নগর সবুজায়নের পরিকল্পনা বাস্তবায়নে বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠন

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০৬ জুন ২০২০, ১৯:৩৬ | প্রকাশিত : ০৬ জুন ২০২০, ১৬:৫৭

রাজধানী ঢাকাকে সবুজায়নের আওতায় নিয়ে আসতে মহা পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে গঠন করা হয়েছে বিশেষজ্ঞ কমিটি।

বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে গতকাল রাত সাড়ে নয়টা থেকে সাড়ে দশটা পর্যন্ত এক ভিডিও কনফারেন্সের মধ্য দিয়ে নগর সবুজায়নের মহা পরিকল্পনার বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠন ও ঢাকা সবুজায়নের রূপরেখা তৈরির উদ্যোগ নেয়া হয়।

গ্রিন সেভার্সের উদ্যোগে কার্যক্রমের সূচনা করেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম।

মেয়র বলেন, ‘সারা ঢাকাবাসী আজ সৌভাগ্যবান। আপনাদের এতো বড় প্লাটফর্ম আমরা পেয়েছি। নগর বনায়নের জন্য আন্দোলন করবেন। আমি নেতৃত্ব দেব। আগামীকাল থেকেই আমরা গাছ লাগাব। আর কোথাও অপ্রয়োজনে একটি গাছও কাটতে দেয়া যাবে না। বনায়নের শুরু হোক এখান থেকেই। ৪ থেকে ৫ ফিট গাছ রোপন করা যেতে পারে। আবার বৃক্ষ ব্যবস্থাপনা ঠিকমতো হচ্ছে না। গাছের পেছনে প্রচুর অর্থ ব্যয় হচ্ছে।‘

মেয়র আরও বলেন, ‘আমাদের ঢাকা শহরে যেসব খাল রয়েছে, সেগুলো পরিকল্পনা করে বিভিন্ন কর্পোরেট প্রতিষ্ঠানকে প্রেজেন্টেশন করতে পারি। এতে তারাও এগিয়ে আসবে।‘

ডিএনসিসি মেয়রের পরিকল্পনায় রাজধানীর গাবতলীতে গ্রীন সেভার্সের মাধ্যমে যে গাছের হাসপাতাল নির্মাণের পরিকল্পনা চলমান, তার মূল সমন্বয়ক ও নগর কৃষি বিশেষজ্ঞ আহসান রনি বলেন, ‘আগের ঐতিহ্য ফিরে আসুক। প্রত্যেকটি গাছের অভিভাবক তৈরি হোক। অভিভাবকের দায়িত্ব নিতে পারে সিটি করপোরেশন। আমরা চাই প্রতিটি গাছ শুধু রোপন নয়, যত্ন ও লালন নিশ্চিত করা হোক। কোথায় কোন গাছ কবে লাগাবো, সেই নিশ্চয়তাও এই পরিকল্পনার মধ্যে পেতে চাই।‘

তিনি আরও বলেন, ‘গাছ লালন করা য়ে। আমাদের বৃক্ষ রোপন করলেই হবে না। যত্ন ও লালন করতে হবে। গাছ রোপনের বিষয়টি ডাটাবেইজের মাধ্যমে পরিকল্পনার আওতায় আনতে হবে। কোন গাছ লাগালে ফুলের গন্ধ আসবে, কোন গাছ লাগালে মশা চলে যাবে, কোন গাছ লাগালে বাচ্চাদের নিয়ে ঘুরতে পারি। এরকম একটি মাস্টার প্লান করতে হবে।‘

স্থপতি ইকবাল হাবিব বলেন, ‘পেশাজীবী, পরিবেশকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে ঢাকাকে পরিকল্পিতভাবে নগরায়ণ করতে একটি প্লাটফর্মে কাজ করার জন্য ‘নগর বনায়নের মহা পরিকল্পনা’ শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। আমরা ১০টি হাত এক করতে চাই। মেয়র মহোদয়ের নেতৃত্বে পরিকল্পিত নগর বনায়ন করতে চাই। প্রথমে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন থেকে কাজ শুরু হলেও একে একে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন, গাজীপুর সিটি করপোরেশন, নারায়নগঞ্জ সিটি করপোরেশনের আওতায় বাস্তবায়নমুখী নগর বনায়ন পরিকল্পনা আমাদের রয়েছে। নগর বনায়নের মহাপরিকল্পনার একটি বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠন করত: বিজ্ঞানসম্মত, অর্থনীতি নির্ভর, গবেষণাধর্মী, বাস্ববধর্মী, বাস্তবায়নমুখী পরিকল্পনার রূপরেখা সিটি করপোরেশনের মেয়রের কাছে অতি দ্রুত পেশ করা হবে।‘

গ্রীন সেভার্সের উদ্যোগে স্থপতি ও নগরবিদ ইকবাল হাবিবের সমন্বয়ে এই অনুষ্ঠানের আলোচক ছিলেন উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব প্ল্যানার্স-এর প্রেসিডেন্ট ড. আকতার মাহমুদ, ইনস্টিটিউট অব আর্কিটেক্টস বাংলাদেশ-এর প্রেসিডেন্ট জালাল আহমেদ, ইনস্টিটিউট অব ফরেস্টার্স বাংলাদেশ-এর প্রেসিডেন্ট ইশতিয়াক উদ্দিন আহমেদ, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক (সম্প্রসারণ ও কো-অর্ডিনেশন) মাহফুজ হোসেন মিরদাহ, নিসর্গী ও লেখক মোকাররম হোসেন, ইউএস ফরেস্ট সার্ভিস ইন বাংলাদেশ এর কান্ট্রি কো-অর্ডিনেটর আশরাফুল হক, শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যানতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক ড. আ ফ ম জামাল উদ্দিন, ইউএস ফরেস্ট সার্ভিস ইন্টারন্যাশনাল প্রোগ্রামের আরবান আউটরিচ পার্টনাশিপস স্পেশালিস্ট লাইজা পাকুয়ো, ইউএস ফরেস্ট সার্ভিস ইন্টারন্যাশনাল প্রোগ্রামের প্রোগ্রাম স্পেশালিস্ট মাইকেল রিযো এবং গ্রিন সেভার্সের প্রতিষ্ঠাতা আহসান রনি।

ঢাকাটাইমস/০৬জুন/কারই/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :