টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ

বাংলাদেশকে ওমানের কাতারে রাখছে স্কটল্যান্ড

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৪:০৩

ক’দিন পরই বেজে উঠবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের উন্মাদনা। মারমার-কাটকাট সংস্করণে মাঠের লড়াইয়ের আগে নিজেদের শক্তি ও সামর্থ্য এক দল অন্য দলের সঙ্গে মেপে নিচ্ছেন। এখন চলছে কথার লড়াইয়ের মনস্তাত্ত্বিক খেলা।

দুদিন আগে পাপুয়া নিউগিনি অধিনায়ক আসাদ ভালা বলেছিলেন, সাকিবদের ঘূর্ণি ভয় পায় না তারা। এবার স্কটিশ কোচ শেন বার্জার জানালেন, তারা অভিজ্ঞতাসম্পন্ন বাংলাদেশকে ওমান বা পাপুয়া নিউ গিনির কাতারেই রাখছেন। তবে বাংলাদেশের মতো মানসম্পন্ন দলের বিপক্ষেও তাদের লক্ষ্য জয়।

স্কটল্যান্ডের কোচ শেন বার্জার বলেন, ‘গ্রুপ পর্বের ম্যাচগুলোয় বাংলাদেশকে আমরা পিএনজি (পাপুয়া নিউগিনি) বা ওমানের চেয়ে ওপরে কোথাও দেখি না। আমরা জানি, সব দলই আমাদের দিকে তেড়ে আসবে (জয়ের জন্য)। তবে আমরা তাদের সবার জন্যই হব সবচেয়ে বড় ম্যাচ। আমরা প্রস্তুত।’

নিজের দল নিয়ে আত্মবিশ্বাসী স্কটিশ কোচ শেন বার্জার।

নিজের দল নিয়ে আত্মবিশ্বাসী কোচ বার্গারকে সাহস যোগাচ্ছে গেল এক মাসে নেদারল্যান্ডস, নামিবিয়ার বিপক্ষে জয়গুলো। আর সেই জয়ের ধারায় বিশ্বকাপেও ভালো করবে স্কটল্যান্ড বলে বিশ্বাস সাবেক দক্ষিণ আফ্রিকার এই ক্রিকেটারের। তবে টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের বিপক্ষে ভালো রেকর্ড আছে স্কটিশদের। নেদারল্যান্ডের মাটিতে একমাত্র মুখোমুখি দেখায় ৩৪ রানে বড় জয় পেয়েছিল বেরিংটন-ড্রুমন্ডরা।

তবে স্কটিশ কোচের টি-টোয়েন্টিতে বড় দল ছোট দলের পার্থক্য দেখছেন না। তিনি বলেন, ‘আমরা জানি আমরা যদি সেরা ক্রিকেট খেলতে পারি তাহলে যে কোনো দলকে হারিয়ে দিতে পারি। ভালো খেলতে পারলে বিষয়টি খুবই সহজ হবে। সংক্ষিপ্ত সংস্করণের লড়াইয়ে বড় দলের সঙ্গে ছোট দলের খুব একটা পার্থক্য থাকে না। আমাদের শিবিরে কেমন ক্রিকেটার আছে তা আমরা জানি। আমরা সেরা ক্রিকেট খেলতে পারলে যেকোনো দলকে হারাতে পারি, সেটা বাংলাদেশ, ওমান কিংবা পাপুয়া নিউ গিনি যেই হোক।’

আগামী ১৭ অক্টোবর বিশ্বকাপের পর্দা ওঠার দিনে স্কটল্যান্ডের মুখোমুখি হবেন মাহমুদউল্লাহ-সাকিবরা। পরে ‘বি’ গ্রুপের অন্য দুই দল ওমান ও পাপুয়া নিউ গিনির বিপক্ষে লড়বে স্কটিশরা। গ্রুপ পর্বের সেরা দুইয়ে থাকতে পারলে সুপার টুয়েলেভে উঠবে ইংল্যান্ডের ওয়ানডে বিশ্বকাপে বাদ পড়া দলটি।

(ঢাকাটাইমস/১৬অক্টোবর/এইচএন)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :