দায়িত্ব ঠিকভাবে পালনের সঙ্গে সময়টাও উপভোগ করতে চান শান্ত

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ২৯ মে ২০২৪, ১৩:০১

আর মাত্র কয়েকদিন পরেই মাঠে গড়াবে আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মাঠের লড়াই। বিশ্বকাপ খেলতে বাংলাদেশ দল এখন যুক্তরাষ্ট্রের মাটিতে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে টাইগারদের বিশ্বকাপ মিশন। প্রথমবারের মতো বৈশ্বিক কোনো আসরে বাংলাদেশ দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন নাজমুল হোসেন শান্ত। বিশ্ব মঞ্চে টাইগারদের প্রতিনিধিত্ব করার রোমাঞ্চে বুঁদ হয়ে আছেন তিনি। বিশেষকরে অধিনায়ক হওয়ায় দায়িত্বটা ঠিকভাবে পালন করার তাগিদ অনুভব করছেন। এর পাশাপাশি সময়টা উপভোগও করতে চান শান্ত।

বুধবার বিসিবির প্রকাশিত এক ভিডিও বার্তায় বিশ্বকাপে নিজের লক্ষ্যের কথা জানান শান্ত। যদিও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলতে বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে রয়েছে বাংলাদেশ দল। তবে এই ভিডিওটি রেকর্ড করা হয় দেশে থাকাকালীন সময়েই। যা প্রকাশ করা হয় আজই।

'আমার মনে হয় প্রত্যেকটা ক্রিকেটারেরই এমন স্বপ্ন থাকে যে প্রথমে দেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করা, অবশ্যই। তারপর যদি আবার বিশ্বকাপের মতো একটা আসরে এ ধরণের সুযোগ আসে তাহলে তো ওই ক্রিকেটারের জন্য গর্বের বিষয়। অনেক রোমাঞ্চকর একটা মুহূর্ত আমার কাছে মনে হয়। পাশাপাশি আমার কাছে মনে হয় এই সময়টাকে উপভোগ করতে চাই,' বলেন টাইগার অধিনায়ক।

নিজের দায়িত্ব ঠিকভাবে পালন করে দেশের হয়ে প্রতিটি ম্যাচেই অবদান রাখতে চান শান্ত, 'দলের হয়ে প্রত্যেকদিন অবদান রাখতে চাই। যে দায়িত্বটা আছে সেটা ঠিকভাবে পালন করতে চাই এটাই লক্ষ্য। অধিনায়ক হওয়া নিয়ে অনেক বেশি দায়িত্ব বেড়ে গেছে এভাবেও চিন্তা করতে চাই না। প্রত্যেকটা সময় উপভোগ করতে চাই। প্রত্যেকদিন দলকে যেন কিছু একটা দিতে পারি এটাই মূল লক্ষ্য থাকবে আর কি।'

বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সম্ভাবনা নিয়ে বললেন, 'সম্ভাবনা আমি বলতেই চাই না। কারণ আপনিও চান বাংলাদেশ শিরোপা জিতুক। খেলোয়াড়েরাও চায় বাংলাদেশ দল কাপ জিতুক। এটাই সবচেয়ে বড় লক্ষ্য। কিন্তু অধিনায়ক হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ হলো প্রস্তুতিটা ঠিকমতো নিয়েছি কি না, ছোট ছোট কাজগুলো করছি কি না, প্রক্রিয়াটা ঠিক আছে কি না—এই জিনিসগুলো যদি আমরা ঠিকভাবে করতে পারি, প্রতিটি ম্যাচে আমাদের শক্তি অনুযায়ী খেলতে পারি, তাহলে ফল আসবেই। তাই ফল নিয়ে খুব একটা চিন্তা নেই। ছোট ছোট জিনিসগুলো যেন আমরা ঠিক করতে পারি, এটা নিয়ে বেশি মনোযোগী।'

সাকিব আল হাসান ও মাহমুদউল্লাহর মতো অভিজ্ঞ ক্রিকেটার থাকাকে অনেক বড় সুবিধা মনে করছেন টাইগার অধিনায়ক, 'এটা অনেক বড় প্লাস পয়েন্ট মনে হয় আমার কাছে। এমন ক্রিকেটার যখন দলে থাকে, বিশেষ করে যারা তরুণ, অনেকেই আছে প্রথম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলবেন, তাদের জন্য অনেক অনুপ্রেরণা দেবে মনে হয়। পাশাপাশি তাদের তো অধিনায়কত্ব করার অভিজ্ঞতাও আছে। আশা করি কঠিন সময়ে কোনো সাহায্য দরকার হলে তারা করবেন এবং এখন সেটাই করছেন। বিশ্বকাপে এর ব্যতিক্রম হবে না বলেই আমি আশা করি।'

অধিনায়ক শান্তর অধীনে বাংলাদেশ বিশ্বকাপে খেলবে ‘গ্রুপ অব ডেথ’ খ্যাত গ্রুপ ‘ডি’তে। যেখানে তাদের প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা, দক্ষিণ আফ্রিকা, নেদারল্যান্ডস ও নেপাল। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৮ তারিখের ম্যাচ দিয়ে এবারের বিশ্বকাপ মিশন শুরু করবে বাংলাদেশ।

(ঢাকাটাইমস/২৯মে/এনবিডব্লিউ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :