বিআরটিসি কর্মীদের হুঁশিয়ারি সেতুমন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৬ মে ২০১৯, ১৭:১২

রাষ্ট্রায়ত্ত পরিবহন সংস্থা বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশনের (বিআরটিসি) কর্মকর্তা-কর্মচারীদের দুর্নীতি-অনিয়ম না করার বিষয়ে হুঁশিয়ার করে দিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বিআরটিসির হারানো সুনাম পুনরুদ্ধারে পরিচ্ছন্নভাবে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘বিআরটিসি দেউলিয়া হলে আপনারা এখানে যারা আছেন, তারাও দেউলিয়া হবেন। রমজান মাস সংযমের মাস, এই মাসে ইনকামটা একটু কম করলে কী হয়? বিআরটিসি যেন সুনামের ধারায় ফিরে আসে, সেদিক বিবেচনা করে নতুন দৃষ্টান্ত স্থাপন করুন।’

রবিবার মতিঝিলে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশন (বিআরটিসি) কার্যালয়ে এক মতিবিনিময় সভায় বক্তব্য দিচ্ছিলেন কাদের।

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘সৎভাবে, পরিচ্ছন্নভাবে বিআরটিসিকে পরিচালনা করলে জনগণের সামনে সুনাম অক্ষুণœ থাকবে। এখন বিআরটিসির সেই সুনাম নেই। এবার আগের বিআরটিসির বাসগুলোর সঙ্গে নতুন ২৫৩টি বাস যুক্ত হওয়ায় আপনারা নতুন শপথ করুন, বিআরটিসিকে আকর্ষণীয় করতে হবে।’

রাষ্ট্রীয় পরিবহন সংস্থাটিকে বাঁচিয়ে রাখতে সরকার বিভিন্ন সময় পদক্ষেপ নিয়েছে; পুরোনো বাসের বহরে প্রায়ই যুক্ত হয় নতুন যানবাহন। তারপরও বিভিন্ন সময় লোকসানের কথা শোনা যায়। লোকসানের কারণে বেতনভাতা বকেয়া হয়ে পড়ায় বছরের শুরুর দিকে বিআরটিসির চালক ও শ্রমিকদের ধর্মঘটে সংস্থায় অচলাবস্থাও তৈরি হয়েছিল। ওই ধর্মঘটের পর একবার বিআরটিসির কার্যালয়ে গিয়ে সংস্থার ‘অনিয়ম-দুর্নীতি’ নিয়ে ক্ষোভ ঝেড়েছিলেন ওবায়দুল কাদের।

দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তারা কীভাবে কত আয় করেন তা অবগত থাকার কথা জানিয়ে সে সময় তিনি ওইসব কর্মকর্তাদের সরিয়ে দিতে সংস্থার চেয়ারম্যানকে নির্দেশও দিয়েছিলেন।

ঈদযাত্রা স্বস্তির হবে, আশ্বাস মন্ত্রী

এবারের ঈদযাত্রা স্বস্তিদায়ক হবে বলে আশ্বাসের কথা শুনিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বলেছেন, এবারের ঈদযাত্রায় স্বস্তি দিতে বিআরটিসির ১১৪২টি বাসযাত্রী পরিবহন করবে।

কাদের বলেন, সড়কপথে স্বস্তিদায়ক যাত্রার নিশ্চয়তা দিতে পারব এমন একটা অবস্থানে আমরা পৌঁছেছি। এবারের ঈদে নতুন-পুরোনো মিলিয়ে ১১৪২টি (বিআরটিসির) বাস চলাচল করবে। পুরোনো ৮৮৯টির সঙ্গে ২৫৩টি বাস নতুন যুক্ত হয়েছে। ঈদের সময় পরিবহন সংকট নিরসনে বিআরটিসি সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।

তিনি আরও বলেন, ‘কাঁচপুর-মেঘনা-গোমতী সেতু খুলে দেওয়ায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে কোনো যানজট থাকবে না। উত্তরবঙ্গগামী টাঙ্গাইল সড়কের দুটি ফাইওভার ও চারটি আন্ডারপাস খুলে দেওয়ায় যানজট না থাকলেও টঙ্গী থেকে গাজীপুর পর্যন্ত রাস্তায় কিছুটা সমস্যা হতে পারে।’

টঙ্গী-গাজীপুরের সড়কের যানজট নিরসনে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রীকে সভাপতি করে একটি কমিটি করা হয়েছে বলেও জানান ওবায়দুল কাদের। তিনি জানান, কমিটিতে সদস্য হিসেবে গাজীপুরের মেয়র, স্থানীয় সংসদ সদস্য জাহিদ আহসান রাসেল, গাজীপুর মেট্রোলিটন পুলিশ কমিশনার, বিআরটিএ কর্মকর্তা ও রুট ট্রানজিটের প্রকল্প পরিচালক রয়েছেন।

এ কমিটি যানজট নিরসনে সক্ষম হবে আশা প্রকাশ করে কাদের বলেন, এ ছাড়া সিটি করপোরেশনের তত্ত্বাবধানে টঙ্গী থেকে গাজীপুর পর্যন্ত সড়কে ৩০০ স্বেচ্ছাসেবক নিয়োজিত থাকবে।

 (ঢাকাটাইমস/২৬মে/ডিএম/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :