খাঁচামুক্ত হলো ৩৭১টি বন্য টিয়া

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৮:৩৪

চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৩৭১টি বন্য টিয়াপাখি অবমুক্ত করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। বনের পাখি খাঁচায় পুরে বেচাকেনার দায়ে চারজনকে জেল ও জরিমানাও করা হয়েছে।

মঙ্গলবার দুুপুরে ভ্রাম্যমাণ আদলতের বিচারক ও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন এই দণ্ডাদেশ দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- পাখি পাচারকারী বগুড়া জেলা সেরপুর উপজেলার নাকিকাবাড়ি গ্রামের আব্দুল আলিমের ছেলে আজিজুল হক ও একই জেলার দুপচাচিয়া উপজেলার তোতা গ্রামের শাখওয়াত আলীর ছেলে রাজু এবং এ কাজে সহযোগিতাকারী পিকআপভ্যান চালক বাসেদ ও ইনফরমার তানভির আহম্মেদ।  

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন দুপুরে গণমাধ্যমকে বলেন, ‘সোমবার রাতে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর ও বন্যপ্রাণী অধিদপ্তর শিবিরের হাট এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৪৫৭টি টিয়াপাখিসহ চারজনকে আটক করে। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে আজিজুল ও রাজকে ১ বছর করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড ও অপর দুইজন বাসেদ ও তানভিরকে ৬০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

আর ৪৫৭টি টিয়া পাখির মধ্যে ৩৭১ টি টিয়া পাখি অবমুক্ত করা হয় এবং বাকি ৮৬টি পাখি মারা গেলে মাটিতে পুতে ফেলা হয়।

এদিকে মাদক দ্রব্য অধিদপ্তরের ইন্সেপেক্টর রায়হান আহমেদ খান জানান, শিবিরের হাট জিরো পয়েন্টে অভিযানের সময় পিকাপ ভ্যাটটিকে সন্দেহ হলে তল্লাশি চালিয়ে বন্য টিয়াপাখিসহ চারজন আটক করা হয়। পরে বন্যপ্রাণী অধিদপ্তরকে সাথে নিয়ে ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারকের কাছে পাঠানো হয়।

ঢাকাটাইমস/১০সেপ্টেম্বর/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :