ইসলাম নিয়ে কটূক্তি: নোবিপ্রবির দুই শিক্ষার্থীর বহিষ্কার দাবি

নোবিপ্রবি প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৭ অক্টোবর ২০২০, ২১:৩৭

ইসলাম ধর্ম নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী প্রতীক মজুমদার এবং একই শিক্ষাবর্ষের ফার্মেসি বিভাগের শিক্ষার্থী পাল দীপ্তকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্থায়ী বহিষ্কারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের পাদদেশে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ব্যানারে মানববন্ধন শেষে তারা বিক্ষোভ মিছিল করেন। এসময় সাধারণ শিক্ষার্থীরা প্রতীক মজুমদার ও দীপ্ত পালকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্থায়ী বহিষ্কারের দাবি জানান।

সমাবেশে সাধারণ শিক্ষার্থীরা বলেন, অনতিবিলম্বে ইসলাম ধর্ম নিয়ে কটূক্তিকারী প্রতীক মজুমদার ও পাল দীপ্তকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্থায়ী বহিষ্কার করতে হবে। এছাড়া এদের অতিদ্রুত আইনের আওতায় নিয়ে এসে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে। নাহলে আমরা বৃহৎ আন্দোলন গড়ে তুলব।

মানববন্ধনে ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের শিক্ষার্থী বায়েজীদুল ইসলাম মজুমদার বলেন, ভারতবর্ষের ইতিহাসে আমরা যেসব ধর্মীয় দাঙ্গার জঘন্য ঘটনা দেখতে পাই- বর্তমানে বাংলাদেশে ইচ্ছাকৃত অথবা অনাইচ্ছাকৃতভাবে সেসব দাঙ্গা লাগানোর অপচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে এই প্রতিক মজুমদাররা। এদের যদি এখনই না রুখা হয়, তাহলে এদের মাধ্যমেই ধর্মীয় দাঙ্গা লাগবে আমাদের এই স্বপ্নের দেশে। স্থায়ী বহিষ্কার ছাড়া আর কোন বিকল্প হতে পারে না। এদের স্থায়ী বহিষ্কার চাই।

মানববন্ধনে এছাড়াও ফার্মেসি বিভাগের সোহাগ মিয়া, বায়োটেকনোলজি অ্যান্ড জেনেটিকস ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সালাউদ্দিন মহসিনসহ বিভিন্ন বিভাগের অনেক শিক্ষার্থীরা অভিযুক্ত শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে শিগগির ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের নিকট জোর দাবি জানান।

এই দিকে নোবিপ্রবি ক্যারিয়ার ক্লাব, শব্দ কুটির ও নোবিপ্রবি থিয়েটারের কার্যনির্বাহী কমিটির জরুরি আলোচনা শেষে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানা, ইসলাম ধর্মের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য ও সাম্প্রদায়িকতা ছড়ানোর অভিযোগে নোবিপ্রবি থিয়েটারের সাধারণ সম্পাদক, ক্যারিয়ার ক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং শব্দ কুটিরের কোষাধ্যক্ষ পদ থেকে প্রতীক মজুমদারকে বহিষ্কার করা হয়েছে বলে জানা যায়।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর বলেন, বর্তমান পৃথিবীতে বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রতির এক অনন্য উদাহরণ। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অসম্প্রদায়িক রাষ্ট্র গঠনে নিরলসভাবে কাজ করছেন। নোবিপ্রবিও কখনোই সাম্প্রদায়িকতাকে আসকারা দেয়নি, দিচ্ছে না এবং ভবিষ্যতেও দেবে না।

তিনি আরও বলেন, ইসলাম ধর্ম নিয়ে কটূক্তি বিষয়ক সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের নোবিপ্রবির দুই শিক্ষার্থীর ব্যাপারটা নোবিপ্রবি প্রশাসনের দৃষ্টি গোছর হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে আমি ভিসি ও ট্রেজারার স্যারের সাথে কথা বলেছি। প্রশাসন শিগগিরই এ ব্যাপারটি যাচাই-বাছাই করে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুযায়ী করণীয় নির্ধারণ করবে বলে আমাকে জানানো হয়েছে। এ ব্যাপারে কাউকে উস্কানিমূলক বক্তব্য না দেয়ার জন্যে অনুরোধ করছি।

(ঢাকাটাইমস/২৭অক্টোবর/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

শিক্ষা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :