‘ইবাদতের বসন্ত মাহে রমজান’

ঢাকাটাইমস ডেস্ক
 | প্রকাশিত : ২৭ এপ্রিল ২০১৯, ১৬:০৭

‘রমজানের আধ্যাত্মিক পরশ লাভের জন্য ফরজ রোজার পাশাপাশি নিয়মিত কোরআন তেলাওয়াত করা প্রয়োজন। নবীজীবন ও আমাদের তাই শিক্ষা দেয়। উপমহাদেশের প্রখ্যাত সাধক আল্লামা হুসাইন আহমদ মাদানি আপন উস্তাদ শাইখুল হিন্দ মাওলানা মাহমুদুল হাসানের অভিপ্রায়ে হজের সফরে রমজান মাসে পুরো কোরআন হিফজ করেছিলেন। দিনের বেলায় এক পারা হিফজ করতেন আর রাতে তারাবিহর নামাজে তা শোনাতেন।’

আলনূর কালচারাল সেন্টার কাতার আয়োজিত ‘ইবাদাতের বসন্ত মাহে রমজান’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে করাচির জামিয়া রাহমাতুল্লিল আলামিনের পরিচালক ও জামিয়া খলিলিয়ার শাইখুল হাদিস ড. আল্লামা মুহিববুল্লাহ আল কাসেমি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

উপস্থিত মা-বোনদের উদ্দেশ্যে প্রধান অতিথি বলেন, ‘আপনারা জাতিকে শিক্ষিত কোরআনি প্রজন্ম উপহার দেয়ার চেষ্টা করুন। তারাই হবে জাতির যোগ্য কান্ডারি ও যুগের নকিব।’

গত ২৬ এপ্রিল শুক্রবার বাদ মাগরিব দোহার বিন যাইদ সেন্টারে অনুষ্ঠিত পাক্ষিক আলোচনায় সভাপতিত্ব করেন আলনূর শরিয়া বিশেষজ্ঞ মুফতি আহসানুল্লাহ।

রমজানে গুরুত্বপূর্ণ বিধানাবলীর ওপর আলোকপাত করেন আলনূর নির্বাহী পরিচালক মাওলানা ইউসুফ নূর। অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন মাওলানা কারী ইব্রাহিম ও হাফেজ মুস্তাফিজুর রহমান।

নির্বাহী সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন হাফেজ লোকমান, রকিবুল ইসলাম, সাদ আহমদ ও শের আলম প্রমুখ।

(ঢাকাটাইমস/২৭এপ্রিল/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

ইসলাম বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত