প্রধানমন্ত্রী নিজের ছায়া দেখেও ভয় পাবেন: গয়েশ্বর

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ২৮ মে ২০২৪, ২০:০৮

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কিছুদিন পরে নিজের ছায়া দেখেও ভয় পাবেন বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়।

তিনি বলেন, ‘পুলিশ প্রধান বেনজীর ও সেনাপ্রধান আজিজ তো একা পাপী নয়। এদেরকে পাপী বানিয়েছেন শেখ হাসিনা।সরকারেরও পাপের কোনো শেষ নেই। তিনি (শেখ হাসিনা) ইশরাক হোসেনকে ভয় পান, আরও দুদিন পর বিড়াল দেখলেও ভয় পাবেন। কয়েকদিন পর তিনি (শেখ হাসিনা) মানুষ দেখলে ভয় পাবেন। এমনকি ওনার ঘরের লাইটের আলোতে নিজের ছায়া দেখলেও ভয় পাবেন।’

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বিএনপি নেতা ইশরাক হোসেনের মুক্তির দাবিতে আয়োজিত শ্রমিক জনতার সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। ঢাকা মহানগর দক্ষিণ শ্রমিক দল সমাবেশের আয়োজন করে।

গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, ‘বর্তমান সরকার সেনাবাহিনী, পুলিশ, বিচার বিভাগসহ সবকিছু নিয়ে যে খেলাধুলা করছে। এত খেলাধুলা করতে গেলে একসময় সবকিছু আউলিয়ে যাবে এবং সরকার মাথা ঘুরে পড়ে যাবে। হাইপো রোগ হলে মানুষ যেমন একটা চকলেটের অভাবে বাঁচে না, তেমনিভাবে বর্তমান সরকার হাইপো রোগে আক্রান্ত। একটা চকলেটের অভাবে যেকোনো সময় পড়ে যাবে।’

গয়শ্বর আরও বলেন, ‘বাংলাদেশে যে রিজার্ভ চুরি হয়েছে সেটি আদায় করার ইচ্ছা সরকারের নাই। নিশ্চয়ই সরকারের নিজস্ব লোকজন এর সঙ্গে জড়িত। না থাকলে সরকার চুপ করে আছে কেন। এখন পত্রিকা খুললেই দেখা যায় বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর বলেন এক কথা, অন্যদিকে দুদক বলে অন্য কথা।

বিএনপির এই স্থায়ী কমিটির সদস্য বলেন, ‘বেনজীরের সম্পত্তি জব্দ করা হয়েছে কিন্তু তাকে গ্রেপ্তার করা হচ্ছে না কেন? তার স্ত্রী, মেয়ে কেন গ্রেপ্তার হচ্ছে না? অপরদিকে আমাদেরকে কোনো একটা মামলা দিয়েই গ্রেপ্তার করা হয়।’

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ শ্রমিক দলের আহ্বায়ক সুমন ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে এবং সংগঠনের সদস্য সচিব বদরুল আলম সবুজের সঞ্চালনায় সমাবেশে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহ্বায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সালাম, বিএনপি চেয়ারপারসনের ব্যক্তিগত সরকারি শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

(ঢাকাটাইমস/২৮মে/জেবি/এসআইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

রাজনীতি এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :