যেসব উপায়ে হ্যাক হতে পারে আপনার ফোন নম্বর

নাঈম লাবিব
 | প্রকাশিত : ১৯ এপ্রিল ২০২১, ০৮:৫৮

আপনি যদি কখনো স্ক্যাম বিষয়ক কোনো ডকুমেন্টারি দেখে থাকেন তবে বুঝতে পারবেন হ্যাকার কত সহজে আপনার সকল ব্যক্তিগত ও গুরুত্বপূর্ণ তথ্য নিজের আয়ত্তে নিতে পারে। আপনাকে টাকা দেয়ার লোভ দেখানোর জন্য হ্যাকারের কাছে উপায়ের অভাব নেই। তবে এর জন্য মূল যে জিনিসটি দরকার সেটি আপনার ফোন নম্বর। এখানে এরকম ৪ টি উপায় নিয়ে আলোচনা করা হলো, যেসব উপায়ে আপনার ফোন নম্বর হ্যাক হতে পারে।

ব্যক্তিগত বিবরণ- আপনার ফোন নম্বর অপব্যবহারের সর্বপ্রথম ও সহজ উপায়টি হলো আপনার ব্যক্তিগত বিবরণ সম্পর্কে অনুসন্ধান করা। প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ বার্টন কেলসো বলেছেন যে, 'বেশ কয়েকটি ওয়েবসাইট রয়েছে যা অর্থের বিনিময়ে আপনার ব্যক্তিগত তথ্য যে কারো কাছে সরবরাহ করতে পারে। প্রথমত এই ওয়েবসাইট গুলো আপনার তথ্য কিনে আপনার ফোন নম্বরসহ হ্যাকারের কাছে বিক্রি করবে। এতে আপনার নাম ঠিকানা, পরিবারের সদস্যদের নাম ঠিকানা, আপনার অপরাধমূলক রেকর্ড ইত্যাদির মত জিনিস অন্তর্ভুক্ত থাকতে পারে। আর এই তথ্যগুলোর মাধ্যমে ব্ল্যাক হ্যাকাররা আপনাকে ব্ল্যাকমেইল, লাঞ্ছনা, হেনস্তা করে নিজেদের স্বার্থ হাসিল করার চেষ্টা করতে পারে।

নম্বর পুনর্নির্দেশ করা- একজন হ্যাকারের পক্ষে আপনার ফোন প্লান সরবরাহকারীর সন্ধান করা বেশ সহজ। এজন্য প্রথমে তারা আপনার ফোন প্লান সরবরাহকারীকে আপনার বেশ ধরে কল দিবে এবং আপনার নাম্বারটি তাদের ফোনে পুনর্নির্দেশ করে নিবে। অতঃপর একজন হ্যাকারের পক্ষে আপনার ইমেইল অ্যাকাউন্ট অ্যাক্সেস করা খুবই সহজ হবে। যদিও আপনার পাসওয়ার্ড তাদের কাছে থাকবে না। কারণ তাদের কাছে যেহেতু আপনার নম্বরটাই আছে তখন তারা খুব সহজেই ফরগট পাসওয়ার্ড দিয়ে পাসওয়ার্ড রিসেট করে নিতে পারে। এভাবে তারা আপনার ইমেইল নিজের আয়ত্তে আনতে পারলে সেখান থেকে অন্য যেকোন অ্যাকাউন্টের আয়ত্ত নেয়া খুবই সহজ হবে।

স্পুফিং- আপনি হয়তো শুনে থাকবেন যে এই শব্দটি সম্প্রতি বেশ ছড়িয়ে পড়েছে। স্পুফিং অর্থ হলো কেউ আপনার ফোন নম্বরটি নকল করতে পারে। উদাহরণস্বরূপ বলা যায় ব্যাংকগুলোর সাথে এরকম ঘটনা ঘটে। এক্ষেত্রে প্রথমে দেখে মনে হবে আপনার ব্যাংক আপনাকে কল দিচ্ছে। কিন্তু প্রকৃতপক্ষে এটি সেই হ্যাকার।

যদি কোন হ্যাকারের কাছে আপনার নম্বর থেকে থাকে তবে তারা খুব সহজেই আপনি সেজে আপনার বাবা-মা বা ছেলে-মেয়ে অথবা আপনার পরিচিতজনদের কে কল দিয়ে টাকা চাইতে পারে। যুক্তরাজ্য ও নেদারল্যান্ডসের মতো দেশগুলোতে এটি বর্তমানে খুবই সাধারণ একটি সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে এবং সেখানে এই অপরাধটি করার জন্য হোয়াটসঅ্যাপের সাহায্য বেশি নেয়া হয়ে থাকে।

টেক্সট ম্যাসেজ কেলেঙ্কারি- স্পুফিং এরপর এই পদ্ধতিতে নম্বর হ্যাক করার প্রবণতা দিন দিন বেড়েই চলেছে। ধরুন আপনি আপনার ব্যাংক অথবা আপনার চিকিৎসকের কাছ থেকে আপনার ফোনে কোনো বার্তা অর্থাৎ টেক্সট ম্যাসেজ পেলেন যেখানে আপনাকে কিছু তথ্য পূরণ করতে বলা হয়েছে বা তাদেরকে কিছু অর্থ প্রদানের জন্য বলা হয়েছে কোনো কিছুর ফিস বা লটারি জেতার জন্যে। এসব ক্ষেত্রে স্ক্যামার বা হ্যাকাররা আপনার বিশ্বাসযোগ্য কেউ হওয়ার ভান করে থাকে এবং আপনার বিভিন্ন তথ্য যেমন ব্যাংক অ্যাকাউন্ট, ক্রেডিট কার্ড বিবরণ ইত্যাদি তাদেরকে প্রদানের জন্য নানা কলাকৌশল চালাতে থাকে।

যেভাবে আপনি নিজেকে এসব থেকে রক্ষা করবেন

ভার্চুয়াল ফোন নম্বর- বর্তমানে অনলাইনে আপনার নম্বরটি শেয়ার না করে অন্য কোন উপায় থাকে না। হয়তো আপনার ফেসবুক প্রোফাইলে আপনার নাম্বারটি শেয়ার না করলেন, তবে বিভিন্ন ওয়েবসাইটে একাউন্ট নিবন্ধন করতে গেলে একটি ফোন নাম্বার প্রয়োজন হয়। ডিজিটাল গোপনীয়তা বিশেষজ্ঞ রে ওয়ালশ অবশ্য এর বিরুদ্ধে সতর্ক করেছেন। তিনি আপনার ফোন নম্বরের পরিবর্তে ভার্চুয়াল নম্বর ব্যবহার করে পরামর্শ দেন। আর এসব ভার্চুয়াল নম্বর গুগল ভয়েস বা বার্নার দিয়ে তৈরি করা খুবই সহজ। এ ভার্চুয়াল নম্বরটি আপনার ফোন নম্বরকে পুনর্নির্দেশ কর।

লিংকে ক্লিক না করা- যদি কখনো আপনার ব্যাংক অথবা ডাক্তারের কাছ থেকে কোন টেক্সট ম্যাসেজ পেয়ে থাকেন এবং সেখানে কোনো লিংকের উপস্থিতি থাকে তাহলে সেই লিংকে কখনো ক্লিক করবেন না। বরং এসব ক্ষেত্রে আপনার অপারেটরের কল সেন্টারে কল করুন এবং তাদের জিজ্ঞেস করুন এ বিষয়ে। তারা যদি নিশ্চিত করে এটি তারা পাঠিয়েছে তবে তা নিরাপদ নতুবা এটি প্রতারণার একটি অংশ।

অতিরিক্ত সুরক্ষা- হ্যাকার কর্তৃক আপনার ফোন নম্বর পুনর্নির্দেশ রক্ষা করার জন্য আপনার সরবরাহকারীর নিকট কিছু বাড়তি সুরক্ষা চেয়ে রাখতে পারেন। যেমনঃ টু স্টেপ অথরাইজেশন, একাধিক পাসওয়ার্ড বা পিন সেট করা ইত্যাদি।

ঢাকাটাইমস/১৯এপ্রিল/একে

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :