আপনি কি টয়লেটেও ফোন নিয়ে যান?

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৮ মার্চ ২০২১, ০৯:২২

অনেকে টয়লেটে সংবাদপত্র নিয়ে ঢোকেনে। তবে আজকাল সংবাদপত্রের জায়গায় স্মার্টফোন জায়গা করে নিয়েছে। বাড়ির সমস্ত জায়গার মধ্যে সর্বাধিক জীবাণু বাথরুমে পাওয়া যায়। এখানে ট্যাপ, হ্যান্ড ড্রায়ার, ডোর ল্যাচ হল সর্বাধিক জীবাণু, যা আপনি কখনও দেখেননি। আপনি যদি টয়লেটেও মোবাইল নিয়ে যান তবে অভ্যাসের পরিবর্তন করুন। কারণ আপনার এই বদ অভ্যাস অনেক সংক্রামক রোগের শিকার করতে পারে। শুধু এটিই নয়, আপনাকে গুরুতর রোগ বাসা বাঁধতে পারে শরীরে। এমনটাই মত বিশেষজ্ঞদের।

গবেষকেরা জানিয়েছেন, টয়লেটের ভিজা পরিবেশে ব্যাকটিরিয়া দ্রুত বংশবৃদ্ধি করে। ঠিক ভাবে হাত না ধোওয়া বা টয়লেট ব্যবহারের সময় সেই জায়গায় মোবাইল রাখার ফলে তাতে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে সালমোনেল্লা, ই.কোলাই, সিগেল্লা এবং ক্যামফাইলোব্যাকটরের মতো ব্যাকটিরিয়া।

ফোনের টাচস্ক্রিনে গ্যাসট্রো এবং স্ট্যাপের মত ক্ষতিকর ভাইরাস জন্মাতে পারে বলে মত বিশেষজ্ঞদের। টয়লেটে ব্যবহারের পর সেই ফোন আমরা বিছানায় বা খাবার জায়গায় রাখি এবং সেখানেও ব্যবহার করি।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, মোবাইলে বাসা বাঁধা এই ক্ষতিকর ভাইরাস ও ব্যাকটিরিয়া খাবারের সঙ্গে লালায় মিশে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে শরীরে।

বাথরুমে ফোন নিয়ে যাওয়া কতটা বিপজ্জনক হতে পারে তা আপনি ভাবতে পারেন না।

অ্যারিজোনা বিশ্ববিদ্যালয়ের শাওয়ারদের একটি গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে, টয়লেট আসনের চেয়ে স্মার্টফোনে ১০ গুণ বেশি ব্যাকটিরিয়া থাকে। বাথরুম ব্যবহারের পর হাত ধুয়ে ফেলি, তবে স্মার্টফোনটি পরিষ্কার করতে ভুলে যাই। ফলস্বরূপ রোগজনিত জীবাণু এবং ব্যাকটেরিয়া তাদের সঙ্গে আটকে থাকে যা সহজেই সংক্রমণের কারণ হয়ে থাকে।

প্রযুক্তিটি আমাদের জীবনকে কতটা সহজ করে তুলেছে তা নয়, তবে সর্বদা এর ব্যবহার আপনাকে মানসিক চাপ দেওয়ার একটি বড় কারণও বটে। এমনকি যদি আপনি বাথরুমেও ফোনটি ব্যবহার করতে থাকেন তবে স্ট্রেস এবং হতাশা থাকা স্বাভাবিক। বাথরুমে ফোনটি নিয়ে, আপনি আপনার মন এবং স্বাস্থ্য উভয়ই নিয়ে খেলছেন।

বাথরুমে পাওয়া জীবাণুতে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বেশি। আপনি যদি বাথরুমে আপনার ফোন ব্যবহার করেন তবে আপনার নিরাপদ থাকা এবং স্বাস্থ্যকরতা বজায় রাখা আপনার পক্ষে খুব জরুরি। টয়লেটে যাওয়ার সময় সবচেয়ে ভালো বিকল্পটি ফোনটি বাইরে রেখে দেওয়া। যদি প্রয়োজন হয়, তবে এটি পরে অ্যালকোহল-ভিত্তিক স্যানিটাইজার দিয়ে ভালো করে পরিষ্কার করুন। এছাড়াও টয়লেটে খুব বেশি সময় ব্যয় না করার চেষ্টা করুন।

(ঢাকাটাইমস/৮মার্চ/এজেড)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :