অযোধ্যা মামলার শুনানি শেষ, রায়ের আগেই বিজেপি শিবিরে উল্লাস

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ১৪:৩৩

অযোধ্যা মামলার শুনানি শেষ। এবার শুধু রায়ের অপেক্ষা। রায় হতে বেশ সময় লাগতে পারে। তবে এরই মধ্যে অযোধ্যা মামলায় রায় তাদের পক্ষে যাবে ধরে নিয়ে উল্লাস প্রকাশ করছেন বিজেপি ও কট্টর হিন্দুত্ববাদীরা। বিজেপি ও আরএসএসের প্রথম সারির নেতারা এ বিষয়ে কিছুটা চুপ থাকলেও অনেক নেতাই উচ্ছ্বাস প্রকাশ করছেন।

বিজেপি নেতা সাক্ষী মহারাজ বলেই ফেললেন, ‘প্রভু রামের পক্ষেই রায় আসবে। ৬ ডিসেম্বর বা তার আগেই রামমন্দির নির্মাণের কাজ শুরু হবে। এ বছর দু’বার দীপাবলি হবে’। বাবরি মসজিদ ধ্বংস হয়েছিল ১৯৯২ এর ৬ ডিসেম্বরই। ওই দিনটি ও সুপ্রিম কোর্টের রায়ের কথা মাথায় রেখে ইতিমধ্যেই ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি হয়েছে অযোধ্যায়।

দিল্লিতে বৃহস্পতিবার রাজনাথ সিংহের নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার সংসদ বিষয়ক কমিটির বৈঠক হয়। সংসদের শীতকালীন অধিবেশনের দিন ঠিক করতে। গত কয়েক বছর শীতকালীন অধিবেশন নভেম্বরের তৃতীয় সপ্তাহে শুরু হয়ে চলেছে পরের বছর জানুয়ারির গোড়া পর্যন্ত। কিন্তু সরকারি সূত্রের বরাত দিয়ে ভারতীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, এবারের অধিবেশন ছোট রাখার কথাই ভাবা হচ্ছে। এবার অধিবেশনের মুখেই অযোধ্যার রায় বেরোবে। ফলে ১৮ নভেম্বর থেকে শুরু করে বড়দিনের আগেই তা শেষ হতে পারে। এমনকি পাট চোকানো হতে পারে চার সপ্তাহে, ১৩ ডিসেম্বরের মধ্যেও।

বিজেপির মতে, রায় হিন্দুদের পক্ষে এলে উত্তরপ্রদেশে রাজনৈতিক লাভ হবে। অযোধ্যায় তাই এ বার মহা ধুমধামে দীপাবলি হবে। বস্তুত উৎসব শুরু হয়ে গিয়েছে। পরিস্থিতি দেখভাল করতে মুখ্যসচিব, পুলিশের বড় কর্তাদের সেখানে পাঠিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। যদিও সঙ্ঘের পক্ষে মনমোহন বৈদ্য বলেন, রামমন্দির রাজনৈতিক নয়, হিন্দু সমাজের আস্থার বিষয়। আদালত যেভাবে এগোচ্ছে, দ্রুত নিষ্পত্তি হবে। দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ক্ষমতাসীন বিজেপির অন্যতম নেতা অমিত শাহের আশা, ‘যে রায়ই আসুক, সব পক্ষ তা মেনে নেবে’।

ঢাকা টাইমস/১৭অক্টোবর/একে

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :