বইমেলায় ‘কিছু কথা’র চার বই

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২২:০৭

‘নিজস্বতায় অহংকার গড়ি’ এই স্লোগানে ২০১৭ সালের ২৪ সেপ্টেম্বর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে একটি গ্রুপের মাধ্যমে আত্মপ্রকাশ ঘটে ‘কিছু কথা’র। ছয় সহস্রাধিক সদস্যের অনলাইন এই প্লাটফর্মে বর্তমানে দুই হাজার লেখক রয়েছেন। এবছর অমর একুশে গ্রন্থমেলায় প্রথমবারের মতো চারটি বই প্রকাশ করেছে ‘কিছু কথা’।

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সিনিয়র মেডিকেল অফিসার ডা. সাজিয়া আফরিন গ্রুপটির প্রতিষ্ঠাতা। বর্তমান এডমিন প্যানেলে আছেন একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজার কৌশিক বিশ্বাস, চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে এ্যানেস্থেসিয়া বিভাগের কনসালট্যান্ট ডা.মৌমিতা দাশ ও রাঙ্গুনিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডা.আকীক দে। মডারেটরের দায়িত্বে থেকে গ্রুপ পরিচালনা করছেন সাদিয়া আফরিন, ঝর্ণা ফারহানা, জিনাত রোমানা, সুপ্তি বিশ্বাস ও ফারহানা আহসান।

‘কিছু কথা’র প্রকাশিত বইগুলো হলো-সাজিয়া আফরিন সম্পাদিত ‘কাব্যে গল্পে কিছু কথা’, তার লেখা ‘দ্বিতীয় প্রহর’, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (চমেক) অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. শামীম হাসানের লেখা ‘ব্যালকনি রোদ চিলেকোঠা ছায়া’ ও কবি পূরবী বড়ূয়ার লেখা ‘প্রতীক্ষার শরৎ’। এর ম‌ধ্যে কাব্যে গল্পে কিছু কথা বইটিতে লিখেছেন ৩৪ জন। যার বেশিরভাগই তরুণ লেখক। বইটি ভাষা শহীদ ও মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি উৎসর্গ করা হয়েছে।

ঢাকার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ৪৩৪ নম্বর স্টল ও চট্টগ্রামের এম.এ. আজিজ স্টেডিয়াম সংলগ্ন জিমনেশিয়াম প্রাঙ্গণে খড়িমাটির ১৬৪ ও ১৬৫ নম্বর স্টলে পাওয়া যাচ্ছে ‘কিছু কথা’র বইগুলো।

‘কিছু কথা’র প্রতিষ্ঠাতা ডা. সাজিয়া আফরিন জানান, ইন্টারনেট সহজলভ্য হওয়ায় এখনকার তরুণরা ভার্চুয়াল জগতে মজে আছে। অনেকেই অন্ধকার জগতের মধ্যে অনেক খারাপ কিছু আত্মস্থ করছে। সেখান থেকে বেরিয়ে নিজেকে ভালো অবস্থানে নিতে একটা প্লাটফর্ম প্রয়োজন।

তিনি জানান, অনেকের মাঝে ছোটবেলা থেকে সাহিত্য সংস্কৃতির ব্যাপারটা গড়ে ওঠে কিন্তু একটা নির্দিষ্ট প্লাটফর্ম না থাকায় লুকায়িত প্রতিভা উঠে আসে না। সেগুলো তুলে ধরতেই আমাদের অনলাইন গ্রুপ করা। এখানে আমরা প্রচুর তরুণ লেখক পেয়েছি।

তিনি আরও জানান, এভাবে সাহিত্য জগতে কিছুকথা জুড়ে থাকবে নিজেদের প্রকাশনী সংস্থা নিয়ে। আগামী বছর বইমেলায় আমাদের ২০টি বই বের করার ইচ্ছা রয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/১৫ফেব্রুয়ারি/এসএস/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

সাহিত্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :