দিল্লিতে মধ্যরাতে রায় দেয়া সেই বিচারপতিকে বদলি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১০:৫০

ভারতের রাজধানী দিল্লিতে ভয়াবহ সহিংসতা নিয়ে মঙ্গলবার মধ্যরাতে রায় দেয়া হাইকোর্টের বিচারপতি এস মুরলিধরকে বদলি করা হয়েছে। এদিন রায়ে তিনি এই ঘটনার জন্য কেন্দ্রীয় ও রাজ্য সরকার এবং দিল্লি পুলিশের সমালোচনা করেছিলেন। এর একদিন পরই তাকে বদলি করা হলো।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি বৃহস্পতিবার জানিয়েছে, বুধবার এস মুরলিধরকে পাঞ্জাব ও হরিয়ানা হাইকোর্টে বদলি করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, দিল্লির হিংসায় এখনও পর্য‌ন্ত ২৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহতের সংখ্যা দুই শতাধিক।

দিল্লি হাইকোর্টের তৃতীয় সর্বোচ্চ পদাধিকারী বিচারপতি জাস্টিস এস মুরলিধরের বদলির বিজ্ঞপ্তি বুধবার রাতে ইস্যু করেছে মোদি সরকার। ১২ ফেব্রুয়ারি সুপ্রিম কোর্ট কলেজিয়াম থেকে এটি সুপারিশ করা হয়েছিল। সেই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, প্রধান বিচারপতির সঙ্গে আলোচনা করে রাষ্ট্রপতি বিচারপতি মুরলিধরকে পাঞ্জাব ও হরিয়ানা কোর্টের বিচারপতি হিসেবে নিযুক্ত করা হল।

গত সপ্তাহে দিল্লি হাইকোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশন সুপ্রিম কোর্ট কলেজিয়ামের এই সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে সিদ্ধান্তটি প্রত্যাহার করে নিতে আর্জি জানিয়েছিল।

বুধবার বিচারপতি মুরলিধর বলেন, ‘আমরা আর একটা ১৯৮৪ এর মতো ঘটনা হতে দিতে পারি না দেশে’। তিনি কেন্দ্রীয় সরকার ও দিল্লি সরকার— উভয়কেই নির্দেশ দিয়েছিলেন দিল্লির হিংসা রদে একসঙ্গে কাজ করতে।

চার বিজেপি নেতা কপিল মিশ্র, অনুরাগ ঠাকুর, অভয় ভার্মা ও পরবেশ ভার্মার উস্কানিমূলক ভাষণের ভিডিওকে কেন্দ্র করে দায়ের হওয়া পিটিশনের শুনানিতে বিচারপতি মুরলিধর ওই মন্তব্য করেছিলেন। তিনি প্রশ্ন তুলেছিলেন, কেন ওই চার বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়নি। তিনি দিল্লির পুলিশ প্রধানকে এফআইআর না দায়ের করার পরিণতি গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করার কথা বলেন।

সেই সময় কেন্দ্রের পক্ষে সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা জানিয়েছিলেন, এফআইআর সঠিক সময়েই দায়ের হবে। একথায় বিচারপতি মুরলিধর প্রশ্ন তোলেন, ‘কোনটা সঠিক সময়, মিস্টার মেহতা? শহর জ্বলছে’।

ঢাকা টাইমস/২৭ফেব্রুয়ারি/একে

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :