পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ছিনতাইয়ের অভিযোগ, মামলা নেয়নি থানা

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাতক্ষীরা
| আপডেট : ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ২১:১৪ | প্রকাশিত : ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ১৯:৫৫
‍পুলিশ পরিদর্শক মো. শিহাব হোসেন (ছবি: সংগৃহীত)।

ঈদের ছুটিতে সাতক্ষীরায় গ্রামের বাড়ি গিয়ে ছিনতাইয়ে নেতৃত্ব দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে মো. শিহাব হোসেন নামে পুলিশের এক পরিদর্শকের বিরুদ্ধে। তার নেতৃত্বে মৎস্য ঘেরের অফিসে ঢুকে ঘের মালিককে বেধড়ক পিটিয়ে সাড়ে লাখ টাকা ছিনতাইয়ের অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী। তবে ঘটনায় অভিযোগ দিলেও থানায় তা মামলা হিসেবে রেকর্ড করেনি।

সোমবার (১৫ এপ্রিল) সাতক্ষীরা সদর উপজেলার আখড়োখালা বাজার ব্রিজ সংলগ্ন বিসমিল্লাহ মৎস্য ঘেরের অফিসে ঘটনা ঘটেছে।

ঘটনায় মঙ্গলবার ভুক্তভোগীর ভাই মো. আব্দুল হক বাদী হয়ে প্রথমে থানায় অভিযোগ দায়ের করলেও তা মামলা হিসেবে গ্রহণ না করায় ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত হওয়ার আশঙ্কায় পরবর্তীতে আদালতে মামলা করেছেন ভুক্তভোগী মো. মহিদুল ইসলাম মিলন

বুধবার দুপুরে সাতক্ষীরা চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলাটি দায়ের করেন তিনি। মামলায় পুলিশ পরিদর্শক মো. শিহাব হোসেন তার ভাই সাইফুর রহমান হিল্টু তাদের বাবা মজনুহার মাস্টারকে আসামি করা হয়েছে।

পুলিশ পরিদর্শক মো. শিহাব হোসেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদরের ১নং ফাঁড়িতে কর্মরত অবস্থায় সম্প্রতি ক্লোজড হয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পুলিশ লাইন্সে সংযুক্ত আছেন।

থানায় দেওয়া লিখিত অভিযোগে মো. আব্দুল হক উল্লেখ করেন, আমার ছোট ভাই মহিদুল ইসলাম মিলন শিরনগর টুংকিরবিলে বিসমিল্লাহ মৎস্য ঘের প্রজেক্টে ২৪০ বিঘা মৎস্য ঘেরের শেয়ার হিসাবে মৎস্য চাষাবাদ করে আসছে। পুলিশ পরিদর্শক শিহাব হোসেনও ওই মৎস্য ঘেরের শেয়ারে আছেন। তিনি খুঁটিনাটি বিষয় মৎস্য ঘেরের হারির টাকা নিয়ে আমার ভাইসহ ঘেরের অন্য মালিকদের সঙ্গে অহেতুক ঝগড়া বিরোধ করে আসছিল।

অভিযোগে তিনি আরও উল্লেখ করেন, পুলিশ ইন্সপেক্টর শিহাব হোসেন প্রায় সময় মোবাইল ফোনের মাধ্যমে আমার ছোট ভাইকে হুমকি-ধামকি দিত। সোমবার (১৫ এপ্রিল) রাত ৮টার দিকে পূর্ব পরিকল্পনা মোতাবেক ঘেরের অফিসে ঢুকে ইন্সপেক্টর শিহাবের নেতৃত্বে আমার ভাইকে বেধড়ক মারপিট করে গুরুতর জখম করে। তাদের মারপিটে আমার ছোট ভাই ঘটনাস্থলে জ্ঞান হারিয়ে ফেললে হামলাকারীরা অফিস ব্যাগে রাখা লক্ষ ৫০ হাজার টাকা নিয়ে চলে যায়।

আহত মহিদুল ইসলাম মিলন সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসাধীন নিয়ে বর্তমানে বাড়িতে আছে বলে জানান তার ভাই মো. আব্দুল হক।

বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত পুলিশ ইন্সপেক্টর মো. শিহাব হোসেনকে একাধিকবার কল করলেও তিনি রিসিভ না করায় তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

মামলা না নেওয়ার বিষয়টি স্বীকার করে সাতক্ষীরা সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. নজরুল ইসলাম ঢাকা টাইমসকে বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। বিষয়টি মামলা নেওয়ার মতো নয় বিধায় তা রেকর্ড করা হয়নি। তবে সেখানে চড়-থাপ্পড়ের ঘটনা ঘটেছে জানিয়ে তিনি বলেন, ঘটনায় যতটুকু আইনি ব্যবস্থা নেওয়া যায় ততটুকু আমরা গ্রহণ করবো।

বিষয়ে জানতে চাইলে সাতক্ষীরা জেলার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মতিউর রহমান সিদ্দিকী ঢাকা টাইমসকে বলেন, প্রথমত থানায় কেউ অভিযোগ করেছে কিনা তা আমার জানা নেই। তবে ঘটনা যদি সত্য হয় এবং থানায় মামলা নিচ্ছে না এমন অভিযোগ প্রমাণিত হয় তাহলে তদন্ত সাপেক্ষে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

(ঢাকাটাইমস/১৭এপ্রিল/প্রতিনিধি/পিএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

সারাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সারাদেশ এর সর্বশেষ

বৈরী আবহাওয়ায় বিলাইছড়ির ৫টি দুর্গম কেন্দ্রে পৌঁছায়নি নির্বাচনি সরঞ্জাম 

ভৈরবে র‍্যাব হেফাজতে নারীর মৃত্যু: ক্যাম্প কমান্ডার ফাহিম ফয়সালকে প্রত্যাহার 

ঈশ্বরদীতে ফেনসিডিলসহ রেল নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য আটক

মোটরসাইকেলে করে ছিনতাই করতো তারা

পাবনা-৪ আসনের এমপির বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ

নগরকান্দার বীর নিবাস: নির্মাণ শেষের আগেই ছাদ চুঁইয়ে পড়ছে পানি

বিদ্যুৎ না থাকায় গরমে ২২ শিক্ষার্থী অসুস্থ

দিনাজপুরে মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে ৩ নারীসহ ২১ দালাল আটক

নির্বাচনি প্রচারণায় অংশগ্রহণ: পাঁচবিবিতে দুই বিএনপি নেতাকে অব্যাহতি

ঝিনাইদহে রাস্তার কাজে নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহারের অভিযোগ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :