তিন মামলায় স্বামীসহ পাপিয়া ১৫ দিনের রিমান্ডে

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৮:২৫ | প্রকাশিত : ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৬:৩৯

পৃথক তিন মামলায় নরসিংদী জেলা যুব মহিলা লীগের (বর্তমানে বহিষ্কৃত) সাধারণ সম্পাদক শামীমা নূর পাপিয়া ও তার স্বামী মো. মফিজুর রহমান ওরফে সুমন চৌধুরীর ১৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে সিএমএম আদালত।

অস্ত্র ও বিশেষ ক্ষমতা আইনের ওই মামলাগুলোয় সোমবার ঢাকা সিএমএম আদালত প্রত্যেক মামলায় পাঁচ দিন করে এই রিমান্ড মঞ্জুর করে।

এদিকে পাপিয়ার সঙ্গে গ্রেপ্তার হওয়া অপর দুই আসামি সাব্বির খন্দকার ও শেখ তায়্যিবা নুরের এক মামলায় পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত।

সোমবার দুপুর দেড়টার দিকে পাপিয়াসহ চার আসামিকে প্রিজনভ্যানে বিমানবন্দর থানা থেকে সিএমএম আদালতে আনার পর হাজতখানায় রাখা হয়। এরপর বেলা সাড়ে ৩টায় তাদের সিএমএম আদালতের দ্বিতীয় তলার ২৭ নম্বর কক্ষে তিন মামলায় দশ দিন করে ৩০ দিনের রিমান্ড আবেদনের শুনানির জন্য কাঠগড়ায় ওঠানো হয়।

প্রথমে বিমানবন্দর থানার বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলায় চার আসামিরই ১০ দিনের এবং পরে শেরেবাংলানগর থানার অস্ত্র ও বিশেষ ক্ষমতা আইনের দুই মামলায় পাপিয়া ও তার স্বামীর ১০ দিন করে ২০ রিমান্ড আবেদনের ওপর শুনানি হয়।

সেখানে রাষ্ট্রপক্ষে অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর তাপস কুমার পাল, সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর আজাদ রহমান ও হেমায়েত উদ্দিন খান হিরণ জামিনের বিরোধিতা করে এবং রিমান্ডের পক্ষে শুনানি করেন।

অন্যদিকে আসামি পক্ষে অ্যাডভোকেট জাহিদ হোসেন, ইলতুৎমিশ সওদাগরসহ প্রমুখ আইনজীবী রিমান্ড বাতিল করে জামিনের আবেদন করেন। সেখানে গ্রেপ্তারের দুদিন পর আসামিদের আদালতে হাজির করায় আইন লঙ্ঘন হয়েছে মর্মে আইনজীবীরা প্রশ্ন তোলেন। একই সঙ্গে উদ্ধার দেখানো টাকা, অস্ত্র ও মাদক নাটক বলেও তারা উল্লেখ করেন। দুদিন পর আদালতে হাজির করায় রিমান্ডের আর প্রয়োজন নেই বলেও আইনজীবীরা উল্লেখ করেন।

শুনানি শেষে সকল আসামির জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে ঢাকা মহানগর হাকিম মাসুদুর রহমান বিমানবন্দর থানার মামলায় পাঁচ দিনের এবং ঢাকা মহানগর হাকিম মোহাম্মাদ জসিম শেরেবাংলানগর থানার দুই মামলায় পাঁচ দিন করে ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। একই সঙ্গে নারী আসামিকে রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদের সময় মহিলা পুলিশের উপস্থিতিতে জিজ্ঞাসাদেরও নির্দেশ দেয়া হয়।

এর আগে গত ২২ ফেব্রুয়ারি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে দেশত্যাগের সময় পাপিয়াসহ আসামিদের গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। গ্রেপ্তারের সময় পাপিয়ার কাছ থেকে দুটি পাসপোর্ট, নগদ এক লাখ ৭৮ হাজার টাকা, ১৬টি এক হাজার টাকার জাল নোট, পাপিয়ার স্বামী সুমনের কাছ থেকে দুটি পাসপোর্ট, নগদ ১৫ হাজার টাকা, ১১ হাজার ৪৮১ ইউএস ডলার, ৩০১ ভারতীয় রুপি, ৪২০ শ্রীলংকান রুপি, আসামি সাব্বিরের কাছ থেকে দুটি পাসপোর্ট, নগদ পনেরশ টাকা, চারটি এক হাজার টাকার জাল নোট ও ছয়টি একশ টাকার জালনোট এবং আসামি তায়্যিবার কাছ থেকে একটি পাসপোর্ট, নগদ ১৭ হাজার ৫০০ টাকা, দুইটি ডেভিড কার্ড উদ্ধার হয়। ওই ঘটনায় রিমানবন্দর থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে একটি মামলা করে র‌্যাব। পরে তাদের জিজ্ঞাসাবাদে পাপিয়া ও তার স্বামীদের দেয়া তথ্য মতে তাদের শেরেবাংলানগর থানাধীন ফার্মগেটস্থ ইন্দিরা রোডের বাসায় গত রবিবার ভোরে অভিযান চালিয়ে একটি অবৈধ অস্ত্র, দুটি পিস্তলের ম্যাগজিন, ২০ রাউন্ড পিস্তলের গুলি ও পাঁচ বোতল বিদেশি মদ ও নগদ ৫৮ লাখ ৪১ হাজার টাকা, পাঁচটি পাসপোর্ট, তিনটি চেক, বিদেশি মুদ্রা, বিভিন্ন ব্যাংকের ১০টি ভিসা ও এটিএম কার্ড জব্দ করে র‌্যাব। ওই ঘটনায় শেরেবাংলানগর থানায় পাপিয়া ও তার স্বামীর বিরুদ্ধে অস্ত্র ও বিশেষ ক্ষমতা আইনে পৃথক দুই মামলা করে র‌্যাব।

(ঢাকাটাইমস/২৪ফেব্রুয়ারি/আরজেড/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আদালত বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :