ক্যানবেরাতে ফটো প্রদর্শনীর মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুকে স্মরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৯:৫৯

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদ্যাপনের অংশ হিসেবে তার জীবন ও কর্মের ওপর ভিত্তি করে আজ অস্ট্রেলিয়ার রাজধানী ক্যানবেরার মানুকা আর্ট সেন্টারে‘হুও ডেভিস’ গ্যালারিতে ফটোপ্রদর্শনীর উদ্বোধন করা হয়।

বাংলাদেশ হাইকমিশন আয়োজিত সপ্তাহব্যাপী এই ফটো প্রদর্শনীটি ১৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

ফটো প্রদর্শনীতে বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক নেতা হিসেবে গড়ে উঠা, বাঙালির অধিকার ও মুক্তির সকল আন্দোলনে নেতৃত্ব দান, তৎকালীন বিশ্ব নেতৃবৃন্দের সাথে বঙ্গবন্ধুর যোগাযোগ ও সখ্যতা ছাড়াও ব্যক্তি মুজিব ও পারিবারিক জীবনের মুজিবকেও বিভিন্ন দূর্লভ ছবির মাধ্যমে তুলে ধরা হয়েছে।

প্রায় একশত অতিথির উপস্থিতিতে বুধবার বিকালে বঙ্গবন্ধু ফটো প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন বাংলাদেশের হাইকমিশনার সুফিউর রহমান এবং ভারত, রাশিয়ার রাষ্ট্রদূতসহ ২৫টি দেশের মিশন প্রধান।

এতে অস্ট্রেলিয়ার বিভিন্ন রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ ও ফেডারেল কর্মকর্তাসহ অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী বাংলাদেশিরা অংশগ্রহণ করেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আলোচনা পর্বে অংশগ্রহণ করেন বাংলাদেশ হাইকমিশনার, ক্যানবেরা রাজধানী সরকারের বিরোধী দলীয় নেতা এলিস্টার কো, অস্ট্রেলিয়ায় নিযুক্ত ভারতের রাষ্ট্রদূত গীতেশ শর্মা, বাংলাদেশে নিযুক্ত অস্ট্রেলিয়ার সাবেক রাষ্ট্রদূত জুলিয়া নিবলেট, ফটো এক্সেস এরডিরেক্টর ড. ক্রিসটেনওয়েনারসহ অন্যান্য বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।

আলোচকরা বঙ্গবন্ধুর জীবন ও ইতিহাস প্রচারে এ ধরনের প্রদর্শনী আয়োজনের ভূয়সী প্রশংসা করেন। আলোচনা অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ হাইকমিশনারের বক্তব্যের প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল জাতি-ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সকল বাঙালিকে একত্রিত করে অবিসংবাদিত নেতা হিসেবে কীভাবে বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জনে নেতৃত্ব দেন। হাইকমিশনার বঙ্গবন্ধুকে যুগোপৎভাবে ইতিহাসের সৃষ্টি ও স্রষ্টা হিসেবেও উল্লেখ করেন।

উপস্থিত বিশিষ্ট অতিথিদের নিয়ে আলোচনা পর্ব শেষে ফিতা কাটার মধ্য দিয়ে ফটো প্রদর্শনীর উদ্বোধন করা হয়।

ফটো প্রদর্শনীতে শুধু বঙ্গবন্ধুর দুর্লভ ছবিই নয়, তার ৭ মার্চ ভাষণের লেখচিত্র, বঙ্গবন্ধু কর্তৃক স্বাধীনতা ঘোষণাপত্র, বাংলাদেশের সংবিধানের বিভিন্ন মৌলিক অংশও এতে প্রদর্শিত হচ্ছে। এ ছাড়াও প্রদর্শনীতে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ, স্বদেশ প্রত্যাবর্তন, বিভিন্ন সাক্ষাৎকারসহ ১০টি ভিডিওচিত্রও প্রদর্শিত হচ্ছে।

উদ্বোধনী দিনে করোনা ভাইরাসজনিত মহামারির জন্য যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে একশত অভ্যাগতের সীমার মধ্যে বিশজনের দলের অতিথিরা ফটো প্রদর্শনী পরিদর্শন করেন। বাংলাদেশ হাইকমিশনের পক্ষ থেকে সবাইকে ১৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত যথাযথভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ফটো প্রদর্শনীটি পরিদর্শনের জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করা হয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/০৯সেপ্টম্বর/এনআই/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

প্রবাসের খবর বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

প্রবাসের খবর এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :