যেসব সমস্যা থাকা অবস্থায় করলা খেলেই বিপদ

ফিচার ও স্বাস্থ্য ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ১২ জুন ২০২৪, ১৭:৪৫

সবজির মধ্যে অন্যতম উপকারী করলা। এর অনেক স্বাস্থ্যগুণ। ত্বক ভালো রাখতে, ওজন কমাতে কিংবা ডায়াবেটিসের সমস্যা নিয়ন্ত্রণে রাখতে অনেকেই করলা খান বা এর রস পান করেন। তাতে উপকারও মেলে। কিন্তু এই করলাই মাঝেমধ্যে ডেকে আনতে পারে বিপদ।

চলুন তবে জেনে আসি অতি উপকারী সবজি করলা কখন বড় বিপদের কারণ হতে পারে-

লিভারের সমস্যায়

এই সবজি লিভারের ওপর প্রভাব ফেলতে পারে। করলার রসে ল্যাকটিন বলে যে উপাদান রয়েছে, তা লিভারের পক্ষে ক্ষতিকারক। ল্যাকটিন লিভারে এনজাইমের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়, যেটা লিভারের ক্ষতি করে। যাদের আগে থেকেই লিভারের সমস্যা রয়েছে, তারা করলা বা এর রস খাবেন না।

সুগারের মাত্রা কম হলে

করলা খেলে রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকে। তাই যাদের সুগার লেভেল আগে থেকেই কম, তারা করলা খেলে সুগার লেভেল আরও নেমে যেতে পারে। সেক্ষেত্রে বড় সমস্যা হতে পারে। এমন ক্ষেত্রে করলা খাওয়া নিয়ন্ত্রণ করুন।

পেটের সমস্যা থাকলে

অনিচ্ছা সত্ত্বেও করলা বা এর রস খেলে বমি হতে পারে। করলার মধ্যে এমন একটি উপাদান রয়েছে, যাতে বিষক্রিয়াও হতে পারে। সেই কারণে ডায়রিয়ার সমস্যাও হয়। করলাতে টেট্রাসাইক্লিক ট্রাইটারপেনয়েড কম্পাউন্ড রয়েছে, যাকে কিউকারবিটাসিন্স বলা হয়। এটা বিষাক্ত। তাই শিশুদের করলার রস খাওয়ানোর আগে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

ঋতুস্রাব এবং গর্ভাবস্থায়

করলার রসে মোমোক্যারিন বলে একটি উপাদান রয়েছে। এর প্রভাবে রক্ত প্রবাহ বেড়ে যায়। একই উপাদানের কারণে গর্ভাবস্থায় বেশি পরিমাণে করলা খেলে গর্ভপাতের আশঙ্কা বেড়ে যায় কয়েক গুণ। তাই চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া এই সময়ে করলা খাবেন না।

(ঢাকাটাইমস/১২জুন/এজে)

সংবাদটি শেয়ার করুন

ফিচার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :