অননুমোদিত নকশায় ঝুঁকিপূর্ণ মসজিদ, ব্যবস্থা নিল পুলিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক
ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০৫ আগস্ট ২০২১, ২০:৪৬ | প্রকাশিত : ০৫ আগস্ট ২০২১, ১৯:৩৭

চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে অননুমোদিত নকশায় তৈরি একটি মসজিদ ঝুঁকিপূর্ণভাবে তিনতলা পর্যন্ত বাড়ানোয় এলাকাবাসীর দাবির প্রেক্ষিতে ব্যবস্থা নিয়েছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার পুলিশ সদরদপ্তরের এআই‌জি (মি‌ডিয়া অ্যান্ড পাব‌লিক রি‌লেশন্স) মো. সো‌হেল রানা স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ বিষয়ে জানানো হয়।

পুলিশ জানায়, হাটহাজারী থেকে একজন মুসল্লি বাংলাদেশ পুলিশের মিডিয়া এন্ড পাবলিক রিলেশন্স উইংকে তার এলাকার একটি ঝুঁকিপূর্ণ মসজিদ ভবনের কথা লিখে জানান। তিনি জানান, মস‌জিদ‌টি হাটহাজারী থানার খিল্লাপাড়ায় অবস্থিত। মসজিদটি দোতলা করার কথা থাকলেও এটি ঝুঁকিপূর্ণভাবে করা হয়েছে তিনতলা। কোনো ফাউন্ডেশন বা ভিত্তি ছাড়াই তোলা হয়েছে মসজিদটি। নিচতলা ৪৫০ বর্গফুটের হলেও দোতলা থেকে দুই দিকে বাড়িয়ে ৯০০ থেকে ১০০০ বর্গফুট করা হয়েছে। আরও আশংকার বিষয় হচ্ছে কয়েকদিন আগে তিনতলার ছাদ ঢালাই করা হয়েছে। তথ্য দাতা আশঙ্কা করেন, যে কোনো মুহূর্তে মসজিদটি ভেঙে পড়ে মুসল্লির প্রাণহানি ঘটতে পারে। তিনি দাবি করেন, এলাকার একজন প্রভাবশালী ব্যক্তি অনুমোদিত নকশা বা কোনো নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করে মসজিদটিকে অপরিকল্পিত ও ঝুঁকিপূর্ণভাবে রেখেছেন। সেই পরিবারের লোকজন নিয়মিতভাবে মসজিদের মধ্যে তাদের পারিবারিক ও ব্যবসায়িক সভা-সভাবেশও করে থাকেন।

বার্তাটি পেয়ে মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স উইং ওসি হাটহাজারী মো. রফিকুল ইসলামকে তা প্রেরণ করে জীবন ও সম্পদের সম্ভাব্য ক্ষতি এড়াতে অতিসত্ত্বর বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে নির্দেশনা দেয়। নির্দেশনা পেয়ে ওসি হাটহাজারী সরকা‌রি সং‌শ্লিষ্ট দপ্তর সমূ‌হের সা‌থে যোগা‌যোগ ক‌রেন এবং সং‌শ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ‌কে সা‌থে নি‌য়ে মসজিদটি পরিদর্শন করেন। প্রাথমিক তদন্তে প্রতীয়মান হয় মসজিদটি তৈরিতে কোনো প্রকার অনুমোদিত নকশা অনুসরণ করা হয়নি এবং মসজিদটি ঝুঁকিপূর্ণভাবে বাড়ানো হচ্ছিল। সংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবং উপজেলা প্রকোশলীর সহায়তায় এ বিষয়টি সমাধানের উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন ওসি হাটহাজারী। এছাড়া, মস‌জিদ‌কে যে‌নো অপরাধমূলক কো‌নো কা‌জে ব্যবহার না করা হয় তা নি‌শ্চিত করতেও উ‌দ্যোগ নেয়া হ‌য়ে‌ছে।

ঢাকাটাইমস/০৫আগস্ট/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :