সাকিব না থাকাতে টেস্টে হারছে বাংলাদেশ!

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২০:৫৬

আসন্ন এক টেস্টের সিরিজে জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে পুরনো আত্মবিশ্বাস ফিরে পেতে চায় বাংলাদেশ, এমনটাই জানালেন দলের বাঁ-হাতি স্পিনার তাইজুল ইসলাম। বড় ফরম্যাটে টানা ছয় ম্যাচ হেরে আত্মবিশ্বাসে চিড় ধরেছে বাংলাদেশের, এটি বলার অপেক্ষা রাখে না। তাই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে জয় তুলে হারের বৃত্ত থেকে বের হবার পাশাপাশি পুরনো আত্মবিশ্বাস ফিরে পেতে মরিয়া টাইগাররা।

২০১৮ সালের নভেম্বরে ঢাকায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্ট ফরম্যাটে জিতেছিল বাংলাদেশ। এরপর টানা ছয় ম্যাচের হারের লজ্জা পায় টাইগাররা। এর মধ্যে পাঁচটিই ছিল ইনিংস ব্যবধানে হার। নিউজিল্যান্ড-ভারতের কাছে দু’টি ম্যাচে ও পাকিস্তানের কাছে একটি ম্যাচে ইনিংস ব্যবধানে হারে বাংলাদেশ।

ইনিংস ব্যবধানে হারের পাঁচটি ম্যাচই ছিল দেশের বাইরে। আর ইনিংস ব্যবধান ছাড়া হেরে যাওয়া ম্যাচটি ছিলো দেশের মাটিতে। সেটি আবার টেস্ট ক্রিকেটের পুঁচকে দল আফগানিস্তানের কাছে। গত সেপ্টেম্বরে হওয়া টেস্টে ২২৪ রানের বড় ব্যবধানে হারে বাংলাদেশ।

তবে জিম্বাবুয়ে দলে বাংলাদেশের জন্য বড় হুমকি হবার মত কোন খেলোয়াড় নেই। যেমনটা আফগানিস্তান দলে রশীদ খানের মত স্পিনার ছিলেন।

তারপরও জিম্বাবুয়েকে হালকাভাবে নিতে রাজি নন তাইজুল। আফ্রিকান দেশটির বিপক্ষে ভালো খেলার জন্য প্রত্যয়ী তারা। মঙ্গলবার বাংলাদেশের অনুশীলন সেশনে তাইজুল বলেন, ‘আমাদের প্রতিপক্ষ কে, সেটি বড় বিষয় নয়। আমরা টেস্টটি জিততে চাই। এই টেস্টটি জয় আমাদের জন্য অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। যদি আমরা জিততে পারি, তবে আমাদের আত্মবিশ্বাস বাড়বে। যা এই মুহূর্তে আমাদের জন্য অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ।’

দেশের মাটিতে পাওয়া বাড়তি সুবিধা কাজে লাগিয়ে ম্যাচ জিততে চান তিনি, ‘যখন আমরা দেশের মাটিতে খেলি, সেটি আমাদের বাড়তি সুবিধা দেয়। দেশের মাটিতে সবাই জিততে চায়। আমি মনে করি, দেশের মাটিতে ভালো করাটাই স্বাভাবিক।’

তাইজুলের ক্যারিয়ার সেরা বোলিং ফিগার জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেই। ৩৯ রানে ৮ উইকেট শিকার করেছিলেন তিনি। এমন পারফরম্যান্সে দলের প্রধান স্পিনার সাকিব আল হাসানের পরই তাকে সেরা স্পিনারের স্বীকৃতি দেয়। তাই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বাংলাদেশ খেললেই স্বাভাবিকভাবে তাইজুলের নাম চলে আসে।

কিন্তু এমন স্বীকৃতি পছন্দ নয় তাইজুলের। জিম্বাবুয়ে ছাড়াও অন্য দলের বিপক্ষে উইকেট শিকারে পারদর্শীতা রয়েছে তার বলে জানান তাইজুল, ‘এটি এমন নয় যে, আমি শুধুমাত্র জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে উইকেট শিকার করি। অন্যান্য প্রতিপক্ষের বিপক্ষেও উইকেট শিকার করেছি। আমি আগেও বলেছি, প্রতিপক্ষ যেই হোক-না কেন সঠিক লাইনে বল করতে হবে। যদি ভালো বল না করা যায়, তবে জিম্বাবুয়ে ব্যাটসম্যানরা প্রতিরোধ গড়ে তুলবে।’

নিষেধাজ্ঞার কারণে সব ধরনের ক্রিকেট থেকে দূরে রয়েছেন দলের সেরা খেলোয়াড় সাকিব আল হাসান। তাই গেল কয়েক মাসের মত আসন্ন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্টেও সাকিবকে মিস করবে বাংলাদেশ। এমনটা স্পষ্ট তাইজুলের ভাষ্যে, ‘সাকিব ভাইয়ের মতো আমরা ভালো স্পিনার নই। সাকিব ভাই যখন থেকে দলে নেই আমরা তখন থেকেই টেস্ট হারছি।’

সাকিবের শূন্যতা পূরণে দলের অন্যান্য স্পিনাররা কতটা প্রস্তুত, এমন প্রশ্নের জবাবে তাইজুল বলেন, ‘সাকিব ভাইয়ের মানের কোনো স্পিনারই এখন দলে নেই। তাই বাংলাদেশের যদি কোন টেস্ট জিততে হয়, তবে সবার আগে সাকিব ভাইয়ের মানের স্পিনার দলে আসতে হবে।’

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে বাংলাদেশ দলে তিন স্পিনার রেখেছে জাতীয় দলের নির্বাচকরা। তাইজুল ছাড়া আরও আছেন- মেহেদী হাসান মিরাজ ও নাঈম হাসান।

(ঢাকাটাইমস/১৮ ফেব্রুয়ারি/এসইউএল)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :