স্বাদে গুণে ভরা চুইঝাল

শেখ সাইফ, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৫ এপ্রিল ২০২১, ১৬:১০ | প্রকাশিত : ২৫ এপ্রিল ২০২১, ১৩:৩৯

দেশের দক্ষিণ পশ্চিমের খুলনা অঞ্চলের মসলা জাতীয় ফসল হিসেবে চুইঝালের কদর দেশজুড়ে। এসব অঞ্চলে এখন বাণিজ্যিকভাবেও চাষ করা হচ্ছে চুইঝালের। জিভে জল আনা চুই ঝালের মাংস খেয়েছেন অনেকে। তবে আমরা অনেকেই এই মজাদার মসলাটি সম্পর্কে তেমন জানি না।

চুইঝাল গাছ দেখতে পানের লতার মতো। পাতা কিছুটা লম্বা ও পুরু। পাতায় ঝাল নেই। এই কাণ্ড বা লতা কেটে টুকরো টুকরো করে মাছ-মাংস রান্নায় ব্যবহার করা হয়। রান্নার পর সেসব টুকরো চুষে বা চিবিয়ে খাওয়া হয়। খুব ঝাল হলেও এর একটা অন্য রকম স্বাদ ও ঘ্রাণ আছে।

চুইঝাল দেশি ইউনিক মসলা জাতীয় গাছ যা বড় কোনো গাছের সাথে পেঁচিয়ে পরগাছার মতো বেড়ে ওঠে। দেশের দক্ষিণাঞ্চলের তুমুল জনপ্রিয় এই চুইঝালের বৈজ্ঞানিক নাম (Piper chaba) পেপার চাবা।

পান ও চুইঝাল একই পরিবারের দুই সহোদর। উঁচু জায়গায় চুইঝাল গাছ ভালো হয়, গোড়ায় পানি জমলে গাছ পচে যায়। যশোর, খুলনা, বাগেরহাট, সাতক্ষীরায় এর চাষ বেশি দেখা যায়। গাছে ফুল-ফল হয়। বীজ থেকে চারাও হয়। তবে শিকড়সহ গিঁট কেটে লাগালে সহজে চারা হয়।

চুইঝাল খেতে ঝাল হলেও এর রয়েছে বিভিন্ন ধরনের ঔষধি গুণ। চুইলতার শিকড়, কাণ্ড, পাতা, ফুল- ফল সবই ভেষজ গুণসম্পন্ন। এছাড়াও মসলা হিসেবেও এটি ব্যবহৃত হয়। তবে ঝাল হিসেবে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয় হাঁসের মাংস ও গরুর মাংস রান্না করতে।

চুইঝালের উপকারিতা

ক্যান্সার,হৃদরোগ,গায়ে ব্যথা,ক্ষুধামন্দা, গ্যাস্ট্রিক,এ্যাজমা, অনিন্দ্রাসহ অসংখ্য রোগের প্রতিষেধক হিসেবে দেশের চিকিৎসক এবং স্বাস্থ্য সচেতন মানুষের কাছে খুবই পরিচিত এই চুইঝাল।

সংরক্ষণের নিয়ম

চুইঝাল ছাল বাকলসহ পলিথিনে মুড়ে ডিপ ফ্রীজে রেখে দীর্ঘদিন পর্যন্ত খাওয়া যায়। তাছাড়া ফ্রীজে ছাড়াও চটের বস্তায় মুড়ে মাঝে মাঝে পানির ছিটা দিয়েও খাওয়া যায় বা কেটেকুটে ওয়াটার প্রুফ বক্সে ভরে ডিপ ফ্রীজে রেখেও খাওয়া যায়।

চুইঝাল খাওয়ার নিয়ম

বেশিরভাগই মাংসের সাথে রান্না করে খাওয়া হয়, মাংস ছাড়াও বড় মাছ খিচুড়ি,ডাল মোট কথা ভারি পাকের প্রায় সব ধরনের তরকারির সাথে রান্না করে খাওয়া যায়। খাওয়ার সময় ডাটার মতো চিবিয়ে চিবিয়ে খাওয়া হয়। দেশি চুইঝালের আঠালো স্বাদের ঝাঝালো স্বাদে বিমহিত হবে যে কেউ।

রান্নার নিয়ম

মাংস ৬০ শতাংশ সেদ্ধ বা কষানো হয়ে গেলে তরকারিতে আলুর মতো করে কেটে দিয়ে দিতে হয়, তাতেই আসল দেশি চুইঝাল ভালোমতো সিদ্ধ হয়ে যায়। চুইয়ের সামান্য ব্যবহার বদলে দেয় সম্পূর্ণ রান্নার স্বাদ। অসম্ভব লোভনীয় ইউনিক দেশি এ পণ্য একপিচ খেলে আপনাকে সারাজীবন মনে রাখতেই হবে।

ঢাকাটাইমস/২৫এপ্রিল/এসকেএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

ফিচার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :