ওয়েবিনারে বক্তারা

‘নারীরা এখনো অনেক ক্ষেত্রে পিছিয়ে’

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১০ মার্চ ২০২১, ১২:৩৯ | প্রকাশিত : ১০ মার্চ ২০২১, ১২:৩৮

অনেক চড়াই উৎরাই পেরিয়ে দেশের নারীরা বর্তমানের অবস্থানে এসেছে। তবে এখনও সমাজে নারীর প্রতি অমর্যাদাকর পরিবেশ ও আচরণ রয়েছে। নারীরা এখনও বিভিন্ন ক্ষেত্রে পিছিয়ে রয়েছে।

‘উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার আলোকে শত বছরে নারীদের পরিবর্তন ও চ্যালেঞ্জ এবং কোভিড-১৯ পরিস্থিতি’ শীর্ষক এক আর্ন্তজাতিক অনলাইন সম্মেলনে এসব কথা বলেছেন বক্তারা।

বক্তারা বলেন, কোভিড-১৯ অনেক নারীকে বেকারত্বের দিকে ঠেলে দিয়েছে। এসব চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় সরকার ও সমাজের মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে। এ ব্যাপারে নানামুখী উদ্যোগ নেয়া জরুরি। একইসঙ্গে সমাজে প্রতিষ্ঠিত হতে নারীদের নিজেদেরও এগিয়ে আসতে হবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওমেন অ্যান্ড জেন্ডার অধ্যয়ন বিভাগের উদ্যোগে এবং ইউএনডিপি, ইউকেএআইডি ও নগর উন্নয়ন সাংবাদিক ফোরাম, বাংলাদেশের সহযোগিতায় দুদিন ব্যাপী এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

বুধবার সম্মেলনের শেষ সেশন অনুষ্ঠিত হবে। সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. মো. আখতারুজ্জামান।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওমেন অ্যান্ড জেন্ডার অধ্যয়ন বিভাগের চেয়ারপারসন সানজিদা আক্তারের সভাপতিত্বে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগের সম্মানিত ফেলো ও রাষ্ট্রবিজ্ঞানী প্রফেসর রওনাক জাহান। সহকারী অধ্যাপক অদিতি সবুরের সঞ্চালনায় ঢাবির সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর সাদেকা হালিম বক্তব্য রাখেন।

বিশেষ অতিথির আলোচনা করেন ঢাবির ওমেন অ্যান্ড জেন্ডার অধ্যয়ন বিভাগের ইমেরিটাস অধ্যাপক নাজমা চৌধুরী, ইউএনডিপির প্রান্তিক জনগোষ্ঠির জীবনমান উন্নয়ন প্রকল্প পরিচালক আব্দুল মান্নান, ব্রিটিশ হাইকমিশনের কর্মকর্তা ফারজানা মোস্তফা, ইউডিজেএফবির সহ-সভাপতি কামরুন নাহার।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ঢাবি ভিসি আখতারুজ্জামান বলেন, নানা প্রতিকূলতা স্বত্ত্বেও নারীরা বিভিন্ন ক্ষেত্রে এগিয়ে যাচ্ছে। তবে নারীর অগ্রযাত্রার জন্য আমাদের আরো অনেক কিছুই করার রয়েছে। স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্ত্রীর এ বছরে আমাদের জন্য নারীর জন্য কাজ করার জন্য একটি মাইলফলক হতে পারে।

ঢাবির সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর সাদেকা হালিম বলেন, এক সময় মেয়েরা স্কুল-কলেজে বিজ্ঞান বিভাগ নিতে ভয় পেত। কিন্তু এখন মেয়েরা বিজ্ঞানসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রেই এগিয়ে এসেছে। তিনি বলেন, কোভিড-১৯ অনেক নারীকে বেকারত্বের দিকে ঠেলে দিয়েছে। এসব চ্যালেঞ্চ মোকাবিলায় সরকার ও সমাজের মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে।

মূল প্রবন্ধে প্রফেসর রওনাক জাহান বলেন, শিক্ষাসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে নারী এক সময় পিছিয়ে ছিল। কিন্তু এখন ব্যবসা, কৃষি, শিক্ষা, প্রশাসন ও স্বাস্থ্যসেবা সহ সকল ক্ষেত্রে নারীরা গত ১০০ বছরে দেশে ব্যাপক পরিবর্তন সাধন করেছেন।

তিনি বলেন, লিঙ্গ বৈষম্য সত্ত্বেও মহিলারা সেনাবাহিনী, পুলিশ ও প্রশাসনে নিযুক্ত রয়েছে। বাংলাদেশ বিশ্বের একমাত্র দেশ যেখানে নারী নেতৃত্বাধীন সরকার গত ৪০ বছর ধরে বিরাজ করছে। কিন্তু তারপরও এখনও নারীদের জন্য চ্যালেঞ্জ রয়েছে। এসব সমস্যা কাটিয়ে উঠতে সবাইকে উদ্যোগী হতে হবে।

ইউডিজেএফবির সহ-সভাপতি কামরুন নাহার বলেন, মহিলারা অন্যের সাহায্যে নয়, নিজের প্রচেষ্টায় আজ প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/১০মার্চ/বিইউ/কেআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

নারীমেলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :