কবিতা

ভাষার সাইনবোর্ড : হাসার সাইনবোর্ড

ড. নেয়ামত উল্যা ভূঁইয়া
 | প্রকাশিত : ০৭ জানুয়ারি ২০২১, ১১:৫০

‘আমি ভালো আছি’ লেখা সাইনবোর্ড

সেফটেপিনে গেঁথে ঝুলিয়ে রেখেছি বুকে,

তবু কিছু লোক জানতে চায়; আমি কেমন আছি?

তাই বুক থেকে ‘ভাষার’ সাইনবোর্ড খুলে

ঠোঁটে ঝুলিয়ে দিয়েছি ‘হাসার সাইনবোর্ড’।

তবুও তাদের অদম্য কৌতুহলে ভাঁটা পড়ে না,

জানার আগ্রহের খরগোশ সমব্যথার ট্রনে

কাটা পড়ে না।

তারা আসলে কী জানতে চায়?

তারা কি আমার সুখ দু:খের বিন্দুর বলয়

কিংবা বৃত্তের বিস্তারের ধারনা পেতে চায়?

নাকি তাদের কলমে আমার কালি ভরে

তাদের মনের মাধুরী মিশিয়ে কাহিনী বানাতে চায়?

তারা কি তাদের ওজন আমার নিক্তিতে মাপতে চায়?

নাকি তাদের তলোয়ার আমার খাঁপে রাখতে চায়?

তাদের রঙিন ঘুড়ি কি তারা আমার আকাশে উড়াতে চায়?

নাকি আমার ভালো-মন্দের চাকা তারা

তাদের খেয়ালমতে ঘোরাতে চায়?

মানুষকে নিজের ক্ষেতের চাক অন্যের জমিনে ভাঙতে দেখি না,

নিজের ক্ষেতের নাড়া অন্যর ক্ষেতে পোড়াতে দেখি না,

নিজের মাটিতে কাটা ইট অন্যের ভাটায় পোড়াতে দেখি না,

তবে নিজের দোষ যেমন অন্যের ঘাড়ে চাপাতে দেখি,

তেমনি নিজের কষ্ট অন্যের বুকেও চাপাতে দেখি।

কিন্তু এরা আসলে কী চায়?

এরা কি তাদের ঝাল-ঝাঁঝালো মরিচ

আমার চাতালে শুকাতে চায়?

নাকি তারা নেংটি ইঁদুর হয়ে

আমার জমিনের গর্তে লুকাতে চায়?

নাকি আমার ভালো থাকার সাইনবোর্ডটা

তাদের ভালো থাকার পথে কোনো অন্তরায়?

নাকি তাদের মনের বিকারের ছায়া

আমার আরশিতে ফেলতে চায়?

নাকি তাদের কল্পিত রাজ্যের সীমানা থেকে

আমাকে অন্য সীমান্তে ঠেলতে চায়?

নাকি তারা আমার ক্ষতটাকে খুঁচিয়ে

ঘা-টাকে আরো গনগনে করে তুলতে চায়?

তাদের উদ্দেশ্যে আমার তিলমাত্র বিধেয় নেই।

আমি আমার মতো করেই বলি:

আমি ভালোর সঙ্গে লুকোচুরি খেলি;

সুখের সঙ্গে খেলি কানামাছি,

এই খেলাচ্ছলে আমি প্রতিটা আহ্নিকে থাকি

স্বর্গসুখের কাছাকাছি।

আমি আমার মতো থাকায় তোমাদের মন্দ লাগলে লাগুক,

আমার মন্দ-ভালো নিয়ে আমার জগতের ড্রয়িং খাতায়

রঙিন পেন্সিলে আমি এঁকে যাবো জীবনের একান্ত সুখ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সাহিত্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :