নির্বাচন নিয়ে জার্মানি সফরে কেউ প্রশ্ন তোলেনি: প্রধানমন্ত্রী 

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৪:৪৪ | প্রকাশিত : ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১:১৭

জার্মানিতে মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনের ফাঁকে বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রপ্রধানদের সঙ্গে বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসকল রাষ্ট্রপ্রধানরা পুননির্বাচিত হওয়ার জন্য তাকে অভিনন্দন জানান। এসব বিশ্বনেতাদের কেউ বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে উদ্বেগ বা প্রশ্ন তোলেনি বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

শুক্রবার জার্মানির মিউনিখে অনুষ্ঠিত ‘মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলন’ নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেন, “এবারের সফরে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা হয়েছে, কিন্তু নির্বাচন নিয়ে কথা হয়নি। কোনো কোনো দেশে একটা নির্বাচনের রেজাল্ট করতে ১২-১৫ দিন সময় লাগে, সেই নির্বাচন ফ্রি ফেয়ার। আর বাংলাদেশে এতো সুষ্ঠু নির্বাচন হওয়ার পর ২৪ ঘণ্টা, ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে রেজাল্ট এসে গেল, সেই নির্বাচন ফ্রি ফেয়ার না। এই রোগের ওষুধ আমাদের কাছে নেই।”

তিনি বলেন, “আমাদের শক্তি হলো জনগণ, অন্য কেউ নয়।”

শেখ হাসিনা আরও বলেন, “এখন মনে হয় তাদের মধ্যে একটা সমঝোতা আসছে, কেউ প্রেসিডেন্ট হবে। ওই রকম যদি বাংলাদেশ হতো তাহলে তাদের জন্য ভালো হতো। সেটা হয়নি দেখেই তাদের মন খারাপ। তবে তাদের মন ভালো হয়ে যাবে।”

শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সরকারি বাসভবন গণভবনে এ সংবাদ সম্মেলন শুরু হয়।

মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে যোগ দিতে গত ১৫ ফেব্রুয়ারি জার্মানি যান প্রধানমন্ত্রী। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়লাভের পর সরকারপ্রধান হিসেবে এটি ছিল তার প্রথম কোনো রাষ্ট্রীয় সফর।

মিউনিখে অবস্থানকালে শেখ হাসিনা নিরাপত্তা সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেন। পাশাপাশি তিনি বেশ কয়েকজন বিশ্বনেতার সঙ্গে বৈঠক করেন।

প্রধানমন্ত্রী জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শোলৎজ, ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির জেলেনস্কি, নেদারল্যান্ডসের প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুটে, আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভ, কাতারের প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ বিন আবদুল রহমান আল-থানি এবং ডেনমার্কের প্রধানমন্ত্রী মেটে ফ্রেডেরিকসেনের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করেন।

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস. জয়শঙ্কর ও যুক্তরাজ্যের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বর্তমান পররাষ্ট্র, কমনওয়েলথ ও উন্নয়নবিষয়ক মন্ত্রী লর্ড ক্যামেরন এবং জার্মান ফেডারেল অর্থনৈতিক সহযোগিতা ও উন্নয়নমন্ত্রী সভেনজা শুলজেও শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী ব্যবসা করার জন্য বাংলাদেশ ও ভারতীয় মুদ্রা টাকা ও রুপি ব্যবহারের ওপর জোর দেন।

উইমেন পলিটিক্যাল লিডারের (ডব্লিউপিএল) প্রেসিডেন্ট সিলভানা কোচ-মেহরিন, ডেভেলপমেন্ট পলিসি অ্যান্ড পার্টনারশিপের সিনিয়র ম্যানেজিং ডিরেক্টর ভ্যান টর্টসেনবার্গ, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) মহাপরিচালক পেড্রোস আধানম গেব্রিয়াসিস, মেটার গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্সের প্রেসিডেন্ট এবং যুক্তরাজ্যের সাবেক উপপ্রধানমন্ত্রী ড. স্যার নিক ক্লেগও প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলাদাভাবে সাক্ষাৎ করেন।

শেখ হাসিনা মিউনিখ সিকিউরিটি কনফারেন্সে ‘ফ্রম পকেট টু প্ল্যানেট : স্কেলিং আপ ক্লাইমেট ফাইন্যান্স’ শীর্ষক একটি প্যানেল আলোচনার বক্তব্যে ছয়টি প্রস্তাব উত্থাপন করেন। তিনি ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোর জন্য জলবায়ু অর্থায়ন ছাড় করতে এবং অস্ত্র প্রতিযোগিতা বন্ধ করে সে অর্থ জলবায়ু তহবিলে জমা দিতে বিশ্ব নেতৃবৃন্দের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি মিউনিখের বার্গারহাউস গার্চিং হোটেলে জার্মানি ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশে প্রবাসী বাংলাদেশিদের সংবর্ধনায়ও যোগ দেন।

(ঢাকাটাইমস/২৩ফেব্রুয়ারি/জেএ/এমআর/এফএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :