন্তু যে দলে আন্দ্রে রাসেলের মতো ব্যাটার আছেন, তাদের আর এই রান নিয়ে দুশ্চিন্তা কী! রাসেল ১২ বলে ৪টি করে চার-ছক্কায় হার না মানা ৪৩ করে কুমিল্লাকে জিতিয়েই মাঠ ছেড়েছেন।

এর আগে বলতে গেলে একাই লড়লেন জিমি নিশাম। ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়া রংপুর রাইডার্সকে বিপদ থেকে বাঁচিয়ে লড়াকু পুঁজি এনে দিলেন কিউই এই অলরাউন্ডার। নিশামের দায়িত্বশীল এক ইনিংসে ভর করে ১৯.৫ ওভারে অলআউট হওয়ার আগে ১৫০ রান তোলে রংপুর রাইডার্স।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ভীষণ বিপদে পড়েছিল রংপুর। ৩৯ রানে তারা হারিয়ে বসেছিল ৪ উইকেট। সাকিব ১৯ বলে ২৪ রানের ইনিংস খেলে দলকে কিছুটা পথ এগিয়ে দেন।

তারপরও একশর আগে (৯৩ রানে) ৭ উইকেট হারিয়ে ধুঁকছিল রংপুর। সেখান থেকে জিমি নিশাম টেনে তুললেন দলকে। শেষ পর্যন্ত ৪২ বলে ৬৯ রানে অপরাজিত থাকেন নিশাম, ৯টি বাউন্ডারির সঙ্গে হাঁকান ২টি ছক্কা।

দারুণ বোলিং করেন মুশফিক হাসান। ৪ ওভারে মাত্র ১৮ রান দিয়ে নেন ৩টি উইকেট। ২০ রানে ৩ উইকেট শিকার আন্দ্রে রাসেলের।

(ঢাকাটাইমস/২০ফেব্রুয়ারি/এনবিডব্লিউ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

খেলাধুলা এর সর্বশেষ

বাংলাদেশের নতুন স্পিন কোচ কিংবদন্তি মুশতাক আহমেদ

পেনাল্টি নিতে খেলোয়াড়দের ধাক্কাধাক্কি, কড়া হুঁশিয়ারি কোচ পচেত্তিনোর

উইজডেনের বর্ষসেরার তালিকায় অস্ট্রেলিয়ার তিন ও ইংল্যান্ডের দুইজন

সার্বিয়ান ওপেনে ইরানি নারী তায়কোয়ান্দোদের ২ পদক

এগিয়ে থাকলেও পিএসজিকে সমীহ করছেন বার্সা কোচ জাভি হার্নান্দেজ

অবসর ভেঙে তামিম ও মুশফিককে টি-টোয়েন্টি দলে ফেরানোর ব্যাপারে যা বললেন শান্ত

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়ে বেশি প্রত্যাশা না রাখার অনুরোধ শান্তর!

উইজডেনের ‘লিডিং ক্রিকেটার’ কামিন্স ও ব্রান্ট

বেঙ্গালুরুর একাদশে না থাকার রহস্য ভাঙলেন ম্যাক্সওয়েল

তাসকিনের বিশ্রাম ও আইপিএল খেলতে না দেওয়া নিয়ে যা বলছে বিসিবি

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :